ঢাকা, ১২ জুন ২০২৪, বুধবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৫ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

দেশ বিদেশ

রান্না করা খিচুড়িতে ময়লা ছিটিয়ে দিলেন এসিল্যান্ড

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার

৭০ জন নারী-পুরুষ গ্রামের মধ্যে রান্না করছিল খিচুড়ি। শেষ হলে আনন্দের সঙ্গে খাবে তারা। কিন্তু হঠাৎ হাজির বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজ হোসেন। এরপর রান্না করা খাবারের মধ্যে দেয়া হয় আবর্জনা। অভিযোগ এসিল্যান্ড ফিরোজ হোসেনের নির্দেশে তার গাড়ির চালক হযরত আলী রান্না করা খিচুড়ির মধ্যে ছাগলের বিষ্ঠাসহ বিভিন্ন ময়লা আবর্জনা ছিটিয়ে দেয়। ঘটনাটি গত রোববার ১৯শে মে মধ্যরাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের কেশরতা গ্রামে। এ ঘটনায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে জনমনে।

জানা যায়, আদমদীঘিতে ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ ২য় ধাপের নির্বাচন ২১শে মে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন উপলক্ষে আচরণবিধি বিষয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ডিউটি করছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজ হোসেন। রোববার রাতে সদর ইউনিয়নের কেশরতা গ্রামের প্রায় শতাধিক নারী-পুরুষ মিলে পিকনিকের আয়োজন করেন। সেখানে আনারস প্রতীকের সমর্থক একই এলাকার সাধারণ ভোটারগণ একত্রিত হয়ে খিচুড়ি পাক করছিলেন খাওয়ার জন্য।

বিজ্ঞাপন
সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজ হোসেন রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় অনেক লোকজন দেখে গাড়ি থামিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। তিনি তার সঙ্গে থাকা গাড়ির চালক হযরত আলীকে রাস্তার আবর্জনা উঠিয়ে খিচুড়ির ডেকচির ভিতর দেয়ার জন্য নির্দেশ দেন। এসিল্যান্ডের নির্দেশ পেয়ে ড্রাইভার সঙ্গে সঙ্গে রান্না করা খাবারের মধ্যে বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা ছিটিয়ে দেয়। এরপর ক্ষোভে ফেটে পড়েন সেখানে উপস্থিত সকলে। তাদের দাবি তারা যদি কোনো অন্যায় করে থাকে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারতেন। কিন্তু রান্না করা খাবারের মধ্যে আবর্জনা দেয়া মোটেও কাম্য নয়। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবি করেছেন তারা। আর আনারস প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকেরা সেখানে পিকনিক খাচ্ছিল বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু রেজা খান।

গ্রামের মোখলেছুর রহমান বলেন, একপোয়া করে চাল আর ৫০ টাকা করে চাঁদা দিয়ে আমরা পিকনিকের আয়োজন করি। সেই মোতাবেক খিচুড়ি রান্নার শেষ পর্যায়ে হঠাৎ এসিল্যান্ড এসে আমাদের জিজ্ঞেস করে আমরা ভোটের কোনো প্রার্থী আমাদের খাওয়াচ্ছে কি না। আমরা পিকনিকের চাঁদার তালিকা তাকে দেখানোর পরও তার নির্দেশে প্রথমে জ্বলন্ত চুলাতে পানি ঢেলে দেয়। এরপর রান্না করা খিচুড়ির ডেকচির মধ্যে ছাগলের বিষ্ঠাসহ বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা ছিটিয়ে দেয়। তিনি একটু ক্ষোভ নিয়েই বলেন, একজনের খাবার কীভাবে নষ্ট করে, তা আমি আমার জীবনে দেখিনি। এটা খুব অমানবিক কাজ করেছেন তিনি। একই সুরে আরেক নারী বলেন, আমরা চাঁদা দিয়ে পিকনিকের আয়োজন করে রান্না করছিলাম। কিন্তু খাবারের মধ্যে ময়লা আবর্জনা দেওয়ায় আমরা আর খাবার খেতে পারিনি। সারারাত না খেয়ে থাকতে হয়েছে। এটা আসলে ঠিক হয়নি। ঘটনার বিষয়ে জানার জন্য একাধিকবার ফোন ও ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও কোনো সাড়া দেননি সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজ হোসেন। আর ঘটনাটি জানতে চাইলে নির্বাহী অফিসার রুমানা আফরোজ বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে মুঠোফোনে  বলেন, নির্বাচন শেষ হলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।
 

পাঠকের মতামত

This AC land should be sent for phycological evaluation. Definitely he is not mentally sound. When people of the country are sleeping with half or empty stomach, how can he spoils food!! It is like the colonial officer behaving with the subject. Very disturbed by this news.

SAIFUL SARKER
২৬ মে ২০২৪, রবিবার, ৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

মহারাজা এ সি ল্যান্ড মহাত্মন ইওর মাজেস্টি !!! খাবার গুলো কোনো গরিব লোক এর জন্য রেখে দিতে পারতেন ইওর মাজেস্টি !!! যে কোনো খাবার নষ্ট করা গুনার কাজ, আপনি আইনের লোক, কেউ অপরাধ করলে আইনের ব্যবস্থার মাধ্যমেই এটার বেবস্থা করতে পারতেন, আপনার লেখাপড়া ও যোগ্যতা নিয়ে পুরো দেশ সন্দেহে আছে ??? আপনি আপনার চেয়ার এ পুরো বি সি এস ক্যাডার এর উপর আবর্জনা দিয়ে দিলেন ??? বি সি এস এর মতো সম্মানজনক পেশায় পেশাপ করে দিলেন ???

