বিনোদন

নানান রূপে মোশাররফ করিম

মারুফ কিবরিয়া

১৭ জুন ২০১৬, শুক্রবার, ৪:৩৮ পূর্বাহ্ন

ঈদ এলেই বেশির ভাগ তারকার দম ফেলার ফুরসত মেলে না। ভোর থেকে রাত পর্যন্ত এক শুটিংস্পট থেকে অন্য শুটিংস্পটে দৌড়াদৌড়ি করতে হয়। দর্শকদের জন্য ঈদ উপহার নিয়েই তাদের যত ব্যস্ততা। সে দৌড়ে জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিমের ব্যস্ততা একটু বেশিই বলা চলে। কারণ ঈদে প্রায় প্রতিটি চ্যানেলে একাধিক নাটকে দেখা যায় তাকে। সারা বছর অভিনয় নিয়েই থাকতে হয় মোশাররফ করিমকে। কিন্তু ঈদ এলে কাজের চাপটা আরো জেঁকে বসে। পুরোটাই দৌড়ের ওপর যায় সময়। লাইট-ক্যামেরা আর একশনের মধ্য থেকেই পার হয়ে যায় এক একটি দিন। রোজা শুরু হওয়ার এক-দেড় মাস আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় ঈদ নাটকের ব্যস্ততা। আর কাজ চলে চাঁদ রাত পর্যন্ত। ঈদে বেশ কিছু ধারাবাহিকসহ অসংখ্য খণ্ড নাটক নিয়ে পর্দায় হাজির হচ্ছেন মোশারাফ করিম। দর্শকপ্রিয় এ অভিনেতার নানা চরিত্র নানান রূপ টিভি নাটকে দেখা যাবে বরাবরের মতো। কেমন কাটছে মোশাররফ করিমের ঈদ ব্যস্ততা? তিনি বলেন, ঈদে যেমন নাটক দর্শক দেখে অভ্যস্ত কিংবা আমাকে যেভাবে দেখে আসছেন সেভাবেই প্রস্তুতি চলছে। তবে একটির চেয়ে আরেকটি আলাদা। গল্প, চরিত্র সবকিছুই ভিন্নভাবে সাজানো হয়েছে। আশা করছি ঈদের দর্শকের জন্য বিশেষ কিছু চমক থাকবে। এবার ঈদে যেসব ধারাবাহিকে মোশাররফ করিমকে দেখা যাবে সেগুলো হলো, সাগর জাহানের পরিচালনায় ‘অ্যাভারেজ আসলাম’, সাজিন আহমেদ বাবুর ‘কিড সোলায়মান’ ও মেহেদী হাসানের ‘তলোয়ার’। ‘অ্যাভারেজ আসলাম’ প্রচার হবে বাংলাভিশনে, ‘কিড সোলায়মান’ বৈশাখীতে এবং ‘তলোয়ার’ প্রচার হবে আরটিভিতে। এছাড়া তার মাসুম রেজার রচনা ও সাঈদের নির্দেশনায় ‘চান্স মাস্টার’ ধারাবাহিকটি একটি চ্যানেলে প্রচার হওয়ার কথা রয়েছে। এদিকে ধারাবাহিকের পাশাপাশি ঠিক কতটি খণ্ড নাটক  চ্যানেলগুলোতে প্রচার হবে সেটা মোশাররফ করিম নিজেই জানেন না। কারণ গত কয়েক মাস ধরে তিনি শুধু ঈদের খণ্ড নাটকের কাজই করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ধারাবাহিকের কথাগুলো তো বললাম। কিন্তু  খণ্ড নাটকের আসলে কোনো হিসাব নেই। কারণ টানা অনেক নাটকেই কাজ করেছি। তবে নাটকগুলোর গল্প ভালো দর্শক দেখে উপভোগ করবেন বলে আশা করছি। গত কোরবানির ঈদে মোশাররফ করিম অভিনীত আলোচিত সিক্যুয়ালের নাটক ‘সিকান্দার বক্স’ শেষ হয়েছে। মূলত সাগর জাহানের পরিচালনায় ওই নাটকটি দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিদেশেও ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে। দর্শকপ্রিয় এ নাটকটি আর পর্দায় দেখা যাবে না। অবশ্য নির্মাতা ঘোষণা দিয়েছিলেন