গেটসের পাঠানো গোপন মেইলের কথা স্বীকার করল মাইক্রোসফট

অনলাইন (১ মাস আগে) অক্টোবর ২০, ২০২১, বুধবার, ৪:৫৯ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৬ অপরাহ্ন

মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসকে সম্পর্কে সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। মাইক্রোসফটের বোর্ড কয়েক বছর আগে কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সঙ্গে কোম্পানির একজন কর্মচারীর রোমান্টিক সম্পর্ক নিয়ে তদন্ত করেছিল, এমনকি ওই কর্মচারীকে কোনোরকম অনুপযুক্ত মেইল না পাঠানোর জন্য গেটসকে তাঁর সহকর্মীরা পরামর্শ দিয়েছিলেন, বিষয়টি সম্প্রতি সত্য বলে স্বীকার করেছে মাইক্রোসফট। ২০০৮ সালে, যখন গেটস এখনও মাইক্রোসফ্টের (এমএসএফটি) কর্মচারী এবং বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন, তখন বোর্ডের সদস্যরা তার এবং একজন মধ্য-স্তরের মহিলা কর্মচারীর মধ্যে পাঠানো ইমেলগুলি আবিষ্কার করেছিলেন যাতে গেটস ওই মহিলাকে কাজের বাইরে বাইরে কোথাও দেখা করতে বলেছিলেন। সোমবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের একটি প্রতিবেদনে বিষয়টি সম্পর্কে পরিচিত ব্যক্তিদের উদ্ধৃতি প্রকাশিত হয়েছে। জার্নাল জানাচ্ছে, সেই সময়, কোম্পানির জেনারেল কাউন্সিল ব্র্যাড স্মিথ এবং তৎকালীন চিফ পিপল অফিসার লিসা ব্রুমেল গেটসের সাথে দেখা করে তাকে বলেছিলেন যে আচরণটি অনুপযুক্ত এবং বন্ধ করা উচিত, এবং গেটস তাতে সম্মত হয়েছিলেন। মাইক্রোসফট সিএনএন বিজনেসকে জার্নালের প্রতিবেদন সম্পর্কে নিশ্চিত করেছে কিন্তু এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছে।মাইক্রোসফটের মুখপাত্র ফ্রাঙ্ক শ ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেছেন, "ফ্লার্ট করার সময়, গেটসের পাঠানো ইমেলগুলির মধ্যে কোনো যৌন অভিসন্ধি ছিল না, কিন্তু সেগুলি কোম্পানির অনুপযুক্ত বলে মনে হয়েছিল," এবং ওই মহিলা কর্মচারী ঘটনা সম্পর্কে কখনও অভিযোগ করেনি। যদিও গেটসের একজন মুখপাত্র ব্রিডজিট আর্নল্ড জার্নালের কাছে লিখিত বক্তব্যে এই দাবি অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, "এই দাবিগুলি সম্পূর্ণ মিথ্যা, গুজব ছাড়া কিছুই নয় এবং কিছু ক্ষেত্রে স্বার্থের উল্লেখযোগ্য দ্বন্দ্ব জড়িত আছে ।" সিএনএন বিজনেস গেটসের প্রতিনিধিদের একাধিকবার অনুরোধ করেও এ বিষয়ে মুখ খোলাতে সমর্থ হতে পারেনি। গেটস, বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি, ২০০০ সাল পর্যন্ত মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী ছিলেন। ২০১৪ সাল পর্যন্ত কোম্পানির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে এসেছেন। ২০২০ সালের মার্চ মাসে, গেটস মাইক্রোসফটের বোর্ডে তার আসন ছেড়ে দিয়ে বলেছিলেন যে তিনি পরোপকারের জন্য জীবনের বাকি সময় দিতে চান। সোমবারের যে প্রতিবেদন ওয়াল স্ট্রিটে বেরিয়েছে তা কর্মক্ষেত্রে তাঁর অনুপযুক্ত আচরণের প্রতি আঙুল তোলে। এই অভিযোগেই ২৭ বছরের বৈবাহিক জীবনে ইতি টেনে গেটসের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন মেলিন্ডা ফ্রেঞ্চ গেটস। মে মাসে, জার্নাল একটি রিপোর্ট করেছিল। যাতে বলা ছিল মাইক্রোসফট কর্মক্ষেত্রে গেটসের অনুপযুক্ত আচরণ নিয়ে তদন্ত করে দেখার জন্য একটি আইন সংস্থাকে নিয়োগ করার পর পরই ২০০০ সালে বোর্ডের ডিরেক্টর পদ ছেড়ে দেন বিল গেটস। মাইক্রোসফটের একজন মুখপাত্র মে মাসে সিএনএন বিজনেসকে জানিয়েছিলেন, "মাইক্রোসফট ২০১৯ সালের শেষার্ধে বেশ উদ্বিগ্ন ছিল, কারণ তাদের মনে হয়েছিল বিল গেটস কোম্পানির কর্মচারীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক শুরু করতে চেয়েছিলেন। বোর্ডের একটি কমিটি একটি পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্তের জন্য বাইরের আইন সংস্থার সহায়তা পর্যন্ত নিয়েছিলেন। পুরো তদন্ত চলাকালীন, মাইক্রোসফট সেই কর্মচারীকে ব্যাপক সহায়তা প্রদান করেছিল যিনি নিজে উদ্বেগ উত্থাপন করেছিলেন''। গেটসের একজন মুখপাত্র জার্নালকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, '' ২০ বছর আগে এক সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণভাবে শেষ হয়েছিল। এর সঙ্গে কোম্পানির তদন্তের বা গেটসের বোর্ড অফ ডিরেক্টর পদ ছেড়ে যাওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই ''। তবে কিছু যে একটা হয়েছিল তা মেনে নিয়েছেন অনেকেই।

সূত্র: সিএনএন বিজনেস

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

শনাক্তের হার ১.৪৫

করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু

৭ ডিসেম্বর ২০২১

বুদ্ধিজীবী ও বিজয় দিবসে বিএনপির নানা কর্মসূচি ঘোষণা

৭ ডিসেম্বর ২০২১

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



গণফোরামের একাংশের কাউন্সিল-

মন্টু সভাপতি, সুব্রত সম্পাদক

DMCA.com Protection Status