বাংলারজমিন

সাইকেল চালিয়ে আর হোম ডেলিভারি দেবেন না ইফতেখার

জালাল রুমি, চট্টগ্রাম থেকে

৫ ডিসেম্বর ২০২১, রবিবার, ৭:১৮ অপরাহ্ন

একটি অনলাইন ডেলিভারি প্রতিষ্ঠানের রাইডার ইফতেখারুল ইসলাম। চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা শেষ করা এই যুবক ‘প্যাডেল’ নামের এই প্রতিষ্ঠানের হয়ে হোম ডেলিভারি দিতেন। প্রতিদিন সকালে ক্ষুদে উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে হোমমেড খাবারসহ অনলাইনে অর্ডারকৃত বিভিন্ন পণ্য বুঝে নিয়ে সাইকেল চালিয়ে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিতেন। রোদ-বৃষ্টি যাই হোক, টানা এক বছর এই রুটিনে কাজ করে আসছেন তিনি। তবে বেপরোয়া গতিতে আসা সর্বনাশা একটি মালবাহী কাভার্ড ভ্যানে পিষ্ট হয়ে ২৮ বছর বয়সে জীবন চাকার প্যাডেল চিরতরে থেমে গেল এই উদ্যমী যুবকের। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ডেলিভারি দিতে বের হন ইফতেখার। বিকাল ৫টার দিকে চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় একটি পার্সেল দিয়ে ফিরে আসার সময় সল্টগোলা ক্রসিং এমপিভি ২নং গেট এলাকায় একটি কাভার্ড ভ্যান পেছন থেকে তাকে ধাক্কা দেয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সন্ধ্যা ৬টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত ইফতেখার ইসলাম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মধ্যমপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে। অবিবাহিত এই যুবক দীর্ঘদিন ধরে নগরীর পাহাড়তলী থানা এলাকার সিগন্যাল কলোনিতে ব্যাচেলর বাসায় থাকতেন। পরিবারের দুই সন্তানের মধ্যে সবার বড় ইফতেখার। ডিপ্লোমা শেষে চাকরি না পাওয়ায় টিউশনি করাতেন তিনি। টিউশনির টাকায় নিজে চলার পাশাপাশি বৃদ্ধ বাবা-মা ও ভাইয়ের খরচ জোগাতেন। ২০২০ সালের প্রথমদিকে লকডাউনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তার টিউশনও চলে যায়। এরপর একটি সাইকেল কিনে অনলাইনে হোম ডেলিভারি দিতে থাকেন। পাশাপাশি চা পাতারও ছোটখাটো ব্যবসা করতেন। সর্বশেষ গত ৬ মাস আগে ‘প্যাডেল’ নামে একটি ডেলিভারি প্রতিষ্ঠানের সিনিয়র এজেন্ট হিসেবে যোগ দিয়ে পণ্য ডেলিভারি দিতে থাকেন। আর সেখানে দায়িত্বরত অবস্থায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়।
ইফতেখার সহকর্মী ইনজামাম বলেন, ‘ইফতেখার ভাই অত্যন্ত ভদ্র নম্র ছিলেন। কাজের ক্ষেত্রেও ছিলেন খুব পেশাদার। কাজ ছাড়া কিছুই বুঝতেন না। আর এই রাইড দিয়েই পরিবার চালাতেন। হঠাৎ করেই এমন একটি দুর্ঘটনা ঘটে গেল। ওনি না হয় চলে গেলেন। কিন্তু ওনার পরিবারের কী হবে এখন। ওনার আয়ের ওপরই চলতো পুরো পরিবার।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status