Sami
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১১:৪৪ অপরাহ্ন

Test his blood and you will get the results

Rahman
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১০:৪০ অপরাহ্ন

উপজেলা নির্বাচনে কোন প্রাথীর পক্ষে খিচুরী ভোজের আয়োজন প্রস্তুতি চলছিল। খিচুরীর ভিতরে ডিম-মুরগীও ছিল। বিষয়টি আগে থেকেই গোয়েন্দা সুত্রে জানতে পেরেছিলেন ওই এসি ল্যান্ড। যে কারণে তিনি সেখানে সরেজমিন উপস্থিত হন। পঞ্চাশ টাকা করে চাঁদার ঘটনাটি সাজানো মনে হয়েছে। জুজুর ভয়ে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা বোবা হয়ে গেছে। তারা চোখেও দেখে না। কথা বললেই জিহবা কাটা যেতে পারে পেশী শত্তির হাতে। যে কারণে রিপোর্টটিতে সঠিক তথ্যটির যথেষ্ঠ ঘাটতি রয়েছে বলে মনে হয়েছে ।

মীর আফরোজ জামান
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৮:২৭ অপরাহ্ন

তাকে দ্রুত চাকরিচ্যুত করা উচিত। কতবড় দাম্ভিক অহঙ্কারী হলে এরকম জঘন্যতম কাজ করতে পারে!! তার বিচার করবে কে!! নিশ্চয়ই সে সরকারের লীগ কোটায় চাকুরী পাইছে যার জন্য এমন নিন্দনীয় কাজ করতে জবাবদিহির ভয় করে না

Monir Zaman
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৮:১৩ অপরাহ্ন

আমরা সবাই রাজা আমাদেরই রাজার রাজত্বে...

kazi zahir
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৭:৪২ অপরাহ্ন

এসি লেন্ডকে সেই খিচুড়ি খেতে দেওয়া উচিত, ওনার এত দাপট কিভাবে হয় ?? একজন সরকারি কর্মকর্তার আচরণ এতোটা বাজে হয় কিভাবে বুঝলাম না ?? ব্যাপারটা সত্যি অত্যন্ত দুঃখজনক। এটা তদন্ত করে ঘৃণিত অপরাধীকে কঠিন শাস্তি দেওয়া উচিত। খাবার নষ্ট করা বিশাল অপরাধ ??

Monimul Islam
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৩:২৫ অপরাহ্ন

Only in Bangladesh: তারা মনে করে তারা রাজার রাজা Tārā manē karē tārā rājāra rājā

Nadim Ahammed
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ২:২১ অপরাহ্ন

এরা এখনো মানুষ হতে পারে নি।

Rafiqul Islam
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:৪৯ অপরাহ্ন

সরকারি চাকরিজীবিরা সবাই রাজা,আর আমরা সাধারণ জনগণ তাদের প্রজা!

Azad
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১১:০০ পূর্বাহ্ন

এই এসিলেন্ডকে খাবার দেওয়া উচিৎ নয় যখনই তার খুদা লাগবে তখনই ঐ বিষ্ঠা মিশ্রিত খাবার দেওয়া উচিৎ।

Eusuf Ali Khan
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন

omanush

abcd
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১০:০০ পূর্বাহ্ন

বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া জরুরী। দোষী প্রমাণিত হলে শাস্তি হওয়া উচিত। আয়োজক দোষী হতে পারে আল্লাহর দেয়া রিজিক-এর দোষ কী এখানে?

অনিন্দ্য শাকিল
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৯:৪৫ পূর্বাহ্ন

অমানুষ?

obaidur rahman
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৬:৫৯ পূর্বাহ্ন

"হ্যাডম" দেখালেন আরকি!

Nur Abser
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৬:৫৩ পূর্বাহ্ন

কিন্তু রান্না করা খাবারের মধ্যে আবর্জনা দেয়া মোটেও কাম্য নয়। Very sad news for all of us.

NADIM AHAMMED
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৬:৪৮ পূর্বাহ্ন

They think that they are kings of king.

Nadim Ahammed
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ৬:৪৬ পূর্বাহ্ন

নির্বাচন শেষ হলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। ?????? why not now ?

পাঠক
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১:১৬ পূর্বাহ্ন

এসি লেন্ডকে সেই খিচুড়ি খেতে দেওয়া উচিত, ওনার এত দাপট কিভাবে হয় ?? একজন সরকারি কর্মকর্তার আচরণ এতোটা বাজে হয় কিভাবে বুঝলাম না ?? ব্যাপারটা সত্যি অত্যন্ত দুঃখজনক। এটা তদন্ত করে ঘৃণিত অপরাধীকে কঠিন শাস্তি দেওয়া উচিত। খাবার নষ্ট করা বিশাল অপরাধ ??

ইমরান মাহমুদ
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফিরোজ হোসেন এ হেন আচরণ কোনো মাপকাঠিতেই গ্রহণযোগ্য নয়। তার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের বিভাগীয় মামলা দায়ের করা দরকার।

রবিন
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন

খাওয়া নষ্ট করার অধিকার ওনার নাই তবে খাওয়া বাজেয়াপ্ত করতে পারতেন যদি কেন আইনগত সমস্যা থাকতো।

মিলন আজাদ
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

কয়েকটা গাইড কিনে মুখস্ত করে অযোগ্য লোকগুলো যখন চেয়ার দখল করে বসে তখন এর চাইতে ভাল কিছু আশা করা যায় না। খাবারের মধ্যে ছাগলের বিষ্ঠা! একটা পশুও এমন কাজ করবে না।

বিসমিল্লাহ খান
২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১২:২০ পূর্বাহ্ন

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত

মৌলভীবাজারে জাতীয় পার্টির সম্মেলন সম্পন্ন / ‘আমরা আওয়ামী লীগে নেই, বিএনপিতেও নেই

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status