সাভারে ছয় ছাত্র হত্যা

ফাঁসির আসামিকে মনোনয়ন দিয়ে এক ঘণ্টা পর পরিবর্তন করলো আওয়ামী লীগ

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন (১ মাস আগে) ডিসেম্বর ৫, ২০২১, রোববার, ৮:৩৪ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৯ অপরাহ্ন

রাজধানীর সাভার উপজেলার আমিনবাজার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনকে মনোনয়ন দিয়েছিল আওয়ামী লীগ। তবে এক ঘণ্টা পর সেই মনোনয়ন সংশোধন করে মো. রকিব আহম্মেদ নামের একজনকে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী মনোনীত করা হয়। শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মনোনীত প্রার্থীর পরিবর্তে ভুল নাম লিপিবদ্ধ হওয়ায় তা সংশোধন করা হয়েছে।

বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন আমিনবাজারের বড়দেশী গ্রামে ডাকাত আখ্যা দিয়ে ছয় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার মামলায় মৃত্যুদ- পাওয়া আসামি। ২রা ডিসেম্বর আলোচিত এই হত্যা মামলার রায়ে আনোয়ার হোসেনসহ ১৩ জনকে মৃত্যুদ- দেন আদালত। আজীবন কারাদ- দেয়া হয় ১৯ আসামিকে। ২০১১ সালে হত্যাকা-ের ঘটনাটি ঘটেছিল।

শনিবার দিবাগত রাত ১০টা ৫ মিনিটে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত ইমেইলে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শনিবার বিকেল চারটায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের মূলতবি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চারটি পৌরসভা এবং পঞ্চম ধাপের ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের ইউপি নির্বাচনে মনোনীত প্রার্থীদের নামের তালিকা দেয়া হয়। ওই তালিকায় সাভারের আমিনবাজার ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের নাম দেখা যায়।

এক ঘণ্টা পর ১১টা ৬ মিনিটে অপর এক মেইলে আনোয়ার হোসেনের পরিবর্তে মো. রকিব আহম্মেদের নাম উল্লেখ করা হয়।
রাত ১১টা ২৫ মিনিটে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী তালিকা (সংশোধিত) সংক্রান্ত অপর এক ইমেইলে বলা হয়, মনোনয়ন বোর্ডের মূলতবি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মনোনীত প্রার্থীদের একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত তালিকায় অসাবধানতাবশত একটি ইউপির চেয়ারম্যান পদে মনোনীত প্রার্থীর পরিবর্তে ভুল নাম লিপিবদ্ধ হয়। ওই ইমেইলে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মো. রকিব আহম্মেদকে উল্লেখ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Razzak (From, KSA)

২০২১-১২-০৬ ১২:৪৫:৩৮

জনগন জেনে গেছে সে জন্য। এ ভাবে প্রায় পুরো দেশজুড়ে দাগী, খুনি, সন্ত্রাসী, ধর্ষক, দুর্নিতিবাজ, অর্থপাচারকারী, ভোট ডাকাতদেরকেই নমিনেশন দিয়ে থাকে। যারা জনগন বিশেষ করে বিরোধী দল মতের বারোটা বাজাতে পারে তাদেরকেই নমিনেশন দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে নীতি আদর্শের কোন বালাই নেই।

মাহমুদ

২০২১-১২-০৫ ১৯:৫৪:৩৭

সমাজের নিকৃষ্টতর সব লোকজন কেন এই দলে খুঁজে পাওয়া যায় ?????

নূরূল ইসলাম

২০২১-১২-০৫ ১২:২৩:২৯

কোন প্রয়োজন ছিলনা বদল করার তিনি তো আমাদেরই লোক

Salim Khan

২০২১-১২-০৫ ১১:০২:৩২

জনগন জেনে গেছে সে জন্য। এ ভাবে প্রায় পুরো দেশজুড়ে দাগী, খুনি, সন্ত্রাসী, ধর্ষক, দুর্নিতিবাজ, অর্থপাচারকারী, ভোট ডাকাতদেরকেই নমিনেশন দিয়ে থাকে। যারা জনগন বিশেষ করে বিরোধী দল মতের বারোটা বাজাতে পারে তাদেরকেই নমিনেশন দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে নীতি আদর্শের কোন বালাই নেই।

monir hossain

২০২১-১২-০৫ ০৮:৪৫:০৪

১০ বছর হয় খুনের মামলা চলছে। ৫ বছর দরে আনোয়ার সাহেব আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে চেয়ারম্যানী করছে। এর পরেও নাকি ভুল বশত হয়েছে। আহা একি ভুলরে বাবা এক টানে ৫ বছর ।

Mahmud

২০২১-১২-০৫ ০৮:২০:১০

আওয়ামী লীগে এখন চলছে মনোনয়ন বানিজ্যের মহোৎসব । প্রার্থীদের মান , যোগ্যতা এখন আর বিবেচ্য নয়। আর সে কারণেই মনোনয়ন দেবার সময় তারা খুনের আসামিকে বিবেচনায় নিতে দ্বিধা করেন না ।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

নায়িকা শিমুর লাশ উদ্ধার

১৮ জানুয়ারি ২০২২

শনাক্তের হার ২০.৮৮

নতুন শনাক্ত ৬৬৭৬, আরও ১০ জনের মৃত্যু

১৭ জানুয়ারি ২০২২



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



ফেনী আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

বিএনপি-জামায়াত ১০টি, আওয়ামী লীগ ৪টিতে জয়ী

DMCA.com Protection Status