বিশ্বজমিন

ইব্রাহিমি মসজিদে ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট, আরব লীগের নিন্দা

মানবজমিন ডেস্ক

৩০ নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ৩:২৯ অপরাহ্ন

ইসরাইলে অবস্থিত ইব্রাহিম (আ.) মসজিদে রোববার প্রবেশ করেছিলেন ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট আইজাক জারজোগ। তার এমন সফরের কড়া নিন্দা জানিয়েছে আরব লীগ। পাশাপাশি পবিত্র ওই মসজিদের পবিত্রতা রক্ষার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি। ইসরাইলের দখলীকৃত হেব্রন শহরে অবস্থিত এই মসজিদ। এটি ‘কেভ অব প্যাট্রিয়ার্চস’ বা পূর্ব পুরুষের গুহা বলেও পরিচিত। এ খবর দিয়েছে লন্ডনভিত্তিক অনলাইন আলআরাবি।

এতে বলা হয়, ইহুদিদের হানুক্কাহ উৎসবের প্রথম দিনটি উপলক্ষে ওইদিন বসতি স্থাপনকারী কিছু নেতা এবং পার্লামেন্ট নেসেটের কিছু সদস্যকে নিয়ে ইব্রাহিম মসজিদে প্রবেশ করেন প্রেসিডেন্ট হারজোগ। এ সময় ফিলিস্তিনিরা বিক্ষোভ করতে থাকেন। কিন্তু ইসরাইলি বাহিনী তাদেরকে হঠিয়ে দিয়ে প্রেসিডেন্ট ও তার সফরসঙ্গীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। পরে ওই স্থাপনায়ই বক্তব্য রাখেন প্রেসিডেন্ট হারজোগ। তিনি বলেন, আমার ভাই ও বোনেরা সব জটিলতা সত্ত্বেও আমি এই মুহূর্তে সেসব জটিলতাকে অস্বীকার করছি না। হেব্রনের প্রতি ইহুদি জনগণের ঐতিহাসিক সখ্য, কেভ অব দ্য প্যাট্রিয়ার্স, আমাদের মাতৃকুলের প্রতি ও পিতৃকুলের প্রতি আছে এই সখ্য। এ নিয়ে কোনোই সন্দেহ নেই। এই সম্পর্ক সব বিতর্কের উর্ধ্বে বলে স্বীকৃতি দিতে হবে।

১৯৬৭ সালের যুদ্ধে ইসরাইল বেআইনিভাবে দখল করে নেয় ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর। এর ভিতরেই অবস্থিত হেব্রন। রোববারই কেভ অব দ্য প্যাট্রিয়ার্সে প্রেসিডেন্ট হারজোগের সফরের নিন্দা জানিয়েছে আরব লিগ। কারণ, ইব্রাহিম মসজিদ এবং হেব্রন শহরে প্রেসিডেন্টের সফরকে দেখা হয় সেখানে ইহুদি বসতি স্থাপনে তার অনুমোদনের পরিষ্কার ঘোষণা হিসেবে। আরব লিগ সতর্ক করে বলেছে, দখলদার কর্তৃপক্ষ ইসলামিক এবং খ্রিস্টানদের পবিত্র স্থাপনাগুলোকে ক্রমাগত ইহুদিকরণ করছে। এমন এক সময়ে প্রেসিডেন্ট ওই সফরে গিয়েছেন। এটা মুসলিমদের অনুভূতিতে আঘাত এবং মুসলিমদের মধ্যে উস্কানি সৃষ্টি হিসেবে দেখা হচ্ছে। এসব তথ্য দিয়েছে ফিলিস্তিন সরকারের বার্তা সংস্থা ওয়াফা।

উপরন্তু হেব্রন, বিশেষ করে ইব্রাহিমি মসজিদ ইসরাইলি বসতি স্থাপনকারীদের আগ্রাসের মুখে আছে বলে এর মধ্য দিয়ে প্রকাশিত হয়েছে। আরব লিগ বলেছে, ইসরাইলের প্রেসিডেন্টের হেব্রন সফর তার আরেকটি উদাহরণ। এটা ফিলিস্তিনি জনগণ, তাদের অধিকার এবং পবিত্রতার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের উদাহরণ। হেব্রনের ওল্ড সিটিতে অবস্থিত ইব্রাহিমি মসজিদ। ২০১৭ সালে ইউনেস্কো একে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট বা বিশ্ব ঐতিহ্যের নির্দশন হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। হেব্রনে অবস্থিত ইব্রাহিমি মসজিদকে নবী ইব্রাহিম (আ.), ইসাহাক (আ.), ও জ্যাকবের সমাধিক্ষেত্র হিসেবে মনে করা হয়। এ জন্য এই স্থানটি মুসলিম ও ইহুদিদের কাছে উপাসনার জায়গা।

১৯৯৪ সালে ফিলিস্তিনিরা ওই মসজিদে নামাজ আদায় করতে থাকেন। সে সময় ইসরাইলিরা নৃশংসভাবে গুলি করে হত্যা করে নামাজ আদায়রত ২৯ মুসলিমকে। আহত করে অনেককে। তখন থেকেই এ ঘটনা ইব্রাহিমি মসজিদে গণহত্যা হিসেবে পরিচিতি পায়।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status