ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

প্রথম পাতা

নোয়াখালীতে বর্বরতা

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, শনিবার

নোয়াখালীর  মাইজদী পৌরসভায় তাসনিয়া হোসেন অদিতা নামে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর গলা ও দুই হাতের রগ কেটে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের লক্ষ্মীনারায়ণপুর ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। অদিতা নোয়াখালী সরকারি   বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় আব্দুর রহিম রনি নামের তার সাবেক কোচিং শিক্ষকসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহত স্কুলছাত্রীর মা বলেন, আমি স্কুল থেকে এসে দেখি আমার ঘরে তালা দেয়া। আমি তালা খুলে ঢুকে দেখি, মেয়ের রুমের ফ্যান-টিভি চলছে। কিন্তু গেট বন্ধ। আমি গেট খুলে দেখি মেয়ে অর্ধ-উলঙ্গ এবং তার গলা কাটা। তার হাতের রগও কাটা। তিনি আরও বলেন, এর আগে কয়েকবার পাশের বাড়ির নয়নের ছেলে ইয়াছিন ধর্ষণের হুমকি দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
তার বাবা নাই, আমি তাকে বহু কষ্টে লালন-পালন করেছি। তার সঙ্গে কারও সম্পর্ক ছিল না।  আমি আমার মেয়ে হত্যার বিচার চাই। এদিকে শুক্রবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, গ্রেপ্তারকৃত রনি লক্ষ্মীনারায়ণপুর এলাকার খলিল মিয়ার ছেলে। রনির কোচিং থেকে কিছুদিন আগে পড়া বন্ধ করে দিয়ে অন্যস্থানে প্রাইভেট শুরু করে অদিতা। এতে ক্ষিপ্ত হয় রনি। যদিও পরে অদিতাদের বাসায় বিভিন্ন সময় আসা যাওয়া করতো সে। অদিতার মা ঘরে না থাকার সুযোগে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে ২টার মধ্যে কোনো এক সময় বাসায় গিয়ে অদিতাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর জোরে সাউন্ড দিয়ে টিভি চালিয়ে ঘরে থাকা ছোরা দিয়ে অদিতার হাত ও গলা কেটে তাকে হত্যা করে রনি।  ঘটনা ভিন্ন খাতে নেওয়ার জন্য ঘরে আলমেরিতে থাকা মালামাল ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখে। কিন্তু কোনো মূল্যবান জিনিস খোয়া যায়নি। পুলিশ সুপার জানান, নিহত শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধারের পরপর পুলিশের একাধিক দল পৃথক অভিযান চালিয়ে ইসরাফিল (১৪), তার ভাই সাঈদ (২০) ও আব্দুর রহিম রনিকে (২০) গ্রেপ্তার করে। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সে প্রাথমিকভাবে জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে। রনির মাথা, ঘাড়, গলাসহ শরীরের একাধিক স্থানে নখের আঁচড়ের দাগ রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে হত্যায় ব্যবহৃত একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি  মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় ইসরাফিল ও সাঈদকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।  

প্রথম পাতা থেকে আরও পড়ুন

প্রথম পাতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status