দশ বছর ধরে ঘাস-পাতা-কাঠ খেয়ে বেঁচে আছেন যিনি...

মানবজমিন ডিজিটাল

রকমারি ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪১ পূর্বাহ্ন

মানুষ ক'দিন আর ভাত-রুটি, সবজি বা মাছ-মাংশ না খেয়ে থাকতে পারে? তিনদিন, দশদিন? কিংবা এর চেয়েও না হয় বেশিদিন। কিন্তু তাই বলে বছরের পর বছর? এমনই এক ব্যক্তির সন্ধান মিলেছে। যিনি টানা দশ বছর ধরে অন্যদের মতো স্বাভাবিক খাবার খান না। প্রশ্ন উঠতেই পারে, তবে কি খেয়ে বেঁচে আছেন তিনি? শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্য। দশ বছর ধরে ঘাস, লতা-পাতা, কাঠ খেয়ে দিব্যি বেঁচে আছেন তিনি।
ভারতের মধ্য প্রদেশের শাহডোল জেলার করকটি গ্রামের ভুরা যাদব শাহডোল নামের এক ব্যক্তি রোজ এসবই খান। সংবাদমাধ্যম নিউজ-১৮-এর প্রতিবেদন থেকে এমনটা জানা যায়।
গত ১০ বছর ধরে এসব খাবার খেতে খেতে এখন পুরো অভ্যস্ত ভুরা ৷ ভাত-রুটি বা অন্য যে কোনও খাবার তার ইচ্ছেও করে না আর খেতে ৷ কারণ প্রতিদিনকার খাদ্যে তালিকায় ঢুকে পড়েছে এগুলোই ৷ আর তা খেয়েই দিব্যি রয়েছেন ভুরা যাদব ৷

ছোটবেলা থেকেই ঘাস, পাতা খাওয়ার অভ্যাস ছিল তার৷ খেতেন কাঠও৷ জন্মের পর থেকেই দারিদ্র্যতা ছিল তার নিত্যসঙ্গী ৷ দু’বেলা পেটপুরে খাবার খাওয়াও ছিল কঠিন ৷ তাই ধীরে ধীরে ঘাস, পাতা খেতে খেতেই এখন অভ্যাস হয়ে গেছে ভুরা যাদবের৷ এতদিন ধরে এসব খেয়ে অসুখ বিসুখ বা কোনো সমস্যাও নাকি হয়নি ৷

চিকিৎসকরাও ভুরার এই খাদ্যাভাস দেখে রীতিমতো অবাক ৷ তাদের মতে, এ সব জিনিস হজম হয় না।
নেই পুষ্টিগুণও ।
কিন্তু এই খাবার দিনের পর দিন খেয়ে কীভাবে বেঁচে রয়েছেন ভুরা, তা ভেবেই অবাক হচ্ছেন সবাই।

আপনার মতামত দিন

রকমারি অন্যান্য খবর

এই ফল সোনার থেকেও দামি

৯ নভেম্বর ২০২১



রকমারি সর্বাধিক পঠিত



তৈরী হচ্ছে রেলকোচের ১৬০ প্রকার পণ্য

সৈয়দপুরে অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকদের কারিশমা

DMCA.com Protection Status