ঢাকা, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, সোমবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯ সফর ১৪৪৪ হিঃ

মত-মতান্তর

মাহবুব তালুকদার: একজন আপোসহীন দেশপ্রেমিকের বিদায়

শরীফ আস্-সাবের

(১ মাস আগে) ২৫ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:১৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৭ অপরাহ্ন

আশির দশকের মাঝামাঝি সময়কার কথা। আমি তখন নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলায় উপজেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে কর্মরত। সেই সুবাদে পূর্বধলায় বেশ কয়েকজন স্বনামধন্য মানুষের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। তাঁদের মধ্যে প্রথিতযশা লেখক ও আমলা মাহবুব তালুকদার এবং কর্নেল তাহেরের পিতা  মহিউদ্দিন আহমেদ অন্যতম। কবি, প্রাবন্ধিক, শিশুসাহিত্যিক এবং যোগ্য প্রশাসক  হিসাবে সুবিদিত মাহবুব তালুকদার যেমন ছিলেন সৎ ও স্পষ্টভাষী, তেমনি ছিলেন অমায়িক, বন্ধুবৎসল, বিবেকবান এবং পরোপকারী একজন মানুষ। আমার জানামতে, তিনি কখনো অসত্য এবং অন্যায়ের সঙ্গে আপোস করেননি। দেশকে ভালোবাসতেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান মাহবুব তালুকদার। 

 ১৯৭১-এ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের পাশাপাশি তিনি মুজিবনগর সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয় এবং স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে তিনি সরকারের উপসচিবের পদমর্যাদায় রাষ্ট্রপতির স্পেশাল অফিসার নিযুক্ত হন। অতঃপর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন শেষে ১৯৯৮ সালে তিনি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসাবে অবসরে যান। পরবর্তীতে, ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি  থেকে শুরু করে পাঁচ বছর মেয়াদে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

জন্মভূমি পূর্বধলার জন্য মাহবুব তালুকদারের ছিল একরাশ অকৃত্রিম ভালোবাসা। তিনি যখন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক, তখন তিনি আমাকে একটি চিঠি লিখেছিলেন, যে চিঠিটি ছিল তাঁর শৈশবের স্মৃতিময়তা এবং পূর্বধলার জন্য তাঁর ভালোবাসার আবেগময় প্রকাশে ভরপুর। 

১৯৯৫ সালে আমি দ্বিতীয়বারের মতো দেশের বাইরে এসে স্থায়ীভাবে প্রবাসজীবন শুরু করার পর থেকে মাহবুব তালুকদারের সঙ্গে আমার যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
নতুন করে তাঁর সঙ্গে আমার আবার যোগাযোগ হয় প্রায় ২৫ বছর পর, ২০২০ সালে। তাঁর সাথে টেলিফোনে নিয়মিত যোগাযোগ হতো আমার। তখন তিনি নির্বাচন কমিশনার। পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত তাঁর সেই সময়কার অনেক সাহসী বক্তব্য অনেকের মতো আমাকেও চিন্তিত এবং শঙ্কিত করে তুলতো।

যাইহোক, আমি সবসময়ই তাঁর লেখালেখির ভক্ত। সুযোগ পেলে তিনি আমার লেখাও মন দিয়ে পড়তেন, ফোন করে তাঁর মতামত দিতেন। ‘মানবজমিন পত্রিকা’য় আমার ‘বাঙ্গালনামা’ লেখাটির ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন তিনি। তিনি বাংলাদেশকে নিয়ে গর্ব করতেন। তবে কিছু মানুষের অবিবেচনাপ্রসূত অন্যায় আচরণে কষ্ট পেতেন। জীবনের শেষ ভাগে রাজনীতির সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করলেও রাজনৈতিক বিবেচনা তাঁর মানবিক ও নৈতিক অবস্থানকে কোনোভাবেই প্রভাবিত করতে পারেনি। 

