হাফিজ সাইদের বাড়ির বাইরে বিস্ফোরণ, ৪ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিল পাক আদালত

মানবজমিন ডিজিটাল

অনলাইন (১ সপ্তাহ আগে) জানুয়ারি ১৩, ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩:৩২ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৯ অপরাহ্ন

মুম্বাই হামলার মাস্টারমাইন্ড এবং জামাদ-উদ-দাওয়া প্রধান হাফিজ সাইদের বাড়ির বাইরে একটি শক্তিশালী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ ঘটানোর পেছনে সক্রিয় ভূমিকা থাকার জন্য চারজনকে মৃত্যুদণ্ড দিল পাকিস্তানের বিশেষ সন্ত্রাসবিরোধী আদালত। এই ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল।
উচ্চ-নিরাপত্তায় ঘেরা কোট লাখপত কারাগারে ইন-ক্যামেরা ট্রায়াল চলাকালীন আয়েশা বিবি নামে একজন মহিলাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন সন্ত্রাসবিরোধী আদালতের বিচারক আরশাদ হুসেন ভুট্ট ।

২০২১ সালের ২৩ জুন তারিখে সাইদের জওহর শহরের বাসভবনের বাইরে বিস্ফোরণে তিনজন নিহত এবং২০ জনেরও বেশি আহত হয়েছিল। এছাড়াও এলাকার বেশ কয়েকটি বাড়ি, দোকান এবং যানবাহনের ক্ষতি হয়েছিল। "সন্ত্রাস বিরোধী আদালত (এটিসি) দেশে নিষিদ্ধ তেহেরিক ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি)- এর সদস্য পিটার পল ডেভিড, সাজ্জাদ শাহ এবং জিয়াউল্লাহকে নয়টি মামলায় মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে৷ অন্য একজন সন্দেহভাজন আয়েশা বিবিকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।এর আগেও হাফিজের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

রাষ্ট্রসংঘের ঘোষিত আন্তর্জাতিক জঙ্গি হাফিজ সইদের মাথার দাম ১০ মিলিয়ন ডলার ধার্য করেছে আমেরিকা। সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অপরাধে ৩৫ বছরের জেল হয়েছে নিষিদ্ধ সংগঠন ‘জামাদ-উদ-দাওয়া’ প্রধানের।
নিজেদের সন্ত্রাসবিরোধী প্রমাণ করতে পাকিস্তান বারবার দাবি করেছে, হাফিজ জেলবন্দী। কিন্তু তা যে বাস্তব নয় তা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। এবারও এক গ্লোবাল জেহাদিকে হত্যার চেষ্টার ‘অপরাধে’ চার জনকে ফাঁসির হুকুম দেওয়া হল।

অপরাধীরা নিজেদের দোষ বারবার অস্বীকার করেছে যদিও প্রসিকিউশন সন্দেহভাজনদের বিরুদ্ধে ৫৬ জন সাক্ষী উপস্থাপন করেছিল। গাড়ির মধ্যে বিস্ফোরক রাখা ছিল বলে জানা গেছে। গাড়িটি ছিল পিটার পল ডেভিডের এবং অন্য তিনজন - সাজ্জাদ শাহ, জিয়াউল্লাহ এবং আয়েশা - তার সঙ্গে ছিলেন। পাঞ্জাব প্রদেশের সরকার দাবি করেছে যে বিস্ফোরণে ১০ জন পাকিস্তানি সন্দেহভাজন জড়িত ছিল , তবে তাদের মধ্যে মাত্র পাঁচজনকে আসামি সাব্যস্ত করা হয়েছে মামলায়।নিষিদ্ধ জামাত-উদ-দাওয়াহ (JUD) এর প্রধান সাইদ সন্ত্রাসে অর্থায়নের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার জন্য লাহোরের কোট লাখপাট জেলে সাজা খেটেছেন।

বিস্ফোরণের সময় সাঈদ তার বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন বলে অসমর্থিত সূত্রে খবর। সাইদ-এর নেতৃত্বাধীন JuD হল লস্কর-ই-তৈবা (LeT) এর শাখা সংগঠন যারা ২০০৮ সালের মুম্বাই হামলার নেপথ্যে ছিল, হামলায় ছয় আমেরিকান সহ ১৬৬ জনকে হত্যা করা হয়েছিল ।মার্কিন ট্রেজারি বিভাগ সাইদকে বৈশ্বিক সন্ত্রাসী হিসেবে মনোনীত করেছে। ২০০৮সালের ডিসেম্বরে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ১২৬৭ এর অধীনে সাইদকে সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করে। গ্লোবাল টেরর ফাইন্যান্সিং ওয়াচডগ ফাইন্যান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ) পাকিস্তানকে দেশে অবাধে বিচরণকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ক্রমাগত চাপ দিয়ে চলেছে ।

সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ভারতের কাছে বড় লজ্জা !

২০ জানুয়ারি ২০২২

শনাক্তের হার ২৬.৩৭

নতুন শনাক্ত ১০৮৮৮, আরও ৪ জনের মৃত্যু

২০ জানুয়ারি ২০২২



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



ফেনী আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

বিএনপি-জামায়াত ১০টি, আওয়ামী লীগ ৪টিতে জয়ী

DMCA.com Protection Status