বাংলারজমিন

সিলেট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

সিলেটে জিম্মি কাকলী সেন্টারের ব্যবসায়ীরা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে

১৮ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার, ৮:৫৫ অপরাহ্ন

সিলেটের জিন্দাবাজারস্থ কাকলী শপিং সেন্টার জোরপূর্বক দখল এবং মালিক-ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, নানাভাবে হুমকি ও হয়রানি করছেন ফজলুল হক মুর্শেদ ও তার বাহিনীর সদস্যরা। পাশাপাশি স্বাক্ষর জাল করে মার্কেটের দোকানকোঠা ভাড়া ও পজিশন বিক্রয় করছেন তিনি। গতকাল সিলেট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন কাকলী শপিং সেন্টারে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মুজিবুল হক জাবেদ। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘ফজলুল হক মুর্শেদ ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর জাল করে দোকানকোঠা ভাড়া ও পজিশন বিক্রি করছে। এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে মামলাটি সিআইডিতে তদন্তাধীন।’ মো. মুজিবুল হক জাবেদ আরও বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে প্রমাণ পেয়েছি, ফজলুল হক মুর্শেদ গত বছরের ২৬শে আগস্ট নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে আমার চাচার উত্তরাধিকারীগণ ও আমাদের ৩ ভাইয়ের স্বাক্ষর জাল করে একটি ভুয়া ও মিথ্যা আমমোক্তারনামা তৈরি করেছে; যার বিরুদ্ধ আদালতে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।’ মুর্শেদ কাকলী শপিং সেন্টারের ব্যবসায়ী ও দোকান মালিকদের সঙ্গে বিভিন্ন সময় দুর্ব্যবহার ও নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। ভুক্তোভোগী ব্যবসায়ীরা তার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় একাধিক জিডি করেছেন। ফজলুল হক মুর্শেদ কাকলী শপিং সেন্টারের ১১ তলার সিঁড়িকোঠায় নেশাদ্রব্য সেবনের আখড়া তৈরি ও মার্কেটে আগুন লাগিয়েছে বলে অভিযোগ জাবেদের। তিনি বলেন, ‘গত ৩১শে ডিসেম্বর সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও সে রাত দেড়টা পর্যন্ত মার্কেটের ১১ তলার সিঁড়িকোঠায় মাদকাসক্ত সন্ত্রাসীদের নিয়ে থার্টিফার্স্ট পালন করে এবং নেশাদ্রব্য সেবন করে। ফলে ভবনে আগুন লেগে যায়। সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস আগুন নেভায় এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নেশাদ্রব্য সেবনের আলামত পায়।’ ‘পরদিন সে তার বাহিনী নিয়ে মার্কেটের সামনে এসে মহড়া দেয় এবং যে সব ব্যবসায়ী তাদেরকে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যেতে দেখেছে, সে সব ব্যবসায়ীদেরকে প্রাণে মারার হুমকি প্রদান করে।’ এ বিষয়ে হুমকিপ্রাপ্ত ব্যবসায়ীরা কোতোয়ালি মডেল থানায় জিডি করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে কাকলী শপিং সেন্টারের চেয়ারম্যান মো. এমদাদুল হক উবেদ, ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. জাকারিয়া ইমরুল, সেক্রেটারি শিপন খান, সদস্য ফয়সাল মাহমুদ ও মাহফুজুল হক উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com