বিস্ফোরণে উড়ল পাকিস্তানের জনক জিন্নাহর মূর্তি

অনলাইন (৩ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১, সোমবার, ৬:১৬ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪২ পূর্বাহ্ন

গোয়েদার শহরে বেলুচ বিদ্রোহীরা বোমা হামলা চালিয়ে পাকিস্তানের জনক মোহম্মদ আলি জিন্নাহর মূর্তি উড়িয়ে দিয়েছে । এই হামলার দায় পাকিস্তানে নিষিদ্ধ বেলুচ লিবারেশন ফ্রন্ট স্বীকার করেছে।   রোববার সন্ধ্যায় জিন্নাহর মূর্তির তলায় বিস্ফোরক পেতে রেখেছিল হামলাকারীরা। তা থেকেই বিস্ফোরণ ঘটে। গত জুনে তুলনামূলক নিরাপদ এলাকা বলে পরিচিত মেরিন ড্রাইভ এলাকায় বসানো মূর্তিটি বিস্ফোরণে চুরমার হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে প্রথম সারির পাকিস্তানি সংবাদপত্র দ্য ডন। নিষিদ্ধ ঘোষিত সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী বেলুচ রিপাবলিকান আর্মির মুখপাত্র বাবগার বেলুচ ট্যুইটে নাশকতার দায় স্বীকার করেছেন বলে খবর বিবিসি উর্দুর। সর্বোচ্চ পর্যায়ে বিস্ফোরণের তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছেন গোয়েদারের ডেপুটি কমিশনার অবসরপ্রাপ্ত মেজর আবদুল কবির খান। জঙ্গিরা পর্যটকের ছদ্মবেশে বিস্ফোরক রেখে গিয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি। কমিশনার আব্দুল কবির খান জানিয়েছেন, এখনও কেউ গ্রেফতার না হলেও দু’একদিনেই তদন্ত শেষ হয়ে যাবে।
আমরা সব দৃষ্টিকোণ থেকে তদন্ত করছি, শিগগিরই অপরাধীরা ধরা পড়বে বলে জানান তিনি। বেলুচিস্তানের সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বর্তমান সিনেটর সরফরাজ বুগতি ট্যুইট করেছেন, মোহম্মদ আলি জিন্নাহর মূর্তি ভাঙা পাকিস্তানের দর্শনের ওপরই আঘাত। প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে জিয়ারাটে জিন্নার ব্যবহার করা ১২১ বছরের বাড়িতে গোলাগুলি চালিয়ে, বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল বেলুচ সন্ত্রাসবাদীরা। চার ঘন্টার আগুনে বাড়ির দামী আসবাবপত্র, স্মারক- সব পুড়ে ছাই হয়। অসুস্থ হওয়ার পর জিন্নাহ নিজের জীবনের শেষের দিনগুলি ওই বাড়িতেই কাটিয়েছিলেন। পাকিস্তান সরকার বাড়িটিকে রাষ্ট্রীয় স্মারকও ঘোষণা করেছিল। প্রসঙ্গত পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে বিচ্ছিন্নতাবাদ মাথাচাড়া দিয়েছে অনেকদিন আগেই। বিচ্ছিন্নতাবাদীরা সন্ত্রাসবাদের রাস্তায় হাঁটছে। এবার তাদের হাতে আক্রান্ত হলেন মোহাম্মদ আলি জিন্নাহ।

সূত্র : দ্য হিন্দু

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

SaGoR

২০২১-০৯-২৯ ০৬:০৯:৩৭

জিন্নাহর মূর্তি ভাঙাতে এদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা কেমন‌ যেনো‌ খুশি হয় নি! অথচ তারাই বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার পক্ষে ছিলো ধর্মের দোহাই দিয়ে! এতে তো এই প্রমাণিত হয় এরা পাকিস্তানী দালাল যারা কিনা হানাদারদের ঔরশে জন্ম।

Kazi

২০২১-০৯-২৭ ১৭:০১:৩৪

পাশের দেশে তালেবানের সরকার। এ থেকে উৎসাহিত হতে পারে বালুচ উগ্রপন্থি। ভারত বালুচকে উস্কানি দিচ্ছ তাদের স্বাধীনতার পক্ষ নিয়ে পাকিস্তানকে টুকরো টুকরো করতে । কিন্ত তারা কাশ্মীরের স্বাধীনতা দিচ্ছে না । একদিন তাদের সে পথে যেতে হবে । উভয় কাশ্মীর এক করে স্বাধীনতা দিয় পাকিস্তানের সীমান্ত থেকে মুক্ত হওয়া। নিরপেক্ষ স্বাধীন দেশের সঙ্গে সীমান্ত সৃষ্টি করে চিরস্থায়ী শান্তি স্থাপন।

Shahab

২০২১-০৯-২৭ ০৬:৪৪:৫৭

India organised that movement. Take care about that's.

আরিফ

২০২১-০৯-২৭ ০৬:২৩:২৩

@#samsulislam নিশ্চয়ই ভাই, বেলুচকে অবশ্যই "স্বাধীনতা" দেওয়া হোক। তা ভাই, কাশ্মীরের স্বাধীনতাটা যেন কি দোষ করেছে??? ও, তাতে তো আবার ভাঁড়ত দাদাদের আঁতে লাগবে। তাই না???

samsulislam

২০২১-০৯-২৭ ০৫:২৭:৫৭

বেলুচকে আলাদা স্বাধীন রাষ্ট্র ঘোষণা করা হউক।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনে সালমান এফ রহমান

ইলেকট্রনিক্স শিল্প গার্মেন্টসকে ওভারটেক করবে

২৩ অক্টোবর ২০২১

শনাক্তের হার ১.৮৫

করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু

২৩ অক্টোবর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



বাইডেন মনোনীত বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত

২০২৩ সালের নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্পূর্ণ গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণে কাজ করবো

DMCA.com Protection Status