নতুন আরেকটি সিরিজ শুরু হবে মোশাররফ করিমকে নিয়ে। যেখানে থাকবে আরও চমক। আর সেটা হয়েছেও। নতুন সিরিজটির নাম ‘অ্যাভারেজ আসলাম’। সিকান্দার বক্সের মতোই এখানে নাম ভূমিকায় পাওয়া যাবে মোশাররফ করিমকে। তবে  ‘অ্যাভারেজ আসলাম’কে সিকান্দার বক্সের বিকল্প ভাবতে মোটেই নারাজ মোশাররফ করিম। তিনি বলেন, একটি নাটক কখনোই আরেকটি নাটকের বিকল্প হতে পারে না। এটি নতুন একটি নাটক। ‘সিকান্দার বক্স’ একটা আলাদা ধাঁচের আলাদা পরিচয় বহন করে। ঠিক অ্যাভারেজ আসলাম’ও দর্শকের কাছে অন্য পরিচয় বহন করবে। টিভি নাটকে দীর্ঘ পথচলা মোশাররফ করিমের। এক ক্যারিয়ারে অসংখ্য নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। মঞ্চ থেকে উঠে আসা এ অভিনেতা নাটকের আদ্যোপান্ত সবই জানেন। নাটকের এ শিল্পটি নিয়ে এখনকার সময়ে নানা তর্ক-বিতর্ক রয়েছে। নাটকে ভালো গল্প নেই বলে অনেক দর্শকেরই অভিযোগ এখন। এ বিষয়ে কি মনে করেন মোশাররফ করিম? তিনি বলেন, নাটকের মানদণ্ড নিয়ে সেভাবে কিছু বলা যাবে না। ভালো খারাপ সব মিলিয়েই তো চলছে। তবে হ্যাঁ, নাটকের বাজেট অনেক কম। এটা বড় একটা প্রতিবন্ধকতা। বাজেট বাড়লে নাটকের মান অচিরেই ভালো হবে বলে আমি মনে করি। ঈদের নাটক ছাড়াও, ‘এই কূলে আমি আর ওই কূলে তুমি’, ‘লড়াই’, ‘চলিতিছে সার্কাস’ নামের প্রচার চলতি ধারাবাহিকগুলোতে অভিনয় করছেন মোশাররফ করিম। ধারাবাহিক নাটকের ধারাবাহিকতা থাকছে না বলে একটা অভিযোগ প্রায়ই উঠে দর্শকের কাছ থেকে। যে কারণে দর্শক দেশীয় চ্যানেল বিমুখ হয়ে পড়ছেন এমনটাও শোনা যায়। এ বিষয়ে মোশাররফ করিম বলেন, এখানেও ওই একই কথা। বাজেট প্রতিবন্ধকতা। ভালো বাজেট না থাকায় ভালো গল্প পাওয়া যায় না। এসব সমস্যার একমাত্র সমাধান চ্যানেলগুলোই দিতে পারে। সব চ্যানেল যদি বিষয়টি নিয়ে ভাবে তাহলে নাটকে অচিরেই ভালো কিছু আশা করা যাবে। এবার ভিন্ন প্রসঙ্গে আসা যাক। অভিনয়ের এ প্রাণ পুুরুষ মোশাররফ করিমকে নিয়ে দর্শক-ভক্তের ব্যাপক আগ্রহ। রাস্তায় বের হলেই ভক্তদের চিৎকার ‘ওই যে মোশাররফ করিম যাচ্ছেন’। শুধু তাই নয়, অনেকে জরুরি কাজের সময় এসে ছবি তোলার জন্য ভিড় করেন। বিষয়টি খানিকটা বিরক্তিকর হলেও যাদের ভালোবাসায় আজ তিনি মোশাররফ করিম সেই দর্শককে তো আর ফেলে দিতে পারেন না। এ প্রসঙ্গে মোশাররফ করিম বলেন, ভক্তরা এসে ছবি তুলবে হাতে সময় থাকলে কথা বলবে এটা খুব স্বাভাবিক। কিন্তু অনেকে জরুরি মুহূর্ত বুঝতে চান না। কাজের সময়টা বুঝতে নারাজ। ছবি তুলেই ছাড়বে। কিছু বলতে পারি না। কারণ তারা আমার ভক্ত। আজ তাদের কারণেই আমি মোশাররফ করিম। তাদের ভালোবাসার চেয়ে জীবনে আর কোনো পুরস্কার নেই। আমি তাদের খুব ভালোবাসি।

 
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status