হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বিবৃতি একপেশে, অগ্রহণযোগ্য, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (৬ দিন আগে) জানুয়ারি ১৪, ২০২২, শুক্রবার, ৪:৫৬ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১:০৮ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের সর্বশেষ প্রতিবেদনকে ‘একপেশে, অগ্রহণযোগ্য ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, এটি পড়ে মনে হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে  হয়তো কেউ ড্রাফট করে দিয়েছে এবং তারা তা পরিমার্জন করে প্রকাশ করেছে মাত্র, এর বেশি কিছু নয়। এ ধরনের সংগঠন থাকা অবশ্যই ভালো, কিন্তু বিভিন্ন দেশের ব্যক্তিবিশেষের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে ব্যক্তিবিশেষের স্বার্থ রক্ষা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নিজেদেরকে ব্যবহার করা, বিবৃতি দেয়া সংগঠনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে, এক্ষেত্রে সেটিই ঘটেছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।  তথ্যমন্ত্রী বলেন, হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বিবৃতিটি কোনোভাবেই বাস্তবসম্মত নয়। এটি একপেশে ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। সেখানে উল্লিখিত নির্দিষ্ট দু'তিনটি বিষয় ছাড়া মানবাধিকার নিয়ে তাদের আর কিছু জানা আছে বলে মনে হয় না। একজন লেখক ও রেইন ট্রি হোটেল নিয়ে কিছু ব্যক্তিবিশেষ বিভিন্ন সভা-সমিতিতে প্রায়ই যা বলে থাকেন, বিবৃতিতে সেগুলোই আছে। কয়েকদিন আগে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞরা গুয়ান্তানামো বে'র বন্দী নির্যাতন কারাগার বন্ধের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি যে আহবান জানিয়েছে এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ যে দেশে বসে পরিচালিত হয়, অর্থাৎ সেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই যে মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন হয়, সেসবের দিকে নজর দিতে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতি অনুরোধ জানান ড. হাছান।


সরকার ওমিক্রন প্রতিরোধের নামে বিএনপি দমনে বেশি সচেষ্ট' এ প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ওমিক্রন প্রতিরোধে শুধু বিএনপির সমাবেশ বন্ধ রাখতে বলা হয়নি, আওয়ামী লীগসহ সকল রাজনৈতিক দলের জন্যই তা প্রযোজ্য। এখন বিএনপি ওমিক্রন প্রতিরোধ না করে ওমিক্রন বেশি ছড়াতে চায় কি না, সেটিই প্রশ্ন। এর আগে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা, হত্যাকারীদের বিচারের পথ রুদ্ধ করা এবং বিনাবিচারে শতশত সামরিক সদস্যদের ফাঁসি এদেশে সবচেয়ে বড় মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা। কমিশনের রাঙ্গুনিয়া শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ কে এম মুছার সভাপতিত্বে সম্মেলনে উপজেলা চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার উদ্বোধক ও রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা মেয়র আলহাজ্ব মো: শাহজাহান শিকদার বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

shamsuirrahman

২০২২-০১-১৬ ২০:৩৩:১৩

পেশে পেশে করতে করতে নএকদিন ফেশে যাবে।

Md Shahidul Islam

২০২২-০১-১৪ ২১:২৫:২৪

Human rights watch এর প্রতিবেদন একপেশে নয় বরং বাংলাদেশের যে চিত্র তার কিঞ্চিৎ উঠে এসেছে এ প্রতিবেদনে। প্রকৃত অবস্থা আরো ভয়াবহ, আরো খারাপ। এটা বুঝার জন্য Doctorate degree করার প্রয়োজন নেই।

Salim Khan

২০২২-০১-১৪ ০৬:৩০:২৭

Human rights watch এর প্রতিবেদন একপেশে নয় বরং বাংলাদেশের যে চিত্র তার কিঞ্চিৎ উঠে এসেছে এ প্রতিবেদনে। প্রকৃত অবস্থা আরো ভয়াবহ, আরো খারাপ। জনগনের কি অধিকার বাকী রয়েছে? জনগন জিম্মি হয়ে আছে। এটা বুঝার জন্য Doctorate degree করার প্রয়োজন নেই। একটা অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিয়ে দেখুন। তাতেই বুঝা যাবে, কয়জনের জামানত থাকে?

Mir Ahmed

২০২২-০১-১৪ ০৬:১৯:০৯

আপনার কাছতো কত কিছুই মনে হবে একপেশে দুই পেশে তিনপেশে এভাবে পেশে পেশে

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ভারতের কাছে বড় লজ্জা !

২০ জানুয়ারি ২০২২

শনাক্তের হার ২৬.৩৭

নতুন শনাক্ত ১০৮৮৮, আরও ৪ জনের মৃত্যু

২০ জানুয়ারি ২০২২



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



ফেনী আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

বিএনপি-জামায়াত ১০টি, আওয়ামী লীগ ৪টিতে জয়ী

DMCA.com Protection Status