বাংলারজমিন

কুয়াকাটায় পর্যটকদের ভিড়, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

২২ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার, ৮:৩৯ অপরাহ্ন

পর্যটনকেন্দ্র কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ভিড় জমেছে পর্যটকের। সাপ্তাহিক ছুটির দিন উপলক্ষে গতকাল সৈকতে এ সকল পর্যটকের আগমন ঘটে। আগত পর্যটকরা সমুদ্রে সাঁতার কাটাসহ প্রিয়জনদের সঙ্গে আনন্দ উন্মাদনায় মেতেছেন। বাড়তি পর্যটকদের আনাগোনায় বুকিং রয়েছে অধিকাংশ হোটেল-মোটেল। তবে এ সকল পর্যটকদের মানতে দেখা যায়নি স্বাস্থ্যবিধি। অনেকেই ব্যবহার করছে না মাস্ক। অনেকেই মানছে না সামাজিক দূরত্ব। তবে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট অমিক্রনের সংক্রমণ ঠেকাতে সৈকতে ট্যুরিষ্ট পুলিশের পক্ষ থেকে বারবার মাইকিং করতে দেখা গেছে।
স্থানীয় ও পর্যটক ব্যবসায়ীরা জানান, বরিশাল-কুয়াকাটা সড়কের লেবুখালী পয়েন্টে ‘পায়রা সেতু’ চালু হওয়ায় পর্যটক বেড়েছে। তবে সাপ্তাহিক ছুটি শুক্রবার ও শনিবারে ভ্রমণ পিপাসুরা এখানে ছুটে আসেন। উপভোগ করছেন সাগরের সৌন্দর্য, একই স্থান থেকে সূর্যোদয়-সূর্যাস্তের অপরূপ দৃশ্য। সৈকতজুড়ে পর্যটকের ঢল। শামুক-ঝিনুকের দোকানসহ বিপনি বিতানগুলোতে রয়েছে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়।
তবে করোনা পরিস্থিতিতে গত দেড় বছর কুয়াকাটায় হোটেল ব্যবসায় মন্দা পরিস্থিতি ছিল। এ সময় প্রত্যেকটি হোটেলের মালিকদের লোকসান গুনতে হয়েছে। ধারকর্জ করে কর্মচারীদের বেতন দিতে হয়েছে বলে একাধিক আবাসিক হোটেল ব্যবসায়ী বলেছেন। সৈকত লাগোয়া আচার ও ঝিনুক ব্যবসায়ী খাইরুল ইসলাম সংগ্রাম জানান, বেশি পর্যটক আসায় তাদের বিক্রিও বেড়েছে। তবে সাপ্তাহিক ছুটি শুক্র ও শনিবার পর্যটকের সংখ্যা বেশি থাকে।
আবাসিক হোটেল ‘সমুদ্রবাড়ি রিসোর্টের’ পরিচালক জহিরুল ইসলাম মিরণ বলেন, তাদের হোটেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই রুম বুকিং দেয়া হচ্ছে।
কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ জোনের সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবদুল খালেক বলেন, অনেক পর্যটক আসায় পর্যটন পুলিশের কয়েকটি দল মাঠে কাজ করছে। পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মানা, মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করতে মাইকিং করা হচ্ছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com