বাংলারজমিন

সীতাকুণ্ডে দলিল লেখককে পেটালেন দুই কাউন্সিলর

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে উপজেলার পৌরসভার আমিরাবাদ এলাকার খোকন নাথ চৌধুরী ( ৪৬) নামে এক দলিল লেখক ও সার্ভেয়ারকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আহত দলিল লেখক খোকন নাথ বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায় , গত ২১শে জানুয়ারি শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বাবুল অধিকারী ও মৃদৃল অধিকারীর আমন্ত্রণে তাদের জায়গা পরিমাপ করতে যান খোকন নাথ চৌধুরী। পরিমাপ শেষে সীতাকুণ্ড পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হারাধন চৌধুরী বাবু ও ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিদারুল আলম অ্যাপোলো তাকে অতর্কিতভাবে পিটিয়ে আহত করেন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত দলিল লেখক জানান, গত শুক্রবার সকাল ১১টার সময় বাবুল অধিকারী ও মৃদৃল অধিকারীর আমন্ত্রণে তাদের বাড়ি পরিমাপ করতে গেলে, পরিমাপ শেষে কাউন্সিলর হারাধন বাবু আমাকে বলেন, তুই পৌরসভা টাকা দিসনি কেন, তখন আমি বললাম- দাদা আমি দুদিন পরে টাকা দিয়া দেব। কিন্তু ১নং বিবাদী হারাধন বাবু ক্ষিপ্ত হয়ে বলে তুই টাকা এখন দিবি, তখন আমি বললাম- দাদা আমি এখানে জায়গা পরিমাপ করতে এসেছি আপনি আমাকে অপমান করছেন। এরপর তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে এলোপাতাড়ি লাথি ও কিল ঘুষি মেরে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। তার সাথে ২নং বিবাদী ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিদারুল আলম অ্যাপোলো যোগ দিয়ে আমাকে গালাগালি করে কিলঘুষি ও লাথি মারতে থাকে এবং আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন আমাকে উদ্ধার করে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

অভিযুক্ত কাউন্সিলর হারাধন বাবু ও কাউন্সিলর দিদারুল আলম অ্যাপোলো বলেন, খোকন নাথকে কোন মারধর করা হয়নি। এগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ। খোকনের বিরুদ্ধে পৌরসভাতে প্রবাসী করিম উল্লা ইতিপূর্বে অভিযোগ করেছেন। খোকন তার কাছ থেকেই জায়গা নামজারি করে দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়। কিন্তু নামজারি না করে দেয়ায় পৌরসভায় অভিযোগের করেন প্রবাসী। কয়েকবার পৌরসভায় বৈঠক ও হয়েছিল। কিন্তু সেই টাকা না দিয়ে ঘুরাঘুরি করে এসেছিল। তার প্রেক্ষিতে থাকে শুধু পরিমাপ করতে গিয়ে দেখে বলেছি, টাকাগুলো দিচ্ছে না কেন।
লিখিত অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ হারুন মানবজমিনকে বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com