মেধাবী শিক্ষার্থীর বাঁচার আকুতি

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে

বাংলারজমিন ১৭ অক্টোবর ২০২১, রোববার

মানিকগঞ্জ জেলা সদরের কাটি গ্রামের বাসিন্দা গার্মেন্টস কর্মী খন্দকার মারুফুর রহমান পোশাক কারখানায় চাকরি করছিলেন। এক মেয়ে এক ছেলে নিয়ে সামান্য আয়েও সুখেই চলছিল তাদের সংসার। বড় মেয়ে মেহজাবিন খন্দকার অষ্টম শ্রেণির মেধাবী শিক্ষার্থী। কিন্তু হঠাৎ করেই সে দুরারোগ্য দুই ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ায় মাত্র দেড় মাসে তার চিকিৎসার পেছনে নিজের বেতন, জমানো অর্থসহ যা ছিল সবই খরচ করে ফেলেছেন। বন ম্যারু আর ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত মেহজাবিন খন্দকার মাহিদা বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
মেহজাবিনের বাবা মারুফুর রহমান বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে সাভারের আড়াপাড়া মহল্লার ইলিয়াস মজুমদারের বাড়িতে ভাড়া থেকে পোশাক কারখানায় চাকরি করছি। নিজের আয়ে সংসার চালানোর পাশাপাশি মেয়েকে স্থানীয় ভালো একটি স্কুলে ভর্তি করেছিলাম। ইচ্ছা ছিল গার্মেন্টসে কাজ করেও সন্তানকে লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষের মতো মানুষ বানাবো। কিন্তু অল্প বয়সেই মেয়েটা বন ম্যারু রোগে আক্রান্ত হয়। গত ৪ঠা সেপ্টেম্বর ডাক্তার দেখিয়ে তার চিকিৎসা শুরু করি। এই রোগের চিকিৎসা করাতে গিয়ে আমার সবকিছু শেষ করেছি। এরমধ্যে গত ২২শে সেপ্টেম্বর নতুন করে মেয়েটার ব্লাড ক্যান্সার ধরা পড়ে। মেয়েটা বর্তমানে হাসপাতালের বিছানায় যন্ত্রণায় ছটফট করলেও বাবা হয়ে ডুকরে কাঁদা ছাড়া আমার কিছুই করার নেই। ডাক্তার বলেছে ব্লাড ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা লাগবে। আর ভারতে নিয়ে বন ম্যারু রোগের চিকিৎসা করাতেও লাগবে অনেক টাকা। এতো টাকা আমি কোথায় পাবো আর কীভাবে মেয়ের চিকিৎসা করাবো। হয়তো টাকার অভাবে শেষ পর্যন্ত মেয়েটার সুচিকিৎসাও করাতে পারবো না। মেহজাবিন বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তৃতীয় তলার ডি-ব্লকে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাকে বাঁচাতে হৃদয়বানরা কিছুটা সাহায্যের হাত বাড়ালেও প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। তাই সংকোচ ভুলে মেয়েকে বাঁচাতে মানবিক সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন। মেহজাবিনের পরিবারের সদস্যরা বলেন, মেয়েটা কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে যে কষ্ট পাচ্ছে আল্লাহ্‌ যেন আর কাউকে এমন কষ্ট না দেয়। খন্দকার মারুফুর রহমান বলেন, যখন ভাবি এক রোগের পিছনেই নিজের জমানো সব টাকা খরচ করে আমি নিঃস্ব, এর উপর নতুন করে ধরা পড়েছে ব্লাড ক্যান্সার। তখন নিজেকে ব্যর্থ বাবা মনে হয়, টাকার অভাবে মেয়েটার সুচিকিৎসাও করাতে পারছি না। এখন আল্লাহর কাছে দোয়া প্রার্থনা ছাড়া আর কিছুই করার ক্ষমতা নেই আমার। তারপরও সমাজের হৃদয়বানদের মুখপানে তাকিয়ে আছি। ব্যর্থ বাবাটার একমাত্র মেয়েটার চিকিৎসার জন্য গার্মেন্টসের কোনো ফান্ড, সরকার কিংবা কোনো সংস্থার মানবিক সহযোগিতা পেলে মেয়েটার চিকিৎসা করাতে পারতাম। মেহজাবিনের জন্য সহযোগিতা পাঠানো যাবে বিকাশ (মেহজাবিনের বাবা ০১৭০৩২২২৪২৫) নম্বরে।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

কমলগঞ্জে পিকআপের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

৬ ডিসেম্বর ২০২১

কমলগঞ্জে একটি দ্রুতগামী পিকআপ গাড়ির চাপায় মো. রুয়েল মিয়া (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ...

গৌরনদীতে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণে আহত ৩

৬ ডিসেম্বর ২০২১

 বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের দক্ষিণ মাদ্রা ফারিহা পার্ক সংলগ্ন এলাকার পরিত্যক্ত একটি টিনের ঘরে ...

নাসিক নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন কিনলেন বিএনপি’র সাখাওয়াত-কামাল

৬ ডিসেম্বর ২০২১

আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি এডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন ...

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে খুলনাঞ্চলে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি, জনজীবন বিপর্যস্ত

৬ ডিসেম্বর ২০২১

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে খুলনায় গত শনিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে দিনভর গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। ...

নৌকা পেয়ে বোমা ফাটিয়ে উল্লাস

৬ ডিসেম্বর ২০২১

 রাজবাড়ীর পাংশায় ৩টি হাত বোমাসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে উপজেলার মৌরাট ইউনিয়নের ...

নওগাঁয় ভুয়া এইচএসসি পরীক্ষার্থী গ্রেপ্তার

৬ ডিসেম্বর ২০২১

নওগাঁর নিয়ামতপুরে অন্যের হয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দেয়ার অপরাধে এক ভুয়া পরীক্ষার্থীকে সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ...

রাজনগরে ইউপি নির্বাচন

কামারচাকে নৌকার কাণ্ডারি আতাউর, আপিলে ফিরলেন টেংরার আকমল

৬ ডিসেম্বর ২০২১

অবশেষে নানা জল্পনা-কল্পনার পর মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী নজমুল হক সেলিমের আপিল ...

ভারপ্রাপ্ত হলেন মোমিন

সিলেটে দুঃসময়ে পাশে নেই পাপলু

৬ ডিসেম্বর ২০২১



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



শিক্ষকের মৃত্যু

উত্তাল কুয়েট

DMCA.com Protection Status