সাপ দিয়ে স্ত্রীকে মারার দায়ে সারাজীবন জেলেই কাটবে সুরাজের

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

ভারত (১ মাস আগে) অক্টোবর ১৪, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৫৭ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৪০ অপরাহ্ন

বিষাক্ত ভাইপার সাপের কামড় খাইয়ে স্ত্রী উথরাকে হত্যার দায়ে কেরালার আদালত ডাবল যাবজ্জীবন দণ্ড দিল অভিযুক্ত স্বামী সুরাজকে। সুরাজের বয়স এখন ২৮। বিচারক তার রায়ে বলেন সুরাজের মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু, তার বয়সের কথা ভেবে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়নি ঠিকই, কিন্তু বাকি জীবনটা তাকে কাটাতে হবে জেলে। যে সাপ দুটো সে ভাড়া করেছিল সাপুড়ে সুরেশের কাছ থেকে সেই দুটোর বিষদাঁত ভাঙা হয়নি। সাপুড়ে সুরেশ অবশ্য রাজসাক্ষী হয়ে অব্যাহতি পায়।
সম্পত্তির লোভে স্ত্রীকে হত্যা করে সুরাজ। সে প্রথমে ২০২০'র মার্চ মাসে একটি চন্দ্রবোড়া সাপ ঢুকিয়ে দেয় উথরার ঘরে। সাপটি অবধারিত ভাবে কামড়ায় উথরাকে। কিন্তু, ৫১ দিন হাসপাতালে লড়াই করে সে ফিরে আসে। মনস্কামনা  পূর্ণ না হওয়ায় সুরাজ ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে একটি গোখরো সাপ ভাড়া করে। সেই সাপের কামড়েই উথরার মৃত্যু ঘটে। কৃতকর্মের জন্যে সুরাজকে কখনই অনুত্তপ্ত মনে হয়নি।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর

ভারতীয় সংসদ ভবনে আগুন

১ ডিসেম্বর ২০২১



ভারত সর্বাধিক পঠিত



টিকিটের সর্বোচ্চ দাম দু’লক্ষ টাকা

রক্তচাপ বাড়াচ্ছে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ

DMCA.com Protection Status