ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিকে চীনা টিকার তৃতীয় ডোজ দেয়ার সুপারিশ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (৫ দিন আগে) অক্টোবর ১২, ২০২১, মঙ্গলবার, ৩:৪৯ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

ষাট বা ষাটোর্ধ্ব বয়সী যেসব ব্যক্তি করোনা ভাইরাসের পূর্ণাঙ্গ ডোজ টিকা নিয়েছেন, তাদের জন্য চীনে তৈরি সিনোভ্যাক এবং সিনোফার্মের টিকার তৃতীয় ডোজ দেয়ার সুপারিশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এ ছাড়া যেসব মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল, তাদেরকে অনুমোদিত করোনা ভাইরাসের যেকোনো টিকা অতিরিক্ত ডোজ হিসেবে দেয়া যাবে বলে ওই সুপারিশে বলা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। এতে আরো বলা হয়, সোমবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শক গ্রুপ, যা স্ট্র্যাটেজিক এডভাইজরি গ্রুপ অব এক্সপার্টস অন ইমিউনাইজেশন (এসএজিই) বলে পরিচিত, তারা এই সুপারিশ করেছে। তবে গণহারে বুস্টার ডোজ দেয়ার প্রয়োজন নেই বলে সুপারিশে উল্লেখ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। উল্লেখ্য, করোনা মহামারির সময় বিশ্বজুড়ে বেশ কিছু করোনা ভাইরাসের টিকা জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর মধ্যে রয়েছে ফাইজার, বায়োএনটেক, জনসন অ্যান্ড জনসন, মডার্না, সিনোফার্ম, সিনোভ্যাক এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকা। ওদিকে ভারতের ভারত বায়োটেক থেকে তৈরি করা টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমতি দেয়ার পথে রয়েছে।
এসএজিই গত সপ্তাহে চারদিনের বৈঠকে বসে। এ সময় তারা সর্বশেষ তথ্য ও ডাটা পর্যালোচনা করে। পর্যালোচনা করা হয় অন্য রোগ নিয়েও। পরে গ্রুপের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এসএজিই সুপারিশ করেছে যে, যেসব ব্যক্তির রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম বা একেবারেই কম তাদেরকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি ব্যবহারের জন্য যেসব টিকা অনুমোদন দিয়েছে, তার একটি বাড়তি ডোজ দেয়া যেতে পারে। এতে আরো বলা হয়, যেসব মানুষ সিনোভ্যাক এবং সিনোফার্মের পূর্ণ ডোজ টিকা নিয়েছে, যদি তাদের বয়স ৬০ বছর বা তারও বেশি হয়, তাহলে অতিরিক্ত একটি ডোজ তাদেরকে দেয়া যেতে পারে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম টিকা সরবরাহ এবং পর্যাপ্ততার কথা মাথায় রেখে তা বিবেচনায় নেয়া যেতে পারে।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status