সোহেল রানা খোকনের বড় মেয়েকে বরের হাতে তুলে দিলেন

স্টাফ রিপোর্টার | ২০১৫-১০-০৪ ৮:১৩
একদিকে হুইল চেয়ারে বসে আছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা শহীদুল ইসলাম খোকন অন্যদিকে তারই ঘনিষ্ঠ বন্ধু নায়ক, প্রযোজক, পরিচালক সোহেল রানা বন্ধুর জন্য কাঁদছেন। এমন দৃশ্য সেদিন যারাই দেখেছেন তারাই কেঁদেছেন। বন্ধু খোকনের মেয়ের বিয়েতে হাজির হয়েছিলেন সোহেল রানা। কিন্তু প্রাণপ্রিয় বন্ধুতো এখন আর কথা বলতে পারেন না। সেই কষ্টেই সেদিন অঝোরে কাঁদছিলেন সোহেল রানা। যেন বাবা হয়েই সোহেল রানা খোকনের বড় মেয়ে শীষকে বর সাবিত খানের হাতে তুলে দিলেন। আর তাতে যেন এক তৃপ্তির হাসি হাসলেন শহীদুল ইসলাম খোকন। গত শুক্রবার রাতে রাজধানীর মহাখালীর রাওয়া ক্লাবে খোকনের বড় মেয়ে শারমীন ইসলাম শীষের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার
কমনওয়েলথ ব্যাংকে চাকরিরত সাবিত খানের আকদ সম্পন্ন হয়। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হবে আগামী বছর। শীষ ও সাবিতকে দোয়া জানাতে সেদিনে খোকন ও তার স্ত্রী জয়ের আহ্বানে উপস্থিত হয়েছিলেন সোহেল রানা, রুবেল, মতিন রহমান, সুবর্ণা মুস্তাফা, সোহানুর রহমান সোহান, মালেক আফসারী, প্রোডাকশন ম্যানেজার নজরুল, ওমর সানী, সিমলা, ফারদিনসহ আরও কয়েকজন। সোহেল রানা বলেন, আল্লাহ যা করেন মঙ্গলের জন্যই। শীষের আকদ আল্লাহর রহমতে ভালভাবে সম্পন্ন হয়েছে। কিন্তু কষ্ট শুধু একটাই আমার বন্ধুটি তার মনের আবেগ অনুভূতি আর প্রকাশ করতে পারে না। এ যে আমার জন্য কত কষ্টের আমি বোঝাতে পারবো না। দোয়া করি আল্লাহ খোকনকে ভাল রাখুন, সুস্থ রাখুন। শীষ যেন সুখী হয় তার নতুন পথচলায়। উল্লেখ্য, শীষ নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটিতে বিবিএতে অধ্যয়নরত।



DMCA.com Protection Status