অন্যায়ভাবে আড়িপাতা মৌলিক অধিকারের লঙ্ঘন

মানবজমিন ডেস্ক

শেষের পাতা ২৮ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার

ভারতে টেলিফোনে আড়িপাতার অভিযোগ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। গতকাল তিন সদস্যের বেঞ্চ এক রায়ে এই কমিটি গঠন করে দেয়া হয়। পেগাসাস কেলেঙ্কারি নিয়ে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের উত্তরে
সন্তুষ্ট না হয়ে এই রায় দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি এন ভি রামান্না, বিচারপতি সূর্যকান্ত ও বিচারপতি হিমা কৌশলকে নিয়ে গড়া বেঞ্চ। রায়ে বলা হয়েছে, অন্যায়ভাবে আড়িপাতার মাধ্যমে মৌলিক অধিকার খর্ব করা হয়। এই অভিযোগ সত্য হলে তার প্রতিক্রিয়া মারাত্মক হবে।
যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে তার প্রধান করা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি আর ভি রবীন্দ্রনকে। এ ছাড়া তাকে সহায়তা করতে আছেন এক আইপিএস কর্মকর্তা ও ৪ প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ। কমিটি তদন্ত করে রিপোর্ট জমা দিলে এই মামলার শুনানি হবে।
শুনানির দিন ঠিক করা হয়েছে ২ মাস পর।
পেগাসাস একটি ইসরাইলি সফটওয়্যার, যার মাধ্যমে অন্যের ফোনে আড়িপাতা যায়। অভিযোগ রয়েছে, ভারত সরকার এই প্রযুক্তি কিনে দেশটির সাংবাদিক, মানবাধিকারকর্মী, বিচারপতি, রাজনৈতিক নেতাসহ বহু সাধারণ মানুষের ফোনে আড়ি পেতেছে। এই অভিযোগ প্রথমবার ওঠার পর সরকার দাবি করেছিল আইনবহির্ভূত কিছু করা হয়নি। তবে ভারত সরকার এ বিষয়ে কোনো স্পষ্ট উত্তর দিতে পারেনি। ফলে সুপ্রিম কোর্টই বিষয়টি খতিয়ে দেখতে চায় বলে রায়ে জানানো হয়েছে।
এদিকে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে স্বাগত জানিয়েছে কংগ্রেস। দলের মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরযেওয়ালা এ নিয়ে করা এক টুইটে বলেন, মিথ্যা জাতীয়তাবাদ স্বৈরাচারী শাসকদের শেষ আশ্রয়। রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে মোদি সরকার দৃষ্টি ঘোরানোর বৃথা চেষ্টা করেছে। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে স্বাগত জানাই।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

সিলেটে এগিয়ে গেল নৌকা

২৯ নভেম্বর ২০২১

খালেদা জিয়ার বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ২৬৮৪ চিকিৎসকের বিবৃতি

২৮ নভেম্বর ২০২১

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবি জানিয়েছেন ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ...

শনাক্তের হার ১.১৫

করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু

২৮ নভেম্বর ২০২১

দেশে একদিনে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৭ হাজার ...

উল্টো চাপে বাংলাদেশ

২৮ নভেম্বর ২০২১



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status