ঢাকা, ১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

দেশ বিদেশ

পরিবর্তনের বার্তা দিলো বার্মিংহাম

সামন হোসেন, বার্মিংহাম (যুক্তরাজ্য) থেকে
৩০ জুলাই ২০২২, শনিবার

সেক্সপিয়ারের শহর বার্মিংহাম উপহার দিলো কমনওয়েলথ গেমসের দারুণ এক উদ্বোধনী। চোখ ধাঁধানো নজর কাড়া আয়োজনে ছিল বার্মিংহামের ইতিহাস-ঐহিত্য। মনোমুগ্ধকর আতশবাজিতে দিশাহারা হয়ে পড়েছিল স্টেডিয়ামের পুরো গ্যালারি। বৃহস্পতিবার রাতের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বড় চমক ছিলেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মালালা ইউসুফজাইয়ের উপস্থিতি। যিনি আলেকজান্ডার স্টেডিয়ামে উপস্থিত হয়ে নিজের বক্তব্যে খেলাধুলার মাধ্যমে বিশ্ববাসীর মধ্যে বন্ধুত্ব স্থাপনের বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছেন। শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে খেলাধুলার মাধ্যমে সবাইকে এক ছাদের নিচে আসার কথা বলেছেন। এছাড়া ইংল্যান্ডের অলিম্পিকজয়ী ডাইভার টম ড্যালে সমকামিতার প্রতি সমর্থন প্রদর্শন করে একটি পারফর্ম করে দেখান। স্থানীয় সময় রাত আটটায় (বাংলাদেশ সময় রাত একটা) বার্মিংহামের আলেকজান্ডার স্টেডিয়ামে শুরু হয় গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।  ‘গেমস ফর এভরিওয়ান’-এর গেমসে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আলোকিত করেন ১৮ থেকে ৮০ বছরের  প্রায় দুই হাজার নারী-পুরুষ। প্রায় ৩০ হাজার দর্শকের সামনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই বলা হয়, অন্ধকারের সময়ে আমরাই স্বপ্ন দেখার আলো বহন করবো।

বিজ্ঞাপন
যা আমাদের সবাইকে একত্রিত করবে। গেমসের সর্বশেষ আসরের চেয়ে ১৮৯ মিলিয়ন পাউন্ড কম খরচ হচ্ছে বার্মিংহামে। এই আসরের বাজেট ৭৭৮ মিলিয়ন পাউন্ড। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সামগ্রিক আয়োজনের পরিচালক ছিলেন স্টিভেন নাইট। ইংলিশ জনপ্রিয় নাটক ‘পিকে ব্লাইন্ডার’-এর লেখক তিনি। পিকে ব্লাইন্ডারস নামেই তিনি পরিচিত। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ স্থানীয় ব্যান্ড ডুরান-ডুরান। সঙ্গে হেভি মেটাল ব্যান্ড ব্ল্যাক সাব্বাথও পারফর্ম করেন। এছাড়া ইংল্যান্ডের অলিম্পিকজয়ী ডাইভার টম ড্যালে সমকামিতার প্রতি সমর্থন প্রদর্শন করে একটি পারফর্ম করে দেখান। যার মাধ্যমে শেষ হয় কমনওয়েলথ গেমসের ব্যাটন রিলে। যদিও কমনওয়েলথের ৫৬টি দেশে রয়েছে সমকামিতা নিয়ে কড়াকড়ি ব্যবস্থা। অনুষ্ঠানের অন্যতম চমক ছিল প্রায় ১০ মিটার লম্বা ষাঁড়ের আগমন। অনুষ্ঠানের মাঝে কৃত্রিম এই ষাঁড়ের আগমন ঘটিয়ে বার্মিংহাম ও কমনওয়েলথের বাহারি সংস্কৃতির দিকটি তুলে ধরা হয়। এবারের বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসের উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, সামাজিক পরিবর্তন। মালালা কিংবা ড্যালে ছাড়াও, যেকোনো ক্রীড়াবিদকে নিজ নিজ জায়গা থেকে ইতিবাচকভাবে সামাজিক পরিবর্তনের দিকটি বিবেচনার ব্যাপারে উৎসাহিত করেছেন। মনোমুগ্ধকর আয়োজনের অন্যতম আকর্ষণ ছিল অসংখ্য গাড়ির নাচ। স্টেডিয়ামের চার দিক দিয়ে প্রবেশ করে অসংখ্য মডেলের গাড়ি। সবাইকে চমকে দিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের প্রায় ৪ মিটার লম্বা পুতুল। এছাড়া আরও তিনটি বিশাল আকৃতির পুতুল নেয়া হয় স্টেডিয়ামে। যেগুলো আলো-আঁধারের অদ্ভুত সংমিশ্রণ ঘটায়।  পরে অ্যাথলেটদের প্যারেডে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ওয়েলসকে সাদরে স্বাগত জানানো হয়। স্বাগতিক ইংল্যান্ড দল কনফেত্তির ভেলায় চড়ে প্যারেডে অংশ নেয়। এ সময় ব্যাকগ্রাউন্ডে দর্শকরা গলা মেলান ‘উই উইল রক ইউ’ গানে। এশিয়ান ক্রীড়াবিদদের মার্চপাস্টে প্রথমেই দেখা যায় বাংলাদেশকে। বাংলাদেশের লাল-সবুজের পতাকা ছিল ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্তের হাতে। তাকে সহায়তা করেন বক্সার সুর কৃষ্ণ চাকমা। যদিও কাল শারীরিক অসুস্থতার কারণে রিংয়েই নামতে পারেননি এই বক্সার। সাত ডিসিপ্লিনে অ্যাথলেট কর্মকর্তা মিলিয়ে ৫০ জনের বহর এসেছে বাংলাদেশ থেকে। বাংলাদেশের পরই প্যারেডে অংশ নেয় ভারত। আলেকজান্ডার স্টেডিয়ামে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে ভারতের পতাকা বহন করেন পিভি সিন্ধু এবং মনপ্রীত সিং। দেশের পতাকা হাতে সবার আগে হাঁটেন ভারতের তারকা ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় এবং হকি তারকা। বার্মিংহামে দেখা গেল ভাংড়া। এই শহরে অনেক ভারতীয় বসবাস করে। তাই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতের সংস্কৃতিও তুলে ধরা হয়। ভাংড়ার তালে নেচে ওঠে নৃত্যশিল্পীরা। নাচের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়। প্যারেড শেষে ১ হাজার গায়কদলের সঙ্গে আলেকজান্ডার স্টেডিয়ামে ঢুকে গেমসের ব্যাটন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না রানী এলিজাবেথ। তাঁর বার্তা পাঠ করেন প্রিন্স চার্লস। তারই সঙ্গে সূচনা হয় কমনওয়েলথ গেমসের। নাচ, গান এবং ঐক্যের বার্তা দিয়ে প্রতিযোগিতার ঢাকে কাঠি পড়ে। প্রায় ৩০ হাজার দর্শক উপস্থিত ছিল। মোট ৭২ দেশের পাঁচ হাজারেরও বেশি অ্যাথলেট এবারের প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন।

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

দেশ বিদেশ থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status