ঢাকা, ১২ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

দেশ বিদেশ

চট্টগ্রামের পরীর পাহাড় এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ, বড় ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে
২ জুলাই ২০২২, শনিবার

জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, গণপূর্ত বিভাগ ও পরিবেশ অধিদপ্তরের সমন্বয়ে গঠিত একটি পরিদর্শক দল চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালি থানাধীন ‘কোর্ট হিল’ নামে পরিচিত পরীর পাহাড় এলাকা পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তারা জানান, অনুমোদনহীন ভবনের চাপে পরীর পাহাড়ে ধস এবং পাশের বাংলাদেশ ব্যাংকের সীমানা দেয়ালে ফাটল দেখা দিয়েছে। এখানে যেকোনো মুহূর্তে পাহাড় ধসসহ ভূমিকম্পে জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।  বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে সমন্বিত এই বিশেষজ্ঞ দল পরীর পাহাড় এলাকা পরিদর্শন করেন। যুগ্ম জেলা জজ (নেজারত) খায়রুল ইসলাম এ সময় পরিদর্শক দলের সঙ্গে ছিলেন। পরিদর্শক দল এ সময় পরীর পাহাড় এলাকা থেকে অবৈধ স্থাপনাসমূহ দ্রুত সরিয়ে ফেলার তাগিদ দেন। এছাড়া পরীর পাহাড়ের ধস প্রতিরোধে এবং ধসে পড়া স্থানের ক্ষতি প্রশমনে অতিসত্বর রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ ও প্রয়োজনীয় সংস্কার করার জন্য গণপূর্ত বিভাগকে অনুরোধ করেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেন, কোর্ট হিল এলাকায় চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির ঝুঁকিপূর্ণ বহুতল স্থাপনাসমূহের কারণে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এলাকায় যে কোনো সময় মারাত্মক পাহাড় ধসসহ ভূমিকম্পে জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। তাই সেখান থেকে অপরিকল্পিতভাবে তৈরি এসব স্থাপনা সরিয়ে ফেলতে হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা প্রশাসক বলেন, ‘এখানে প্রায় সাড়ে তিনশ’ অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। আমরা এটির তালিকা করেছি। এই সাড়ে তিনশ’ অবৈধ স্থাপনাকে আমরা পর্যায়ক্রমে প্রত্যেকটাকে উচ্ছেদ করে দিবো। যেহেতু এখানে সরকারি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলো রয়েছে এই জায়গায় আমরা কোনো অবৈধ স্থাপনা, অবৈধ বসতি এবং ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনা রাখতে দিবো না।উল্লেখ্য, পরীর পাহাড়ে রয়েছে চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয়। এছাড়া এখানে রয়েছে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ মোট ৭৬টি আদালত। এই পাহাড়ের পাদদেশে রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের চট্টগ্রাম শাখা, সাব-রেজিস্ট্রি অফিস এবং চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অফিস। ১৯৭৭ সালে তৎকালীন জেলা প্রশাসক পরীর পাহাড়ের ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত জমি থেকে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নামে ১২.৯০ শতক জমি লিজ দলিলমূলে বরাদ্দ দেন। এ পর্যন্ত ৫টি বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতি। এখন তারা নতুন করে ভবন নির্মাণ করতে চাইলে বাধা দেয় জেলা প্রশাসন। এনিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলছে।

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

দেশ বিদেশ থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status