বাংলারজমিন

রামগঞ্জে শিশু নিখোঁজের ১০ ঘণ্টা পর লাশ উদ্ধার করলো পুলিশ

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি

১৬ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার, ৭:২৬ অপরাহ্ন

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নিখোঁজের ১০ ঘণ্টা পর ড্রামের ভেতর থেকে আবু বক্কর ছিদ্দিক নামের ৮ মাসের এক শিশু সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছেন রামগঞ্জ থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৪ নং ইছাপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের আকার খোনার বাড়িতে। শিশু ছিদ্দিক একই বাড়ির মো. ঈমাম হোসেনের একমাত্র ছেলে। এ ঘটনায় থানা পুলিশ হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের আপন চাচী নুশরাত জাহান ইমাকে গ্রেপ্তার করেছে। সংবাদ পেয়ে রামগঞ্জ থানার এসআই আবুল কালাম  শুক্রবার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর জেলা হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। শিশু ছিদ্দিকের পিতা নিজ ভাইয়ের স্ত্রী নুশরাত জাহান ইমাকে আসামি করে রামগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
গত ৩ বছর আগে ইছাপুর ইউপির দক্ষিণ শ্রীরামপুর গ্রামের হাতুরিয়া বাড়ির মৃত বাচ্চু মিয়ার মেয়ে নুশরাত জাহান ইমার সঙ্গে ইউপি’র শিবপুর গ্রামের খোনার বাড়ির লেদু মিয়ার ছেলে জহিরের সঙ্গে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ইমার কোনো সন্তান না হওয়ায় ছোট দেবর ঈমামের স্ত্রী খালেদার সঙ্গে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। এক পর্যায়ে গত মাসে খালেদার সন্তান ছিদ্দিক জন্মের পর থেকেই দুই জালের মধ্যে প্রতিহিংসা আরও বৃদ্ধি পায়। পরে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ছিদ্দিক নিখোঁজের ১০ ঘণ্টা পর রাত ৯টায় ঘরের ড্রামের ভেতর থেকে শিশু ছিদ্দিকের লাশের সন্ধান পাওয়া যায়। এব্যাপারে শিশু ছিদ্দিকের মা আফরোজা আক্তার খালেদা জানান, আমার সঙ্গে পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে আমার দেবর জহিরের স্ত্রী ইমা আমার একমাত্র সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে। ধান শুকানোর জন্য ঘরের বাইরে থাকার সুযোগে আমার ছেলেকে হত্যা করে ড্রামের ভেতর লাশ গুম করে রেখেছে সে।
অভিযুক্ত ইমার ভাই জাহিদ হোসেন এবং মা জাহানারা বেগম জানান, আমার মেয়ের বিয়ে হয়েছে ৩ বছর কিন্তু ৩ দিনও সুখে থাকতে পারেনি। প্রায় সময় মিথ্যা অভিযোগ এনে মেয়েকে নানাভাবে নির্যাতন করা হতো। ঘটনার দিনও আমি তাদের বাড়িতে গেলে মেয়ে ও আমাকে বেদম শারীরিক নির্যাতন ও মারধর করেছে।
রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এমদাদ হোসেন জানান, শিশুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। খুব শিগগিরই ইমাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com