দিল্লিতে হাজারা গণহত্যা স্মরণ শিক্ষার্থীদের

শাহাদাত স্বাধীন, নয়াদিল্লি থেকে

অনলাইন (৩ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১, রোববার, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন

নয়াদিল্লিতে অবস্থিত সার্ক অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের আফগান শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ‘২৫ সেপ্টেম্বর হাজারা কালো দিবস’ পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা।
২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের আকবর ভবনস্থ ক্যাম্পাসের লনে স্মরণ সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণ সভায় আফগানিস্তানসহ ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল ও ভূটানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। স্মরণসভায় আফগান শিক্ষার্থী রেজা এহসান ‘হাজারা গণহত্যা ও ২৫ সেপ্টেম্বর কালো দিবস’ শীর্ষক বক্তব্য উপস্থাপন করেন।
রেজা বলেন, হাজারা জনগোষ্ঠী ১৮৯০ সালে গণহত্যার শিকার হয়। এটা ছিল জাতিগত নিধনযজ্ঞ, যদিওবা গণহত্যা হিসাবে এই ঘটনাকে এখনো স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু বিশে^র উচিত হাজারা গণহত্যাকে স্বীকৃতি দেওয়া, কারণ গণহত্যার সবকিছু ঘটেছে হাজারা গণহত্যায়।
উল্লেখ্য, হাজারা জনগোষ্ঠী আফগানিস্তানের তৃতীয় বৃহৎ নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠী। হাজারা শিয়া সম্প্রদায়ের এবং ১২ ইমামে বিশ্বাস করে।
বর্তমানে আফগানিস্তানে ৭-৯ লাখ হাজারা জনগোষ্ঠীর বসবাস। আফগানিস্তানের বাইরে পাকিস্তান, ইরান, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ইউরোপ ও ইন্দোনেশিয়ায় হাজারা জনগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে। ১৮৯০ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর আমির আবদুর রহমান খান হাজারা জনগোষ্ঠীর উপর গণহত্যা চালান। হাজারা লেখক সৈয়দ আসকার মসুভীর মতে সেই গণহত্যায় অর্ধেকের বেশী হাজারাকে হত্যা করা হয়।
ধর্মে শিয়া হওয়ায় হাজারা’রা তালেবান কর্তৃকও নানা বৈষম্য ও হামলার শিকার হয়। এছাড়া বৃহত্তর পশতুন জনগোষ্ঠীও তাদের আনওফিশিয়ালি নানা বৈষম্য করে হাজারা জনগোষ্ঠীর প্রতি।
হাজারাকে বলা হয় শত বছরের নিপীড়িত জনগোষ্ঠী। ২০০৩ সালে পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে মসজিদে বোমা মেরে হত্যা করা ৫৮ জন হাজারাকে, ২০০৪ সালে তাজিয়া মিছিলে হামলায় মৃত্যু বরণ করেন আরও ৪০ জন হাজারা। পাকিস্তানের নিষিদ্ধ ঘোষিত লস্কর ই জাংভি ২০১৩ সালে বোমা বিস্ফোরণে ৮০ জন হাজারা নারী পুরুষকে হত্যা করে। ২০০৯ সালে ১১ বার, ২০১১ সালে ১২ বার এবং ২০১২ সালে ১৮ বার হামলা হয় এই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর। ২০২১ সালে ইসলামিক স্টেট (আইএস) আফগানিস্তানে ১১ জন হাজারা শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করে। ১৯৯৭ সালে তালেবান ও হাজারাদের সাথে যুদ্ধে ৬০০ তালেবান নিহত হয়েছিল কিন্তু শক্তি সঞ্চয় করে পরে ৫-৬ হাজার হাজারাকে হত্যা করে তালেবান ও আল কায়েদা, পরে হাজেরা দেখলেই গুলি করে হত্যা করার নির্দেশ জারি করেছিল তালেবান। তবে হাজারাদের প্রতি এই ঘৃণা তালেবান পূর্ব সময় থেকেই রয়েছে আফগানিস্তানে। মূলত ধর্মীয় পার্থক্যের জন্য জাতিগত ঘৃণার বলি হয়ে আসছে হাজারা জনগোষ্ঠী।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

গাজীপুরে আগুনে পুড়ে গেছে কলোনির ৩৫টি ঘর

১৮ অক্টোবর ২০২১

গাজীপুর মহানগরের কোনাবাড়িতে আগুনে পুড়ে গেছে কলোনির ৩৫টি ঘর। গভীর রাতে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে অগ্নিকান্ডের ...

ইভ্যালি পরিচালনায় বোর্ড গঠন-

সাবেক বিচারপতি মানিককে চেয়ারম্যান করে চার সদস্যের কমিটি

১৮ অক্টোবর ২০২১

স্কুলের আয়া নিয়োগে কলেজছাত্রীকে দিয়ে সাজানো পরীক্ষা!

১৮ অক্টোবর ২০২১

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের মতিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়া নিয়োগে কলেজছাত্রীকে দিয়ে সাজানো পরীক্ষার অভিযোগ উঠেছে। মোটা অঙ্কের ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



তদন্ত কমিটি গঠন

চাঁদপুরে সংঘর্ষ, নিহত ৩

DMCA.com Protection Status