বাংলারজমিন

‘১৪৪ ধারার দিন শেষ হয়ে গেছে’

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে

১৩ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৮:২১ অপরাহ্ন

বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, সরকার এখন নিয়মিত বিএনপি’র সভা- সমাবেশে ১৪৪ ধারা জারি করছে। কিন্তু এই ১৪৪ ধারার দিন শেষ হয়ে গেছে। দফায় দফায় অনুমতি নিয়ে জনসভার দিন শেষ হয়ে গেছে। দেশের মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আমীর খসরু বলেন, দক্ষিণ জেলার আজকের সমাবেশ বাঁধ ভেঙেছে সরকার পতন আন্দোলনের। কিছুতেই জনগণকে আটকে রাখা যাবে না। আন্দোলন বন্ধ হবে না, স্বৈরাচারী সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলতে থাকবে। দেশের মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ। হাজার হাজার মানুষের এই সমাবেশ সরকার পতন আন্দোলনের ফিল্ডওয়ার্ক। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আজ একতাবদ্ধ হয়েছে। আন্দোলনের যে জোয়ার শুরু হয়েছে, আগামীদিনে তারা সেই ষড়যন্ত্রকারীদের ধ্বংস করে দেবে। বাংলাদেশের মানুষ নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে, যারা ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। যারা আমাদের সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নেয়ার জন্য আমাদের সভা-সমাবেশে বাধা দিচ্ছে, তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এই যে উত্তাল আন্দোলন শুরু হয়েছে, কোনো শক্তি একে রুখতে পারবে না। যারা বাংলাদেশের আত্মাকে বিক্রি করে দিয়েছে তাদের মূল্য দিতে হবে আগামীদিনে। সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন ফারুক বলেন, বীর চট্টলার মানুষ বিগত বারটি বছর সরকারের অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করে যাচ্ছেন। কিন্তু এই বার বছরে বিএনপি’র একটি লোকও অন্যদলে যান নাই। আজকে গুরুতর অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়াকে ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। প্রশাসন দিয়ে বিএনপিকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা করেছে কিন্তু পারেন নাই। পেরেছেন শুধু নেতাকর্মীদের সপ্তাহের পাঁচটা দিন কোর্টের বারান্দায় হাজিরা দিতে।
গতকাল দুপুর ২টার দিকে কর্ণফুলী থানার সিডিএ আবাসিক মাঠে এই চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।তবে সমাবেশের মূলপর্ব শুরু হওয়ার আগেই সমাবেশের মাঠটি কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।জেলার ৮ টি উপজেলা থেকে বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে সমাবেশে আসতে থাকে।একপর্যায়ে নেতাকর্মীদের ভারে মঞ্চ ভেঙ্গে যায়।এতে কয়েকজন নেতাকর্মী সামান্য আহত হয়। এদিকে সমাবেশে আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির  দু’পক্ষের হাতাহাতি হয়।এসময় একপক্ষের হাতে আনোয়ারা থেকে নির্বাচিত সাবেক এমপি সরোয়ার জামাল নিজাম লাঞ্ছিত হন। একপর্যায়ে তার অনুসারীরা মঞ্চ ভাংচুর করে। সমাবেশে বিএনপি কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম, কেন্দ্রীয় যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম, দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সদস্য সচিব আবুল হাশেম ছাড়াও কেন্দ্রীয় এবং স্থানীয় নেতারা বক্তব্য দেন।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com