'টাইট' দেশ সমাচার!

ড. মাহফুজ পারভেজ

মত-মতান্তর ৮ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:২৫ পূর্বাহ্ন

উদার, লিবারেল, বহুত্ববাদী, সমন্বয়মূলক নামে বহু গণতান্ত্রিক দেশকে যেমন চিহ্নিত করা হয় পৃথিবীতে, তেমনই কঠিন, কঠোর, 'টাইট' বা দমবন্ধকারী গণতান্ত্রিক দেশও রয়েছে। আশ্চর্যের বিষয় হলো, এসব দেশ কাগজেকলমে গণতান্ত্রিক নামে অভিহিত হয়েও নানা রকম তকমা পেয়ে থাকে। এক গবেষণায় পৃথিবীর তেমনই 'টাইট' দেশের চিত্র উপস্থাপিত হয়েছে।

আমেরিকার মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে মনস্তত্ত্বের অধ্যাপিকা মিশেল গেলফান্ড নানা দেশের সমাজ ও রাজনৈতিক ব্যবস্থায় সমীক্ষা চালিয়ে ‘টাইট’ (আঁটোসাঁটো) আর ‘লুজ়’ (ঢিলেঢালা)-এ বিভক্ত করেছেন দেশগুলোকে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে 'টাইট' দেশের পয়লা নম্বরে আছে পাকিস্তান। তারপর মালয়েশিয়া। ভারত তার পরেই, তিন নম্বরে। তারপরে সিঙ্গাপুর। তারপরে দক্ষিণ কোরিয়া, নরওয়ে, তুরস্ক, জাপান, চীন।


গেলফান্ড এবং তাঁর সতীর্থরা বিশ্বাস করেন, কোন্ দেশের সমাজ কত আঁটোসাঁটো বা ঢিলেঢালা, তা অনেক কিছুর উপর প্রভাব ফেলে। দেশের মানুষ কতটা সৃষ্টিশীল, দেশে স্বামী-স্ত্রীর বিবাহবিচ্ছেদের হার কী রকম, মত প্রকাশের স্বাধীনতা কতটুকু, এসব বিষয়ের হ্রাস-বৃদ্ধিও ঘটে দেশের চরিত্রের ভিত্তিতে।

কিসের ভিত্তিতে এই হিসাব করা হয়েছে, তা-ও বলেছেন গবেষকগণ? সর্বমোট ছয়টি ফ্যাক্টর ধরেছেন গেলফান্ড:
১) ইন্ডিভিজুয়ালিজ়ম বা ব্যক্তিস্বাতন্ত্র্য,
২) পাওয়ার ডিসট্যান্স বা ক্ষমতার বৈষম্য নাগরিকরা কতটা মেনে নেয়,
৩) ম্যাসকুলিনিটি তথা সমাজ কতটা মেনে নেয় বলপ্রয়োগে বিষয়গুলোকে,
৪) আনসার্টেনটি অ্যাভয়ডেন্স বা অজানার মুখোমুখি হতে মানুষ কতটা উদ্বিগ্ন হয়,
৫) লং-টার্ম ওরিয়েন্টেশনের ভিত্তিতে অতীত থেকে ভবিষ্যতে চলার শিক্ষা কতটুকু মসৃণ,
৬) ইনডালজেন্স তথা জীবনকে একটা যুদ্ধ না ভেবে, অন্যের স্বাধীনতাকে মূল্য দেওয়া হয় কতটুকু।

সহজেই বোঝা যাচ্ছে, ওই সব মানদণ্ডের নিরিখে বহু তথাকথিত কাগুজে গণতান্ত্রিক দেশের পিছিয়ে থাকাই প্রত্যাশিত। বহু দেশ নাগরিকদের বহুত্ববাদের বদলে এক দল ও এক গোষ্ঠীর এককেন্দ্রিক চিন্তার পিঞ্জরে বন্দি করে রেখেছে। গণতন্ত্রের ছদ্মাবরণে এমন 'টাইট' পরিস্থিতিই উন্মোচিত হয়েছে গবেষণায়।

তবে, আশ্চর্যের বিষয় হলো, সদ্য আলোচনায় আসা সংঘাতময় আফগানিস্তান নানা কারণে কঠোর দেশ রূপে সমালোচিত হলেও খোদ আমেরিকার মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে মনস্তত্ত্বের অধ্যাপিকা মিশেল গেলফান্ডের 'টাইট' দেশের তালিকায় নেই। আবার চীন, যেখানে একদলীয় শাসন বিদ্যমান এবং প্রতিবাদ নেই কোনও কিছুতে, সে দেশের সমাজও ভারতের তুলনায় কম 'টাইট' ও ঢিলেঢালা বলে স্বীকৃতি পেয়েছে।

আপনার মতামত দিন

মত-মতান্তর অন্যান্য খবর

আইন, অধিকার, গণতন্ত্র

২৩ নভেম্বর ২০২১



মত-মতান্তর সর্বাধিক পঠিত



দেখা থেকে তাৎক্ষণিক লেখা

কোটিপতিদের শহরে তুমি থাকবা কেন?

কাওরান বাজারের চিঠি

ছবিটির দিকে তাকানো যায় না

DMCA.com Protection Status