ঢাকা, ১৯ জুন ২০২৪, বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

প্রথম পাতা

বেনজীরের আরও ১১৯ স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২৭ মে ২০২৪, সোমবারmzamin

সাবেক পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমেদ ও তার স্ত্রীর আরও ১১৯টি স্থাবর সম্পত্তি ক্রোক করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে বিভিন্ন কোম্পানিতে তাদের নামে থাকা শেয়ার জব্দ করারও আদেশ দেয়া হয়েছে। রোববার ঢাকা মহানগর আদালতের সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন দুদকের আবেদনের প্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন। দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর সাংবাদিকদের বলেন, দুদকের আরও একটি আবেদনের প্রেক্ষিতে সাবেক পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমেদের ও তার স্ত্রীর নামে থাকা আরও ১১৯টি স্থাবর সম্পত্তি ক্রোক করার নির্দেশ দিয়েছেন। ১১৯টি স্থাবর সম্পত্তির মধ্যে মাদারীপুর জেলার বেনজীরের স্ত্রীর নামে ১১৪টি দলিলের সম্পদ, একই জেলার আরেকটি উপজেলার ১টি দলিল, সাভারের ১টি সম্পত্তি রয়েছে এবং গুলশানের ৪টি ফ্ল্যাট রয়েছে। ৪টি ফ্ল্যাটের মধ্যে ২০৪২ স্কয়ার ফিটের ২টি এবং ২০৫৩ স্কয়ার ফিটের ২টি। এ ছাড়া ৪টি নিজ নামীয় কোম্পানি, ৪টি বিও অ্যাকাউন্ট। ১৫টি আংশিক মালিকানাধীন কোম্পানির শেয়ার রয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার বেনজীর ও তার স্ত্রীর ৮৩টি স্থাবর ও ৩৩টি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের স্থাবর সম্পদ ক্রোক এবং অস্থাবর সম্পদ ফ্রিজ করার জন্য আদালতে আবেদন করেন দুদকের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম। আবেদনে বলা হয়, সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের সম্পদ ক্রোক ও ফ্রিজ না করা গেলে তা হস্তান্তর হয়ে যেতে পারে।

বিজ্ঞাপন
পরবর্তীতে রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা সম্ভব হবে না। এরই মধ্যে বেনজীর আহমেদ ও তার স্ত্রী-সন্তানের স্থাবর সম্পদ ক্রোক, জব্দ ও ব্যাংক হিসাব জব্দের বিষয়ে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান গণমাধ্যমকে জানান, গত বৃহস্পতিবার অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে আদালত বেনজীর আহমেদ, তার স্ত্রী ও সন্তানদের সম্পদ জব্দের যে আদেশ দিয়েছিল, সেটি বাস্তবায়ন শুরু করেছে দুদক। পর্যায়ক্রমে আদালতের আদেশ সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থার কার্যালয় ও ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হবে। এর আগে তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অনুসন্ধানে নামে দুদক। সংস্থাটির উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি অনুসন্ধান দল গঠন করা হয়। অন্য সদস্যরা হলেন- সহকারী পরিচালক নিয়ামুল হাসান গাজী ও জয়নাল আবেদীন। বেনজীর আহমেদ ২০২০ সালের ১৫ই এপ্রিল থেকে ২০২২ সালের ৩০শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আইজিপি ছিলেন। এর আগে তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার ও র?্যাবের মহাপরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। 
 

পাঠকের মতামত

সম্পদের যে দলিল তা বয়সের চেয়ে বেশি আর টাকা ওজনের চেয়ে হাজার গুণ বেশি।

khokon
২৮ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১:৫৭ অপরাহ্ন

সকল দুর্নীতিবাজ কে আইনের আওতায় আনা হউক

A rahim
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ১১:৩৮ অপরাহ্ন

বিচার চাই

A rahim
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ৩:৫৫ অপরাহ্ন

বেনজীর আহমেদ দিয়েই জাতীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে কেন ,? যারা বিদেশে অর্থ পাচার করেছে তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হবে তা খোলাসা করতে দুদকের ভূমিকা ও জাতি জানতে চায়।

Saifur Rahman
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ১২:৫৩ অপরাহ্ন

করছেটা কি , শুধু বউর নামে ৩৩ টা ব্যাংক একাউন্ট । রক্ষক হয়ে দেশটার তলানীটাও চেটে পুটে শেষ করেছে !

Mostafizur Heeron
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ১২:৪৩ অপরাহ্ন

এরকম আরো হাজার হাজার দুর্নীতিবাজ আছে তাদেরকে আইনের আওতায় আনার প্রয়োজন

Liton
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ১২:১১ অপরাহ্ন

এত সৎ অফিসার এত এত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পেলেন, পালন করলেন। তাহলে এত সম্পত্তি অর্জন করলেন কিভাবে? দায়িত্তে থাকার সময় কেউ কিছু জানতে পারলোনা, আজব।

AA
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ৭:৩৭ পূর্বাহ্ন

আশাকরি সকল প্রতাপশালী সরকারি কর্মকর্তারা এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিবেন । ঘুষের টাকার সম্পদ চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার পর এভাবেই হাত ছাড়া হতে পারে ।

Kazi
২৭ মে ২০২৪, সোমবার, ৬:১৪ পূর্বাহ্ন

প্রথম পাতা থেকে আরও পড়ুন

   

প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status