ব্যস্ততা বাড়ছে শর্মীমালার

স্টাফ রিপোর্টার | ২০১৫-০৫-১৪ ৯:০২
গাজী রাকায়েত পরিচালিত ‘মৃত্তিকা মায়া’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য (প্রধান চরিত্রে) প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান অভিনেত্রী শর্মীমালা। এরপর থেকে যেন অভিনয়ে তর ব্যস্ততা বেড়েই চলেছে। এরই মধ্যে শুভাশীষ সিনহার রচনা ও ফরিদের পরিচালনায় এনটিভির জন্য নতুন ধারাবাহিক নাটক ‘পাগলা হাওয়ার দিন’-এ অভিনয় করছেন তিনি। এতে তিনি শর্মী নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন। শর্মীমালা বলেন, আমি চেষ্টা করছি একটু ভাল কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখতে। ‘পাগলা হাওয়ার দিন’ অনেক ভাল একটি গল্প। এতে আমার চরিত্রটিও বেশ চ্যালেঞ্জিং। আশা করি নাটকটি প্রচারে
এলে দর্শকদের ভাল লাগবে। এদিকে তার অভিনীত আবু শাহেদ ইমন পরিচালিত ‘জালালের গল্প’ এবং শাহনেওয়াজ কাকলী পরিচালিত ‘নদীজন’ চলচ্চিত্র দুটি চলতি বছরেই মুক্তি পাবে বলে জানান শর্মীমালা। তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ছিল গৌতম ঘোষ পরিচালিত ‘মনের মানুষ’। অন্যদিকে আফসানা মিমি পরিচালিত এটিএন বাংলায় প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটক ‘সাতটি তারার তিমির’-এও অভিনয় করছেন তিনি। এ ছাড়া গিয়াস উদ্দিন সেলিমের নির্দেশনায় তথ্যচিত্র ‘বিউটিফুল বাংলাদেশ’ (নদীবিষয়ক তথ্যচিত্র)-এও অভিনয় করেছেন তিনি। একজন অভিনেত্রী হিসেবেই শর্মীমালা নিজেকে ব্যস্ত রাখতে চান। অভিনয়ের পাশাপাশি শিল্পকলা একাডেমিতে রেস্টুরেন্ট ‘হেঁশেল’ নিয়েও ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন শর্মীমালা। 
ছোটবেলায় খেলাধুলার প্রতি প্রবল আগ্রহ ছিল তার। কিন্তু ২০০৬ সালে ‘প্রাচ্যনাট’-এ যখন অভিনয়ে স্কুলিংয়ের জন্য ভর্তি হন তখন আজাদ আবুল কালামকে দেখে অভিনয়েই অনুপ্রাণিত হয়ে যান বেশি মাত্রায়। তিনি তখন অনুভব করেন যে, অভিনয়ই তার আসল জায়গা। তাই পরবর্তীকালে একমাস পর নাট্যদল‘পালাকার’-এ ভর্তি হন। সেই থেকে পালাকারের সঙ্গেই আছেন তিনি। এখন পর্যন্ত দশটি মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেছেন শর্মীমালা। টিভি নাটকে তার অভিষেক হয় আমিনুর রহমান মুকুলের নির্দেশনায় ‘বকুল ফুল’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। এরপর খুব বেশি নাটকে যে অভিনয় করেছেন তা নয়। শর্মীমালা অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক নাটক গোলাম সোহরাব দোদুলের ‘সাতকাহন’।



DMCA.com Protection Status