থার্ড পয়েন্ট

সাকিবদের ‘টেস্ট’ ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যা কী?

সাজেদুল হক

মত-মতান্তর ১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৫১ অপরাহ্ন

পাশে স্কটিশ উৎসব। সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে গিয়ে বারবার থেমে যেতে হচ্ছিল মাহমুদুল্লাহকে। বাংলাদেশের শীর্ষ ব্যাটসম্যানদের মন্থর ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যা জানতে চাইলেন এক সাংবাদিক। বাংলাদেশ দলের নেতা ঠিক কী বুঝাতে চাইলেন বুঝা গেলো না। বললেন, প্রথম ছয় ওভারে বেশি রান করতে চেয়েছিল দল। কিন্তু সেটা হয়নি।

আন্তর্জাতিক মিডিয়া গতরাতে বাংলাদেশের হারকে অঘটন বলছে। কিন্তু আসলেই কি এটি অঘটন। হ্যাঁ, মিরপুরে খেলা হলে এটিকে অঘটনই বলা যেতো।
কিন্তু এ ম্যাচে তো স্কটল্যান্ড বলে-কয়েই বাংলাদেশকে হারিয়েছে। ম্যাচের আগেই তো বাংলাদেশ দলকে কোনো পাত্তাই দেননি স্কটিশ কোচ।
বোলারদের বোলিং দেখে মনে হচ্ছিল, তারা স্কটল্যান্ডকে একটা জবাব দিতেই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। বিশেষ করে মেহেদী ও সাকিব ছিলেন অসাধারণ। একসময়তো স্কটল্যান্ড একশ’ রান পেরুতে পারবে না এমনটাই ধারণা হচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ১৪০ রানের মোটামুটি একটা স্কোর গড়ে স্কটল্যান্ড। কিন্তু ব্যাটিং উইকেটে এটাতো মামুলি স্কোরই। যদিও শেষ ওভারে মোস্তাফিজ ফুলটসটা না দিলে স্কোর হয়তো আরেকটু কম হতো।

সে যাই হোক। ওপেনিংয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা এ ম্যাচেও অব্যাহত ছিল। এবার লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। যথারীতি তারা ব্যর্থ। ফিরে গেলেন শুরুতেই। এরপর ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে অভিজ্ঞ দুই খেলোয়াড় মুশফিক ও সাকিব। শুরুতে একেবারে টেস্ট স্টাইলে ব্যাটিং করলেন তারা। যেন ৯০ ওভার পড়ে আছে। পরে স্ট্রাইক রেট ঠিক করবেন। আউট হওয়ার সময় সাকিবের স্কোর ২৮ বলে ২০। অথচ টি-টোয়েন্টিতে এটি অন্তত ৪০ হওয়া উচিত ছিল। পরপর দুই বলে দুটি ছক্কা মারার পরও মুশফিক ৩৬ বলে ৩৮। শুরুতে তার স্ট্রাইক রেট ছিল ৫০ এর আশপাশে। টি-টোয়েন্টিতে এমন ব্যাটিং এখন ওমানও করে না। এরপর আসা যাক অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর কথায়। তিনিও এ ম্যাচে টেস্ট ব্যাটিং করলেন। একটি ছক্কা মারার পরও তার স্কোর ২২ বলে ২৩। অথচ তখন রান করা প্রয়োজন ছিল দু’শ স্ট্রাইক রেটে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে এই খেলোয়াড়দের অবদান অনেক। বিশেষ করে ওয়ানডে ক্রিকেটে তারা অসাধারণ। টেস্ট ক্রিকেটেও ভালো মানের খেলোয়াড়। যেকোনো খেলোয়াড়রাই ব্যর্থ হতে পারেন। আউট হয়ে যেতে পারেন অল্প রানেই। তাই বলে দলের সেরা তিন খেলোয়াড় মন্থর ব্যাটিংয়ে দলকে ডোবাবেন- এটা কি মানা যায়? ক্রিকেট কখনও কখনও খুব নিষ্ঠুর। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশ দল নিয়ে বোধ হয় আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রয়োজনই ছিল।

অবশ্য সমস্যা শুধু খেলোয়াড়দের তা নয়। পৃথিবীর অন্যতম ধনী ক্রিকেট বোর্ড পরিচালিত দলের কোচ হওয়ার জন্য ডমিঙ্গো যোগ্য কি-না সে প্রশ্ন উঠছে শুরু থেকেই। প্রশ্ন রয়েছে আরও অনেক। কিন্তু কথা হল স্কটল্যান্ডের সঙ্গে হার বড় ধাক্কাই হয়ে এসেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য। এ ধাক্কা সামলে দ্বিতীয় পর্বে কি যেতে পারবেন সাকিবরা?

