ঢাকা, ১২ জুলাই ২০২৪, শুক্রবার, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৫ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অনলাইন

দেশের অর্থনীতির বড় দায় খেলাপি ঋণ

স্টাফ রিপোর্টার

(৪ সপ্তাহ আগে) ১৪ জুন ২০২৪, শুক্রবার, ২:৫৩ অপরাহ্ন

mzamin

‘বর্তমানে দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ৮২ হাজার ২৯৫ কোটি টাকা। যেটা আমাদের দেশের জন্য অনেক বড়। যদিও শতাংশের দিক থেকে এটি ১১.১০ শতাংশ। এর মধ্যে আদায় হয়েছে ৫৮ হাজার কোটি টাকা। ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন মামলার কারণে ২ লাখ ১২ হাজার ১৫৭ কোটি টাকা সরকারের অনাদায়ী হয়ে আছে। সারাদেশে আদালতে আটকে থাকা মামলা রয়েছে ২ লাখ ৮২ হাজার ৯৬টি। এ মামলা কিভাবে নিষ্পত্তি হবে জানা নেই। যে ঋণ দেয়া হয়েছে তার ২৫ শতাংশ আমরা পাচ্ছি না। এটা আমাদের অর্থনীতির জন্য বড় দায়।’ বৃহস্পতিবার সংসদে বাজেট আলোচনায় এসব কথা বলেন ঝিনাইদহ-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. নাসের শাহরিয়ার জাহেদী।
এ সময় তিনি কৃষিতে ভর্তুকি কমানোর সমালোচনা করে বলেন, মূল্যস্ফীতির জন্য যে ৭৪৯টি পণ্য হিসেবে বিবেচনা করা হয় এর মধ্যে ৫০০টির বেশি কৃষিজাত পণ্য। তাই মূল্যস্ফীতি কমাতে হলে কৃষির উৎপাদন বাড়াতে হবে এবং কৃষককে ভর্তুকি দিতে হবে।

বিজ্ঞাপন
কৃষির ভর্তুকির ক্ষেত্রে ৩২.৭ শতাংশ কমিয়ে দেয়া হয়েছে। কৃষি নির্ভর দেশে কৃষিতে ভর্তুকি না কমিয়ে বাড়ানোর পরামর্শ দেন তিনি। ২০২৩-২৪ সংশোধিত বাজেটে কৃষিতে ভুর্তকি ছিল ২৫ হাজার ৬৪৪ কোটি টাকা টাকা। আগামী বছর কৃষিতে বরাদ্দ এক লাফে ১৭ হাজার কোটিতে নেমে গেছে। তাই কৃষিতে ভর্তুকি যদি বাড়ানো না যায় তাহলে গত বছর যা ছিল তা রাখার সুপারিশ করেন তিনি।
সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি নিয়ে এমপি জাহেদী বলেন, ওএমএস, খাদ্য ভুর্তকি, ভিজিএফ, মাতৃ ও শিশু উন্নয়ন কর্মসূচি- প্রধানমন্ত্রীর নেয়া অত্যন্ত যুগোপযোগী ও কল্যাণকর একটি কর্মসূচি। এর মধ্যে ওএমএসে মাত্র ৪ শতাংশ বাজেট বাড়োনো হয়েছে। এটা অত্যন্ত অপ্রতুল।  অন্যদিকে খাদ্য ভর্তুকি ২০ শতাংশ কমিয়ে দেয়া হয়েছে। সেবামুলক খাতে ২০ শতাংশ কমানো নিয়ে প্রশ্ন তুলেন তিনি। ভিজিএফে মাত্র ৭ শতাংশ বরাদ্দ বেড়ে ৫৬৩ কোটিতে দাঁড়িয়েছে। এখানে বরাদ্দ ১ হাজার কোটি টাকা করার পরামর্শ দেন তিনি। মাতৃ শিশু উন্নয়ন ও পেনশন কর্মসূচিতে বরাদ্দ বাড়ানোয় ধন্যবাদ জানান তিনি।
শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে তিনি বলেন, ক্যাডেট কলেজগুলো দেশের অন্যতম সেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হওয়ার সত্ত্বেও সবসময় বাজেট সংকটে থাকে। আগামী অর্থবছরে ক্যাডেট কলেজ শিক্ষাব্যবস্থার মানোন্নয়নে এবং সঠিকভাবে পরিচালনা করতে যে পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন তা ব্যবস্থা করার সুপারিশ করেন তিনি।
হাসপাতালে ফার্মাসিস্ট নিয়োগের ব্যাপারে ইতিবাচক সম্মতি দেয়ায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে এমপি জাহেদী বলেন, হাসপাতাল সমূহে গ্রাজুয়েট ফার্মাসিস্ট নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। প্রথম বছরে ছয়শো ফার্মাসিস্ট নিয়োগ হতে পারে। তাই দেশের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে জনবল নিয়োগে প্রয়োজনীয় অর্থ প্রদানে অর্থমন্ত্রণালয়ের প্রতি সুপারিশ করেন তিনি।
এ সময় তিনি ঝিনাইদহে মেডিকেল কলেজ ও আড়াইশো শয্যা হাসপাতালে ক্যান্সার রোগীদের কেমোথেরাপি, কিডনি রোগীদের ডায়ালাইসিস ও হার্টের রোগীদের সিসিওর ব্যবস্থা করতে বিশেষায়িত ইউনিট চালু করার সুপারিশ করেন। এছাড়া ঝিনাইদহে কৃষি ফার্মকে কেন্দ্র করে একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের সুপারিশ করেন তিনি।
 

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status