অসুস্থ অবস্থায় তাঁর যুক্তরাষ্ট্র যাওয়া এবং খানিকটা সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে আসার পর তাঁর  সঙ্গে আমার কথাবার্তা হয়েছে। তবে আমাদের আলোচনা সাহিত্য, সংস্কৃতি ও স্মৃতিচারণের মধ্যেই মূলতঃ সীমাবদ্ধ থাকতো। তিনি প্রকাশ্যে নির্বাচন ও নির্বাচন কমিশন নিয়ে নানা কথা বললেও অনেকটা ইচ্ছে করেই  ব্যক্তিগত আলাপচারিতায় নির্বাচন কিংবা সরকার বিষয়ক আলোচনা এড়িয়ে যেতেন, যা তাঁর সরকারি শৃঙ্খলা ও পেশাদারিত্বের পরিচায়ক। 

কয়েক মাস আগে তিনি হঠাৎ আমাকে ফোন করলেন। বললেন, ‘তোমাকে আমার সদ্য প্রকাশিত ছড়া সমগ্রটি পাঠাতে চাই, কীভাবে পাঠাবো?’ 

আমি বললাম, ‘স্যার, আপনি আমাকে বইটি পৌঁছে দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করায় আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমার সহসাই দেশে আসার প্ল্যান আছে, আমি নিজে এসে আপনার কাছ থেকে বইটি নিয়ে যাবো।’ স্যারকে কথা দিয়েও কথাটি রাখতে পারিনি আমি। আমার দেশে আর যাওয়া হয়নি। কোভিড আক্রান্ত হয়ে আমাকে ঢাকার টিকিট ক্যানসেল করতে হলো, আর শেষবারের মতো দেখা হলো না স্যারের সঙ্গে, বইটিও নেয়া হলো না তাঁর হাত থেকে। দুর্ভাগ্য আমার! 

সর্বশেষ, স্যারের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর শুনে ফোন করলাম। আমার ফোনের কল রেকর্ড অনুসারে স্যারের সাথে কথা হয় গত ১৭ই জুলাই বিকেলে। স্যারের কথা বলতে কষ্ট হচ্ছিল। শুধু বললেন, ‘তোমার ফোনটা দেখে ধরলাম, কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে। আমার জন্য দোয়া করো। তুমি ভালো থেকো।’ 

প্রিয় স্যার, আপনাকে হারানোর বেদনা প্রকাশের ভাষা আমার জানা নেই। আপনাকে হারিয়ে আমরা হারালাম সাদা মনের একজন আদর্শ মানুষকে, একজন অনুসরণীয় ব্যক্তিত্বকে। আর, দেশ একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হারালো, হারালো একজন দেশপ্রেমিক সূর্যসন্তানকে। কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করি- শান্তি ও মঙ্গল আলোয় আপনি ভালো থাকুন অনন্তলোকে!

 

লেখক ড. শরীফ আস্-সাবের, কবি ও সাবেক আমলা 

 

পাঠকের মতামত

লেখককে ধন্যবাদ এত সুন্দর করে এই মহান মানুষটির জীবন তুলে ধরার জন্য। আল্লাহ উনার জান্নাত নসীব করুন।

Ohid Miah
২৫ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৪:০৯ পূর্বাহ্ন

তিনি ছিলেন একজন সত্য বাদী মানুষ। তাই তার জন্য আমি দোয়া করি। মহান আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতুল ফেরদাউস নছিব করেন আমিন

Anwar Hossain
২৫ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ২:১৯ পূর্বাহ্ন

তিনি ছিলেন একজন সত্য বাদী মানুষ। তাই তার জন্য আমি দোয়া করি। মহান আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতুল ফেরদাউস নছিব করেন আমিন

Delowar Hossain
২৪ আগস্ট ২০২২, বুধবার, ৬:০৮ অপরাহ্ন

স্যারের বিদেহী আত্মার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা। তিনি একজন সত্যিকার দেশদরদী ছিলেন।

আব্দুল বাসিত সরকার
২৪ আগস্ট ২০২২, বুধবার, ৩:৫৩ অপরাহ্ন

মত-মতান্তর থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

মত-মতান্তর থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status