ব্যবসায়ীকে মঞ্চে ডেকে মারধর করলেন এমপি রিমন

বরগুনা প্রতিনিধি

শেষের পাতা ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার

সংসদ সদস্যের মোটরসাইকেল বহরকে সাইড না দেয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও মাছ ব্যবসায়ী মো. নজরুল ইসলাম (৩৮) কে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে বরগুনা-২ আসনের সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমনের বিরুদ্ধে। বুধবার বিকাল ৪টার দিকে পাথরঘাটা পৌর শহরের শেখ রাসেল স্টেডিয়াম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার মাছ ব্যবসায়ী নজরুল পাথরঘাটা পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বিএফডিসি মৎস্য পাইকার সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক। মারধরের বিষয়টি স্বীকার করেছেন এমপি রিমন। অন্যদিকে মারধরের শিকার নজরুল ইসলাম জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।
ওই মাছ ব্যবসায়ী বলেন, পাথরঘাটা শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে বুধবার উপজেলা ছাত্রলীগ আয়োজিত স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে পাথরঘাটা প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল খেলায় ঢাকা থেকে আগত বিভিন্ন ক্লাবের খেলোয়াড়রা মাইক্রোবাসে স্টেডিয়ামের দিকে যাচ্ছিলেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন এমপি শওকত হাচানুর রহমান রিমন। তিনি মোটরসাইকেল বহরের পেছনে ছিলেন তা মাইক্রো বাসের চালক দেখেনি।
এ সময় পেছন থেকে একটি বাইককে ছাত্রলীগের কর্মীরা এসে সাইড দিতে বলেন। সরু রাস্তার এক পাশ অটো রিকশার দখলে থাকায় সাইড দিতে কিছুটা দেরি করেছে গাড়ির চালক। এরপর রাস্তার বাম পাশে চালক গাড়ি থামিয়ে এমপির বহরকে সাইড দেয়। কিছুক্ষণ পর তিনি খেলোয়াড়দের নিয়ে মাঠে যান। এ সময় ছাত্রলীগ নেতা মধুসহ ৭/৮ জন জানান, এমপি রিমন তাকে মঞ্চে ডেকেছেন। মঞ্চে যাবার সঙ্গে সঙ্গে তাকে প্রকাশ্যে চড়-থাপ্পড় মারা শুরু করেন এমপি রিমন। এরপর তার পা ধরে ক্ষমা চাইতে বলেন। এ সময় অশ্রাব্য গালাগালিও করেন। মঞ্চে থাকা পাথরঘাটা পৌর মেয়র আনোয়ার হোসেন আকন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো. জাবির হোসেনসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। তারা কেউই এমপির এমন আচরণের প্রতিবাদ করেননি। শেষে ওই মাছ ব্যবসায়ী তার কাছে ক্ষমা চেয়ে মঞ্চ থেকে চলে আসেন। মঞ্চ থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা মধুসহ কয়েকজন তাকে পাথরঘাটা এলাকা ত্যাগ করতে বলেন। থানায় অভিযোগ করতে গেলে গুলি করে হত্যার হুমকি দেন।
ভুক্তভোগী নজরুল ইসলাম আরও বলেন, যদি গাড়ির চালক ভুল করে তবে গাড়ির চালককে সে মারধর করতো। কিন্তু আমাকে কেন মারলো। আমি এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছি। পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে আমি মাছের ব্যবসা করি। আমারও সম্মানের সঙ্গে জীবনযাপন করার অধিকার আছে। খেলার মাঠে কমপক্ষে ১০ হাজার মানুষের সামনে আমাকে মারধর করলো এমপি। সে একজন সংসদ সদস্য, তার অনেক ক্ষমতা। তাই আইনি প্রক্রিয়ায় আমি যেতে পারিনি। যদি আমাকে নিরাপত্তা দেয়া হয় তবে আমি তার বিরুদ্ধে মামলা করবো।
সে সময় মঞ্চে উপস্থিত পাথরঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাবির হোসেন বলেন, এমপির এমন আচরণে আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। এছাড়া আমার কিছু বলার নেই।
এ বিষয়ে এমপি শওকত হাচানুর রহমান রিমন বলেন, নজরুল খারাপ লোক তাই আমি তাকে চড় মেরেছি, তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। চড় মারা আমার অপরাধ হলে আমার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করুক।
এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার ওসি আবুল বাশার বলেন, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না। তবে মৌখিকভাবে ঘটনা জেনেছি। থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। যদি অভিযোগ দেয় তবে তদন্ত করে আইনগত প্রক্রিয়ায় যাবেন তারা। যদি অভিযোগকারীর নিরাপত্তা দরকার হয় সে বিষয়েও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে আমরা ব্যবস্থা করে নেবো।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

২০১ নতুন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৮ অক্টোবর ২০২১

গত ২৪ ঘণ্টায় ২০১ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানীতেই ...

করোনায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু

১৮ অক্টোবর ২০২১

দেশে করোনা শনাক্তের হার আরও কমেছে। বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১ ...

কুমিল্লার ঘটনায় সরকার দায়ী: মান্না

বাজারের থলে ও শূন্য হাঁড়ি নিয়ে অবস্থান

১৭ অক্টোবর ২০২১

ত্রিশালে বাসের পেছনে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ৭

১৭ অক্টোবর ২০২১

ময়মনসিংহের ত্রিশালে বাসের পেছনে ট্রাকের ধাক্কায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



৬৪ জেলার এসপিকে বার্তা

নিরাপত্তা জোরদার

কুমিল্লার ঘটনায় সরকার দায়ী: মান্না

বাজারের থলে ও শূন্য হাঁড়ি নিয়ে অবস্থান

৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জাফলংয়ে বালু লুট

DMCA.com Protection Status