বিনোদন

আলাপন

চকলেট হিরোর চেয়ে অভিনেতা হতে আমি বেশি আগ্রহী -আনিসুর রহমান মিলন

মুজাহিদ সামিউল্লাহ

১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার, ১:০৩ অপরাহ্ন

টেলিভিশন ও রূপালী পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। এই অভিনেতা তার অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন মঞ্চ নাটক দিয়ে। মঞ্চের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে ধীরে ধীরে নিজের অভিনয় প্রতিভাকে মেলে ধরেছেন টেলিভিশন ও রূপালী পর্দায়। সালাহউদ্দিন লাভলুর জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘রঙের মানুষ’-এ তার অভিনয় প্রশংসিত হয়। সেই সময় অভিনয় বোদ্ধাদের নজর কাড়েন এই অভিনেতা। বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে? মিলন বললেন, ‘বকুলপুর সিজন-টু’ ধারাবাহিকে অভিনয় করেছি। এতে টেলিভিশন দর্শকরা দারুণ পছন্দ করছেন আমার অভিনয়। ‘উগান্ডাপুর’ নাটকের কাজ শেষ করলাম।

এর বাইরে দুইটা ওয়েব সিরিজের কাজ শেষ করেছি। এই মুহূর্তে নামটা মনে করতে পারছি না। দুটি ওয়েব সিরিজের নির্মাতা হলেন আল হাজেন ও পারভেজ আমিন। রূপালী পর্দায় আপনার ব্যস্ততা কেমন? মিলন বলেন, আগামী ১০ই ফেব্রুয়ারি ‘মায়া দ্য লাভ সিনেমা’র শুটিং শুরু করবো। আমার ও বুবলীর অংশের শুটিংয়ে একসঙ্গে অংশ নিবো। সিনেমার পরিচালক হলেন জসিম উদ্দিন জাকির। অন্য শিল্পীরা হলেন সাইমন ও রোশান। আশা রাখি, দর্শকরা পর্দায় ভালো একটা কাজ উপভোগ করবেন।

চিত্র পরিচালক সাদেক সিদ্দিকীর নতুন একটি সিনেমায় আমার অভিনয়ের প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীতে কাজ শুরু করবো। ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ মিলন রূপালী পর্দায় ঠিক যেন ঝলসে উঠছেন না? আপনি কি মনে করেন? মিলনের উত্তর- অতীতে দেশীয় সিনেমায় বছরে বেশকিছু নতুন সিনেমা তৈরি হতো। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপট ঠিক উল্টো। এর বেশ কিছু কারণ রয়েছে। সিনেমা হলের স্বল্পতা, জীবনধর্মী গল্পের অভাব, স্যাটেলাইটের দৌরাত্ম্য, হলের পরিবেশ, এই শিল্পে প্রযোজকদের অর্থলগ্নীর অনিচ্ছা-সবমিলিয়ে কেমন জানি অস্থির সময়। গত দুই বছর যে বিষয়টা সারা বিনোদন দুনিয়াকে দুশ্চিন্তার মধ্যে ফেলে দিয়েছে সেটা করোনা। রূপালী পর্দায় আমার যে ক’টা সিনেমা রিলিজ হয়েছে, প্রশংসিত হয়েছে, পরিচালক তাদের নতুন নতুন প্রজেক্টে আমাকে নিচ্ছেন। চকলেট হিরোর চেয়ে পর্দায় অভিনেতা হতে বেশি আগ্রহী আমি।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com