ঢাকা, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, সোমবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯ সফর ১৪৪৪ হিঃ

শরীর ও মন

পারকিনসনকেও হারিয়ে দেয়া সম্ভব

ডা. নাজমুল হক মুন্না
২১ আগস্ট ২০২২, রবিবার

অকারণে হাত-পা কাঁপা, হাঁটা-চলা ধীর হয়ে যাওয়া ও শরীরের ভারসাম্য রক্ষা করতে না পারা ইত্যাদি পারকিনসন রোগের লক্ষণ। পারকিনসন সাধারণত বৃদ্ধ বয়সের রোগ; তবে কিছু ক্ষেত্রে অল্প বয়সেও পারকিনসন দেখা দিতে পারে। 

কেন হয়?  বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই পারকিনসন রোগের কারণ অজানা; তবে ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায়, মস্তিষ্কে প্রদাহ (এনসেফালাইটিস), স্ট্রোক ইত্যাদি বিভিন্ন কারণেও পারকিনসন হতে পারে। অল্প বয়সে কারও পারকিনসন দেখা দিলে ‘উইলসন ডিজিজ’ নামক একটি রোগের কথাও আমাদের মাথায় রাখতে হবে। 

লক্ষণসমূহ: * হাঁটা-চলা ধীর হয়ে যাওয়া, কথার আওয়াজ কমে যাওয়া, লেখা ছোট ও লেখার গতি কমে যাওয়া * হাত অথবা পা কাঁপা * হাত-পা শক্ত হয়ে যাওয়া * ভারসাম্য রক্ষা করতে না পারা; বিশেষ করে হাঁটা- চলার সময় * এ ছাড়া স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া, অস্থিরতা, দুশ্চিন্তা ইত্যাদিও পারকিনসন রোগের লক্ষণ। 

পরীক্ষা-নিরীক্ষা: পারকিনসন রোগ নির্ণয় করতে হলে চিকিৎসককে রোগীর ইতিহাস মনোযোগ দিয়ে শুনতে হবে ও প্রয়োজনীয় শারীরিক পরীক্ষা করতে হবে। কোনো ওষুধের দীর্ঘমেয়াদি সেবনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় পারকিনসন রোগ দেখা দিচ্ছে কিনা তা ভালো করে দেখতে হবে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দুশ্চিন্তা কমানোর ওষুধ অথবা মানসিক রোগের ওষুধ ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া দীর্ঘমেয়াদি সেবনে এই রোগ দেখা দিতে পারে। প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে রোগের কারণ নির্ণয়ের জন্য মস্তিষ্কের এম আর আই পরীক্ষা করা যেতে পারে। 

চিকিৎসা: পারকিনসন নিরাময়যোগ্য রোগ নয়, নিয়ন্ত্রণযোগ্য রোগ। এই রোগের চিকিৎসা শুরুর পূর্বে রোগীর সঙ্গে এই রোগের লক্ষণ, চিকিৎসার প্রক্রিয়া, ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ও দীর্ঘমেয়াদি ভালো থাকার উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে হবে। মস্তিষ্কের ডোপামিনের অভাবে পারকিনসন রোগ হয়; তাই ডোপামিন জাতীয় ওষুধ এই রোগের চিকিৎসায় খুবই কার্যকর। এ ছাড়া আরও অনেক ধরনের ওষুধ পারকিনসন নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়; যার প্রত্যেকটিরই বিভিন্ন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে। ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিলে নিউরোলজি বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

বিজ্ঞাপন
ওষুধের পাশাপাশি ব্যায়ামের গুরুত্ব অপরিসীম। যাদের ভারসাম্য রক্ষা করতে সমস্যা হয় তারা হাঁটা-চলা করার সময় ভারসাম্য প্রদানকারী লাঠি ব্যবহার করতে পারেন। 

চিকিৎসায় নতুন কি? গত দশকে পারকিনসন রোগের চিকিৎসায় নতুন অনেক দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। ‘ডিপ ব্রেইন স্টিমুলেশন’ নামক এক ধরনের শল্য চিকিৎসা ওষুধে নিয়ন্ত্রণ যোগ্য নয় এই ধরনের পারকিনসন রোগের চিকিৎসায় খুবই কার্যকর। পারকিনসন রোগীকে এই রোগ সম্পর্কে জানতে হবে। সঠিক চিকিৎসা, নিয়মিত ব্যায়াম ও নিয়ম মেনে চলার মাধ্যমে পারকিনসন রোগী দীর্ঘদিন প্রায় স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারেন। 

 

লেখক: সহকারী অধ্যাপক (নিউরোলজি), মুগদা মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।

শরীর ও মন থেকে আরও পড়ুন

শরীর ও মন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status