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মতিউর রহমান

২০২১-১০-১৯ ১৫:৪৬:৩৮

আগাগোড়া নতুন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল গঠনে বিসিবি কে এখনি উপযুক্ত দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করতে হবে। দল গঠনে বিসিবির পরিকল্পনায় প্রকৃত স্বচ্ছতা রাখতে হবে। এভাবে আমাদের ক্রিকেট দল হারতে থাকলে আশাবাদী হব কি করে ?

Nobody

২০২১-১০-১৯ ১০:৪৪:২৮

বাংলাদেশ পুরো টিমের সদস্য গুলারে মালটোবা খাওয়ানো দরকার। শক্তি নাই, সাকিব কাকুসহ অন্য কাকুদের সর্ট দেখে মনে হয় শরিরের সব ক্যালসিয়াম খরচ করে মাঠে নামছে, নাই নাই শক্তি নাই। দেশ থেকে বেতন+অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাদি পাইয়া আরাম আয়েস কইরা, সুন্দর বউ পাইয়া শরিরের বারোটা বাজাইছে, এইগুলারে দিয়া টি-২০ টিম হবে না।

md.moshiur rohoman

২০২১-১০-১৮ ১৮:২৪:০৮

sommyo, sakib, immediately out of team other wise cannot properly job

মোঃ হাতেম আলী

২০২১-১০-১৮ ১৬:৫৭:১৭

ইনিংস ব্যবধ্যানে হারেনি এতেই খুশি !

asgar ali sarker

২০২১-১০-১৮ ১৫:৫৬:১৫

আমার মতে সাকিব আর দুই ভায়রা ভাইই ম্যাচটা ডুবিয়েছে। টি টুয়েন্টিতে নিয়ম হলো রান করতে না পারলে পরের জনকে সুযোগ দাও। এমনিও হারবা ওমনিও হারবা ওরা একটু খেলুক। এই তিন জন ব্যক্তিগত রেকর্ড আর রান বাড়াতে টিমকে হারিয়েছে। সাকিব দুদিন আগে কলকাতাকে ডুবিয়ে আজ দেশকে ডোবালো। মনে হয় ওরা হোমসিক হয়ে পড়েছে, ফাইনাল রাউন্ডে খেলতে চায় না। বেতন সুযোগ সুবিধা তো খাড়া।

Md. Wahid

২০২১-১০-১৮ ১৫:২৫:৫৭

টি-20 তে পাওয়ার হিটার দরকার, যা বাংলাদেশের নেই। যতদিন পাওয়ার হিটার তৈরী না হতব ততদিন এই ফরম্যাটে ভালো করার সুযোগ কম থাকবে। ওমান নতুন দল, অথচ তাদের খেলার ধরন সম্পূর্ন টি-20 উপযোগী। আমার তো মনে হয় বাংলাদেশ ওমানের সাথে হারবে এবং ২য় রাউন্ডে কোয়ালিফাই করতে পারবে না। টাকা থাকলেই ক্রিকেটের উন্নতি হয় না, প্রয়োজন সঠিক ব্যবহার। গত কালের খেলা দেখে আমার মত হাজারো বাঙ্গালি অনেক কষ্ট পেয়েছে।

Faruk

২০২১-১০-১৮ ০০:৩৯:৪৩

অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের মত করে মিরপুর উইকেট বানালে হতো। তাহলে নিশ্চয়ই বাংলাদেশ জিততে পারতো

Sakhawat

২০২১-১০-১৮ ১১:৫৯:৩০

লিটন দাস ও সৌম্য সরকার দুজন খুব ভালো খেলে, দলথকে বাদ পড়তে পড়তে আবার ফিরে আসে, কিন্তু দলের প্রয়োজনের সময় তারা বরাবর ব্যর্থ । বিসিবি এদের নিয়ে আর কতো পরীক্ষা নিরীক্ষা করবে? এদের কারণে নতুন কেউ সুযোগ পাচ্ছেনা না কি দেশে এদের থেকে ভালো নতুন খেলোয়ার তৈরি হচ্ছেনা । দু'টো কারণের জন্যই বিসিবি দায়ী । গত চার বছরেও আমরা তামীমের একজন যোগ্য সহযোগী তৈরী করতে পারলাম না বা খুঁজে পেলাম না । দলে একজনও প্রিন্স হিটার নেই! স্লক ওভারে চার-ছয় বের করে আনতে পারে এমন প্লেয়ার হাতে গোনা দু-এক জন, এ দল দিয়ে আর যাই হোক টি-২০ হবে না ।

আপনার মতামত দিন

মত-মতান্তর অন্যান্য খবর

আইন, অধিকার, গণতন্ত্র

২৩ নভেম্বর ২০২১



মত-মতান্তর সর্বাধিক পঠিত



দেখা থেকে তাৎক্ষণিক লেখা

কোটিপতিদের শহরে তুমি থাকবা কেন?

কাওরান বাজারের চিঠি

ছবিটির দিকে তাকানো যায় না

DMCA.com Protection Status