ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

টঙ্গীর গ্যারেজে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৮ জনের সবাই মারা গেলেন

স্টাফ রিপোর্টার

(১ মাস আগে) ১৩ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৯ অপরাহ্ন

রাজধানীর উত্তরার টঙ্গী কামারপাড়া রাজাবাড়ী এলাকার একটি রিকশার গ্যারেজে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৮ জনই একে একে চলে গেলেন। গত রাতে 

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মো. শাহিন মিয়া (২৫) নামের সর্বশেষ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে ৪০ শতাংশ দগ্ধ ছিল। এর আগে ওই ঘটনায় দগ্ধ ৭ জন একে একে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ওই বিস্ফোরণে দগ্ধ  ৮ জনের সবাই মারা গেলেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ই আগস্ট ওই গ্যারেজে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে মালিকসহ ৮ জন দগ্ধ হন। সেদিনই তাদের সবাইকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। ওই গ্যারেজে দগ্ধ ৮ জন হলেন- গ্যারেজ মালিক মো. গাজী মাজহারুল ইসলাম (৪৮), মো. মিজান (৩৫), মো. নূর হোসেন (৬০), মো. মাসুম মিয়া (৩৫), মো. আল-আমিন (৩০), মো. শরিফুল ইসলাম (৩২), মো. শাহিন (২৬) এবং মো. আলম (২৩)।

তাদের মাঝে মো. আলম (২৩) মারা যান শনিবার রাত ১০টার দিকে। এরপর ওই রাতেই ২টার দিকে মারা যান গ্যারেজের মালিক গাজী মাজহারুল ইসলাম। এরপর মো. মাসুম আলী মারা যান সোমবার (৮ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে।

বিজ্ঞাপন
এরপর একে একে চলে গেলেন বাকি সবাই।

প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম বলেন, উত্তরা কামারপাড়া এলাকায় রিকশা গ্যারেজের পাশাপাশি ভাঙারির ব্যবসা রয়েছে। ওই ভাঙারির দোকানে সেন্টের বোতলসহ অন্যান্য বোতল খোলার সময় হঠাৎ বিস্ফোরণ হয়। এতে রিকশার গ্যারেজে থাকা আটজন গুরুতর আহত হন।
 

পাঠকের মতামত

Pathetic. أنا لله وأنا اليه راجعون. কেউ বাঁচল না ।

Kazi
১২ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার, ৯:১৯ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status