বাংলারজমিন

মির্জাপুরে নয়া আতঙ্ক কিশোর গ্যাং

মো. জোবায়ের হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) থেকে

২৪ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার, ১১:০১ পূর্বাহ্ন

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে হাফ ডজন মোটরসাইকেলযোগে একদল কিশোরকে দেশীয় অস্ত্র হাতে সন্ত্রাসী কায়দায় মহড়া দিতে দেখা গেছে। হঠাৎ এমন ফিল্মি স্টাইলের অস্ত্র মহড়ায় জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। তবে তারা কারা বা কী উদ্দেশ্যে এই অস্ত্র মহড়া তা জানা যায়নি।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে মির্জাপুর বাইপাস, মির্জাপুর পৌর শহরের ইউনিয়ন পাড়া, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম ও বাজার এলাকায় এই মহড়ার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যার দিকে মির্জাপুর পৌর সদরের শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মাঠ এলাকায় ১৬-২০ বছর বয়সী অন্ততপক্ষে ২০-৩০ জনের একটি দলকে অবস্থান নিতে দেখা যায়। সেসময় কোন একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে তাদেরকে মারমুখী ভূমিকায় দেখতে পান স্থানীয়রা। এরপর সন্ধ্যা থেকে শুরু রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত দু’বার হাফ ডজন মোটর সাইকেলযোগে ১৪-১৮ জনের একটি দলকে দেশীয় অস্ত্রসহ মহড়া দিতে দেখা যায় মির্জাপুর পৌর সদরের ভিতরেই। দু’টো ঘটনার হোতা একই গ্রুপ নাকি ভিন্ন দুটি গ্রুপের সে সম্পর্কে কোন ধারণা দিতে পারেননি স্থানীয়রা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, রাত সাড়ে আটটার দিকে হঠাৎ একদল তরুনকে বেশকিছু মোটরসাইকেল নিয়ে ইউনিয়ন পাড়া এলাকায় মহড়া দিতে দেখা যায়। তারা সবাই মির্জাপুর থানার দক্ষিণাংশ নিয়ে ইউনিয়ন পাড়া এলাকায় প্রবেশ করে। তারা খুব দ্রুত ও উচ্চ শব্দ করে মোটর সাইকেল চালাচ্ছিল। সেসময় মোটর সাইকেলের পেছনে বসা প্রত্যেকের কাছে রামদা, লোহার রড, সাইকেলের গিয়ার গার্ড দিয়ে বানানো বিশেষ ধরনের ধারালো অস্ত্র, লাঠি ইত্যাদি দেখা যায়। তবে মহড়া খুব দ্রুত ও রাতে হওয়ায় তাদের কাউকে চিনতে পারেননি তিনি।

প্রসঙ্গত, মির্জাপুরে দীর্ঘদিন ধরেই নীরব আলোচনায় ছিল কিশোর গ্যাং। সর্বশেষ গত দুর্গাপূজা চলাকালীন একটি কিশোর গ্রুপ কর্তৃক পূজা ম-পের প্যা-েলের কাপড় ছেড়ার ঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনায় পুলিশ বেশ কয়েকজনকে আটক করে মামলাও দায়ের করে। এর আগে গত বছরের মার্চে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের শুভুল্যা গ্রামে কিশোর গ্যাং নিয়ে দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

এছাড়া খোঁজ নিয়ে ও বিভিন্নজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দিনকে দিন উপজেলা জুড়ে কিশোর গ্যাংয়ের আয়তন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যাদের অধিকাংশ মাদক সেবন, বিক্রিসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকা-ের সাথে জড়িত হচ্ছে। তবে এসব বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ নিয়ে অধিকাংশের থানা-পুলিশের দ্বারস্থ না হওয়ায় এ সমস্যা ততটা গুরুত্ব পাচ্ছে না।

সম্প্রতি মির্জাপুর থানায় যোগদানকৃত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলম চাঁদ বলেন, ‘‘একদল কিশোরের উশৃঙ্খল মহড়ার কথা শুনেছি। তাদেরকে খোঁজা হচ্ছে। মির্জাপুরে কোন কিশোর গ্যাং বরদাস্ত করবো না।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com