জাতিসংঘের বীজ সূচকে শীর্ষ দশে বাংলাদেশি কোম্পানি

স্টাফ রিপোর্টার

এক্সক্লুসিভ ২৪ নভেম্বর ২০২১, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

জাতিসংঘের বীজ সূচকে শীর্ষ দশে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশি বীজ কোম্পানি। ওয়ার্ল্ড বেঞ্চমার্ক এলায়েন্স ও ইউনাইডেট নেশন ফাউন্ডেশন প্রকাশিত এ সূচকে বাংলাদেশের লাল তীর সীডস লিমিটেড শীর্ষ ৭-এ রয়েছে। আঞ্চলিকভাবে তৈরি তালিকায় শীর্ষ ৩১টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের দু’টি কোম্পানি রয়েছে। দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রথমবারের মতো সপ্তম অবস্থানে এসেছে লাল তীর সীডস লিমিটেড। ২০১৯ সালের পর চলতি ২০২১ সালে একসেস টু সীড ইনডেক্স প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ওয়ার্ল্ড বেঞ্চমার্ক এলায়েন্স ও ইউনাইডেট নেশন ফাউন্ডেশন। প্রতিবেদন তৈরিতে ছয়টি সূচকের ব্যবহার করা হয়েছে। এসব সূচকের মধ্যে সক্ষমতা তৈরি, মার্কেটিং এবং সেলস, বীজ উৎপাদন, গবেষণা ও উন্নয়ন, জেনেটিক রিসোর্স অ্যান্ড ইনটেলেকচ্যুয়াল প্রপার্টি ম্যানেজমেন্ট, সুশাসন ও কৌশল। এ ছয়টি সূচকের ওপর ১০০ নম্বর করা হয়েছে।
সেখানে লালতীর সীডস পেয়েছে ৫৯ দশমিক ২ নম্বর। সেখানে লাল তীর সবচেয়ে ভালো করেছে বীজ উৎপাদনে। আঞ্চলিকভাবে কোম্পানিটির সার্বিক অবস্থান সপ্তম হলেও বীজ উৎপাদনে লাল তীরের অবস্থান তৃতীয়। মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস- এ চতুর্থ অবস্থানে। গবেষণা ও উন্নয়ন এবং ক্যাপাসিটি বিল্ডিংয়ে ৬ষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে লাল তীর। প্রতিষ্ঠানটির জেনেটিক রিসোর্স অ্যান্ড ইনটেলেকচ্যুয়াল প্রপার্টি ম্যানেজমেন্ট, সুশাসন ও কৌশলে একটু পিছিয়ে থাকায় সার্বিক অবস্থান সপ্তমে এসেছে। তবে সামনের দিনে এ দু’টি বিষয়ে উন্নয়ন করা সম্ভব হলে কোম্পানিটি আঞ্চলিকভাবে শীর্ষ পাঁচে অবস্থান করতে পারবে। এ বিষয়ে লাল তীর সীডস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব আনাম বলেন, বীজ সূচকে বাংলাদেশি কোম্পানি হিসেবে লাল তীরের এই অবস্থান অবশ্যই গৌরবের। গত কয়েক দশক ধরে দেশের বীজ শিল্পের উন্নয়নে যে অবদান লালতীর রেখেছে তার স্বীকৃতি এটা। বৈশ্বিকভাবে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারা লাল তীরের জন্য কৃষকের আস্থা প্রতিষ্ঠিত হবে। দেশে ভালো বীজের জন্য উদ্ভাবন, গবেষণা ও সম্প্রসারণে কাজ করে যাচ্ছে লাল তীর। দেশে সবজি আবাদে শীর্ষস্থানীয় বীজ সরবরাহকারী হিসেবে নেতৃত্ব দিয়েছে। শীত ও গ্রীষ্মকালের সবজি এখন আর কোনো স্বপ্ন নয়। ভালো বীজের কারণেই কৃষক সবজি আবাদ করে লাভবান হচ্ছে। এই শিল্পে পরবর্তীতে আরও অনান্য বেসরকারি খাত এগিয়ে এসেছে।
এখন বীজের জাত উদ্ভাবন ও সম্প্রসারণে বেসরকারি কাজ করছেন। বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসতে সরকার নীতি ও কাঠামোগত সুবিধা বাড়াচ্ছে। সামনের দিনে এই সূচকে বাংলাদেশি আরও কোম্পানি আসতে পারে।

আপনার মতামত দিন

এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

২২ বিচারক ও অ্যাটর্নি জেনারেল করোনা আক্রান্ত

১৮ জানুয়ারি ২০২২

বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে অংশ নিতে আসা ২২ জন বিচারক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ...

ক্লাইমেট স্মার্ট প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও হস্তান্তর বৃদ্ধির তাগিদ

১৩ জানুয়ারি ২০২২

ঢাকায় দুই দিনব্যাপী  ‘কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা’ শীর্ষক সপ্তম ডি-৮ কৃষিমন্ত্রী পর্যায়ের সভা শুরু হয়েছে। ...

চট্টগ্রামের গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা ঘোষণা

১২ জানুয়ারি ২০২২

 চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার গুলিয়াখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন সংরক্ষিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ...

গার্মেন্টস পণ্য কেনাবেচায় ‘ফেব্রিক লাগবে’ অ্যাপের উদ্বোধন

১২ জানুয়ারি ২০২২

 টেক্সটাইল ও রেডিমেট গার্মেন্টস কারখানায় ব্যবহৃত যাবতীয় পণ্য ক্রয়-বিক্রয়, ট্রেডিং এবং সাপ্লাইয়ে বাংলাদেশে প্রথম ও ...

আইভীর প্রচারণায় একদিন

কখনো রিকশায় কখনো পায়ে হেঁটে যাচ্ছেন ভোটারদের কাছে

১১ জানুয়ারি ২০২২

হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন

ইমেজ ফিরিয়ে আনতে বিতর্কমুক্ত নেতৃত্ব চান তৃণমূল নেতাকর্মীরা

১০ জানুয়ারি ২০২২



এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status