ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

রেকর্ড ১.৪৭ বিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় প্রিমিয়ার লীগে

স্পোর্টস ডেস্ক
১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার

ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লীগের মধ্যে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগই (ইপিএল) এখন সবচেয়ে জমজমাট। ট্রান্সফার মার্কেটে খরচের দিক দিয়েও এগিয়ে তারা। শুধু চলতি বছরের গ্রীষ্মকালীন দলবদলে ১.৪৭ বিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬ হাজার ৮২০ কোটি টাকা প্রায়) খরচ করেছে ইপিএল’র ক্লাবগুলো। এতে নিজেদের গড়া রেকর্ডই ভেঙে দিয়েছে তারা। ২০১৭ সালে এক ট্রান্সফার উইন্ডোতে ১.৪৩ বিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় হয়েছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে। 
গ্রীষ্মকালীন দলবদল শেষ হবে ১লা সেপ্টেম্বর। যেহেতু এখনো ২ সপ্তাহ সময় বাকি, প্রিমিয়ার লীগে খরচের অঙ্কটা বাড়তে পারে আরো। চলমান দলবদল মৌসুমে ইপিএলের ২০ দলের ১৯টিই কোনো না কোনো খেলোয়াড় কিনেছে। শুধু লেস্টার সিটি এখন পর্যন্ত কোনো সাইন করায়নি। 
ইপিএল ছাড়া স্পেনের লা লিগা, ইতালির সিরি’আ এবং জার্মানির বুন্দেসলিগা হলো ইউরোপের বাকি তিনটি শীর্ষ লীগ। গ্রীষ্মকালীন দলবদলে এই তিন লীগের খরচ একসঙ্গে করলেও প্রিমিয়ার লীগের সমান হয় না। ইপিএলের পর সবচেয়ে বেশি ৫৫৯ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় হয়েছে ইতালিয়ান সিরি’ আ লীগে।

বিজ্ঞাপন
লা লিগায় ৩৭১ মিলিয়ন এবং বুন্দেসলিগার ক্লাবগুলো ব্যয় করেছে ৪২৪ মিলিয়ন পাউন্ড।
ইপিএলের কোন ক্লাব কতো টাকা খরচ করলো
খরচের দিক থেকে এবার লন্ডনের ক্লাবগুলোই সেরা। এ ক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে চেলসি। নতুন মালিক টড বোয়েলি টাকা ঢালতে কুণ্ঠাবোধ করেননি। দলগঠনে কোচ টমাস টুখেলকে সর্বোচ্চ সাপোর্ট দিচ্ছেন তিনি। এখন পর্যন্ত চেলসির ব্যয় ১৭৫.৪৯ মিলিয়ন পাউন্ড।
টটেনহ্যাম হটস্পারও কম যায়নি। কোচ আন্তেনিও কন্তে ১২৬ মিলিয়ন খরচ করেছন খেলোয়াড়ের পেছনে। অনেকদিন ধরে প্রিমিয়ার লীগের স্বাদ না পাওয়া আর্সেনাল এবার নেমেছে কোমর বেঁধে। ১১৫.৭ মিলিয়ন খরচ করে ফেলেছে গানাররা। এদের তুলনায় মাঝারি মানের দল ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড। তাদের ব্যয় ১১৫.১ মিলিয়ন পাউন্ড। দীর্ঘদিন পর প্রিমিয়ার লীগে ফিরেই ১১১ মিলিয়ন ঢেলেছে নাটিংহ্যাম ফরেস্ট।
টানা দু’বারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি এদের তুলনায় কম টাকা ব্যয় করেছে এবার। এরপরও পেপ গার্দিওলার খরচ ১০৭ মিলিয়ন পাউন্ড। গত মৌসুমে মাত্র ১ পয়েন্টের ব্যবধানে প্রিমিয়ার লীগ হাতছাড়া করেছিল লিভারপুল। দলটির জার্মান কোচ এবার ৯৯.২ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় করেছেন। লিডস ইউনাইটেডের খরচ ৮৯.৯ মিলিয়ন পাউন্ড।
দলবদল বাজারে সুবিধা করতে পারেনি রেকর্ড ২০ বারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। লিসান্দ্রো মার্টিনেজ ছাড়া রেড ডেভিলদের উল্লেখযোগ্য কোনো সাইনিং নেই। ৬৯.৬ মিলিয়ন খরচ হয়েছে তাদের। তালিকায় যথাক্রমে পরের দলগুলো হলোÑ উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স (৬৯.৫), নিউক্যাসল ইউনাইটেড (৬২), সাউদাম্পটন (৬০), ফুলহ্যাম (৫৬.৪), অ্যাস্টন ভিলা (৪৬), ব্রেন্টফোর্ড (৪৫.৮), ক্রিস্টাল প্যালেস (৩২.৮), ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়ন (৩২.১), এভারটন (৩৪), বোর্নমাউথ (২৩.৩)।
খেলোয়াড় বিক্রিতে এগিয়ে ম্যান সিটি
রাহিম স্টার্লিং (৪৭.৫ মিলিয়ন) ও গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে (৪৫ মিলিয়ন) বিক্রি করে দিয়েছে ম্যান সিটি। এছাড়া রোমেও লাভিয়াকে সাউদাম্পটনের কাছে বিক্রি করে পেয়েছে ১০ মিলিয়ন পাউন্ড। ট্রান্সফার মার্কেট জানিয়েছে, খেলোয়াড় বিক্রিতে ম্যান সিটিই এবার সবচেয়ে এগিয়ে।
লিভারপুল সাদিও মানেকে ৪১ মিলিয়ন পাউন্ডে বিক্রি করেছে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে। এছাড় নিকো উইলিয়ামকে বিক্রি করে পেয়েছে ১৭ মিলিয়ন। সিটির পর সবচেয়ে ভালো ব্যবসা করেছে লিডস ইউনাইটেড। বার্সেলোনার কাছে রাফিনহাকে ৬৫ এবং ম্যান সিটির কাছে ৪২ মিলিয়ন পাউন্ডে তারা বিক্রি করেছে কেলভিন ফিলিপসকে। এরপর রয়েছে ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়ন। মার্ক কুকুরেল্লা (৬২) ও ইভেস বিসৌমাকে (২৫) বিক্রি করে বড় অঙ্কের লাভ করেছে দলটি।
উল্লেখযোগ্য সাইনিং

আরলিং ব্রট হালান্দ (৬৪ মিলিয়ন) বরুশিয়া ডর্টমুন্ড থেকে ম্যান সিটি, ডারউইন নুনেজ (৬৪ মিলিয়ন) বেনফিকা থেকে লিভারপুল, মার্ক কুকুরেল্লা (৬২ মিলিয়ন) ব্রাইটন থেকে চেলসি, রিচার্লিসন (৫০ মিলিয়ন) এভারটন থেকে টটেনহ্যাম, রাহিম স্টার্লিং (৪৭.৭ মিলিয়ন) ম্যান সিটি থেকে চেলসি, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ (৪৬.৫ মিলিয়ন) আয়াক্স থেকে ম্যানইউ, গ্যাব্রিয়েল জেসুস (৪৫ মিলিয়ন) ম্যান সিটি থেকে আর্সেনাল, কেলভিন ফিলিপস (৪২ মিলিয়ন) লিডস থেকে ম্যান সিটি।

 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status