ঢাবিতে ক্লাস চালু হতে পারে ২০শে অক্টোবরের পর

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার

অনলাইন (৩ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১, রোববার, ৯:১৩ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৬ অপরাহ্ন

দীর্ঘ বিরতির পর অবশেষে শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরি ও সায়েন্স লাইব্রেরি। একইদিন চালু হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব হল, বিভাগ এবং ইনস্টিটিউটের লাইব্রেরি ও সেমিনার। যদিও কেন্দ্রীয় ও সায়েন্স লাইব্রেরিতে এখন পড়ার অনুমতি রয়েছে কেবল অনার্স শেষ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের। পর্যায়ক্রমে লাইব্রেরিগুলো অন্যান্য বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্যও উন্মুক্ত করা হবে। ওদিকে আগামী ৫ই অক্টোবর অনার্স শেষ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের জন্য খুলছে আবাসিক হলগুলো। আগামী মাসের শেষ সপ্তাহে ক্লাস শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ^বিদ্যালয়ের একটি সূত্র।

রোববার লাইব্রেরিতে গিয়ে দেখা যায়, দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা ঢাকায় অবস্থান করছেন তাদের অনেকেই লাইব্রেরিতে পড়ার জন্য এসেছেন। টিকা সনদ দেখে ও তাপমাত্রা পরীক্ষার পর তাদের ভেতরে প্রবেশ করানো হয়। তবে শুধু দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য খোলায় এবং বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় উপস্থিতি স্বাভাবিকের চেয়ে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ কম ছিল।
লাইব্রেরিতে পড়তে আসা রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান জানান, যেই মেসে থাকি সেখানে পড়াশোনা করার সুষ্ঠু পরিবেশ নেই। তাই সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষার প্রস্তুতি ভালোভাবে নিতে পারছিলাম না। লাইব্রেরি খোলায় আমরা খুবই উপকৃত হয়েছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান লাইব্রেরিয়ান অধ্যাপক নাসির উদ্দিন মুন্সি সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার মাঝে ফেরাতে পেরে আমরা আনন্দিত। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও পরস্পরের মধ্যে তিনফুট দূরত্ব বজায় রেখে শিক্ষার্থীরা লাইব্রেরিতে বসেছেন। বিকাল ৫টা পর্যন্ত তারা লাইব্রেরিতে পড়াশোনা করতে পারবেন। আপাতত শেষ দুইবর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য খুললেও টিকা গ্রহণ সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে সকলের জন্যই লাইব্রেরি খুলে দেয়া হবে।

অক্টোবরেই খুলতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়:
বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ এখনো সুস্পষ্ট কোনো দিনক্ষণ জানায়নি। সব শিক্ষার্থী টিকার আওতায় এলেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। যেসব শিক্ষার্থী এখনো টিকার আওতায় আসেনি বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যাল সেন্টারে তাদের টিকা প্রদানের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে, সরকারের অনুমোদন পেলেই শুরু হবে টিকা প্রদান কার্যক্রম। দূর্গাপূজার ছুটি, সাপ্তাহিক ছুটি, ঈদেমিলাদুননবীর ছুটির কারণে ১৯শে অক্টোবরের আগে ক্লাস শুরুর সম্ভাবনা কম। এরপর ক্লাস চালুর ঘোষণা আসতে পারে।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

শনাক্তের হার ১.৭৪

করোনায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু

১৭ অক্টোবর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



তদন্ত কমিটি গঠন

চাঁদপুরে সংঘর্ষ, নিহত ৩

DMCA.com Protection Status