বৃষ্টির মধ্যেই কর্মসূচি পালন করলেন শিক্ষার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ৭ ডিসেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৩৭ অপরাহ্ন

মুখে কালো কাপড় ও বুকে কালোব্যাজ ধারণ করে বৃষ্টির মধ্যে সড়কে দাঁড়িয়ে নিহতদের জন্য শোক পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা। গতকাল রাজধানীর রামপুরা এলাকায় দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এই কর্মসূচি পালন করেন। গত মঙ্গলবার থেকেই নিয়মিত রামপুরা ব্রিজে অবস্থান নিচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী গতকাল বেলা ১২টায় শিক্ষার্থীরা জড়ো হন। এ সময় মুখে কালো কাপড় বেঁধে নিহতদের স্মরণে শোক ও সংহতি প্রকাশ করেন তারা। নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন। এর আগে সড়কের অব্যবস্থাপনা ও দুর্নীতিকে লাল কার্ড ও ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেন। তবে বৃষ্টির কারণে গতকালের কর্মসূচি বেশি দীর্ঘায়িত করেননি শিক্ষার্থীরা।
একইদিন শেওড়াপাড়া এলাকায় গ্রীন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা সড়কে নিহত শিক্ষার্থীর স্মরণেও শোক র‌্যালি বের করেন।
সরজমনি দেখা যায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ১৫-২০ জন শিক্ষার্থী রামপুরা ব্রিজে জড়ো হয়ে আধাঘণ্টা ব্রিজের রেলিংঘেঁষে দাঁড়িয়ে অবস্থান নেন। এ সময় মুখে কালো কাপড় বেঁধে সড়কে নিহত শিক্ষার্থীদের স্মরণ করেন তারা। নিরাপদ সড়ক চাইসহ নানা স্লোগান দিতে থাকেন। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ব্রিজের আশেপাশে পুলিশ সদস্যদেরও ছাতা নিয়ে, রেইনকোর্ট-হেলমেট পরে অবস্থান নিতে দেখা গেছে।
আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া খিলগাঁও মডেল কলেজের শিক্ষার্থী ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট নেত্রী  সোহাগী সামিয়া বলেন, আমরা বৃষ্টিতে ভিজে আজও আন্দোলনে এসেছি। এতেই প্রমাণিত হয় যে, আমাদের দমিয়ে রাখা যাবে না। বৃষ্টিতে ভিজেও আমাদের সঙ্গে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন। এতে স্পষ্ট যে, সড়কে নৈরাজ্যের প্রতি মানুষের মনে ঘৃণা জন্মেছে ও আমাদের আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সমর্থন রয়েছে। আমাদের দাবি আদায় না হওয়ার পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব। প্রয়োজন হলে আমরা আরও ২১ বছর আন্দোলন করবো।
শিক্ষার্থীরা কেন কালো কাপড় মুখে বেঁধে নেমেছে এমন প্রশ্নের জবাবে সোহাগী সামিয়া বলেন, প্রথম কারণ হচ্ছে- আজ পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের প্রতি শোক প্রকাশ করার জন্য আমরা কালো কাপড় বেঁধেছি। দ্বিতীয়টি হচ্ছে- সরকারের নীরব ভূমিকার প্রতিবাদে আমরা আন্দোলন করছি।  এই যে এতগুলো সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে কিন্তু প্রশাসন বরাবরই নীরব ভূমিকা পালন করছে। প্রশাসনের এ নীরবতার প্রতিবাদে আমরা আজ মুখে কালো কাপড় বেঁধে নীরব আন্দোলন পালন করছি। এ সময় পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে সোহাগী বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, বৃষ্টি মঙ্গলবারও থাকবে। তাই মঙ্গলবার আন্দোলন স্থগিত রাখছি। আবহাওয়া ভালো হলে পরবর্তী কর্মসূচিতে রামপুরায় নিহত মাঈনুদ্দিনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একরামুন্নেসা স্কুল থেকে শুরু করে গুলিস্তানে নিহত নাঈমের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নটর ডেম কলেজ পর্যন্ত সাইকেল র‌্যালি করবো। পরে নাঈমের কলেজে আমরা মোমবাতি প্রজ্বলন করবো। আরেকটি হচ্ছে আমরা ছাত্র-শিক্ষক সবাই মিলে একটি সমাবেশ করবো।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

সিপিডি’র সংলাপে বিশেষজ্ঞরা

নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার পেছনে সরকারের ইচ্ছা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ

২৩ জানুয়ারি ২০২২

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন থেকে প্রমাণ হয়েছে যে, নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার পেছনে সরকারের ইচ্ছা সবচেয়ে ...

চক্রে জড়িত সরকারি কর্মকর্তা ও ভাইস চেয়ারম্যান

ডিজিটাল ডিভাইস দিয়ে প্রশ্নপত্র ফাঁস করতো ওরা

২৩ জানুয়ারি ২০২২

গভীর ঘুমেও আমাদের মস্তিষ্ক সক্রিয় থাকে

২৩ জানুয়ারি ২০২২

আমরা যখন ঘুমাই, তখনো মস্তিষ্ক কাজ করে যায় আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে। ঘুমের মধ্যে আমাদের হৃদকম্পন ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



প্রাইভেটে আইন না মানার প্রতিযোগিতা

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বেহাল দশা

DMCA.com Protection Status