ঢাকা, ১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

ঝিনাইদহে মামলা করে বিপাকে মুক্তিযোদ্ধার পরিবার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
৬ আগস্ট ২০২২, শনিবার

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার উত্তর কাষ্টসাগরা গ্রামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে ভিটে থেকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা করা হচ্ছে। জমিজমা নিয়ে বিরোধ ও সামাজিক কারণে এলাকার একটি মহল ইদ্রিস আলী নামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তার প্রতিবন্ধী স্ত্রী রাশিদা খাতুনকেও মারধর করেছে। এ ঘটনায় ঝিনাইদহ সদর থানায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হলে আসামিরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। আদালতের বারান্দায় পর্যন্ত মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। ফলে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। ঝিনাইদহ সদর থানায় দায়েরকৃত মামলার রেকর্ড সূত্রে জানা গেছে, মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলীর ঢাকা ইডেন মহিলা কলেজে পড়ুয়া কন্যা রঞ্জনা খাতুনকে একই গ্রামের মনিরুল ইসলাম কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সন্ত্রাসীরা প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো রঞ্জনাকে। এ ছাড়াও জমি নিয়ে রঞ্জনার মামা সাবান শাহ’র সঙ্গে প্রতিপক্ষের বিরোধ ছিল। পূর্ব বিরোধের জের ধরে গত ২২শে জুলাই আসামি উত্তর কাষ্টসাগরা গ্রামের সলেমান মণ্ডলের ছেলে তুহিন মণ্ডল, আশিক, ইউনুস আলী শাহের ছেলে ওবাইদুল, আসাদুল, তোয়াজ উদ্দীন মালিথার ছেলে মনিরুল, মোফাজ্জেল মণ্ডলের ছেলে রানা, পাঞ্জু শাহের ছেলে আনোয়ার, পাচু রায়ের ছেলে কৃষ্ণ রায়, একই গ্রামের আসাদ ও ভুপতিপুর গ্রামের সুরোত আলীর ছেলে বজলুর রহমান দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রঞ্জনা খাতুনের বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে তার মামা সাবান শাহ্‌, মামি রোজিনা ও খালা শিখা খাতুনকে মারপিট করতে থাকে। তাদের রক্ষা করতে এগিয়ে গেলে আসামি মনিরুল ইসলাম রঞ্জনার পরিধেয় কাপড় ছিঁড়ে ফেলে শ্লীলতাহানী ঘটায়।

বিজ্ঞাপন
এ সময় রঞ্জনার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী ও তার অসুস্থ স্ত্রীকে আসামিরা মারধর করে জখম করে। হামলা চালিয়ে বাড়ি ভাঙচুর ও ঘর থেকে সোনার গহনা লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মামলা করা হলে আসামিরা আদালতের বারান্দায় বাদীনিকে অশ্লিল বকাঝকা করে ও মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দিচ্ছে। রঞ্জনা খাতুন  জানান, আমার পিতা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা তারপরও সন্ত্রাসীরা তাকে মারধর ও মেরে ফেলার চরম দুঃসাহস দেখিয়েছে। তিনি বলেন, আমরা ৩ বোন এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। মামলা করার কারণে আসামিরা যেকোনো সময় তাদের ক্ষতিসাধন করতে পারে। এ ব্যাপারে তিনি ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি জিডি করেছেন বলেও জানান।    

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status