জেলেই যেতে হলো সূচির আঙ্গুল কেটে ফেলা সেই কাউন্সিলরকে

ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

বাংলারজমিন ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:০৭ অপরাহ্ন

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌর নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের কুতুবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচি বেগমের আঙ্গুল কেটে ফেলা মামলায় কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন, তার ছোট ভাই শাহআলম ও জহুরুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সোমবার তারা আদালতে হাজির হলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
এর আগে হামলা, ভাঙচুর, আঙ্গুল কেটে ফেলা ও মারপিটের অভিযোগ এনে গেলো ১লা ফেব্রুয়ারি সূচির ভাই জহুরুল ইসলাম বাদী হয়ে কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেনকে প্রধান আসামি করে ২৭ জনের বিরুদ্ধে ভূঞাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে উচ্চ আদালতে আগাম জামিন নেন তারা।
এদিকে গেলো ৩০ জানুয়ারি ভূঞাপুর পৌরসভা নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ডের নির্বাচনী কেন্দ্রের নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচি বেগমকে এবং আওয়ামী লীগের অন্যান্য কর্মীদের উপর নিজ স্বার্থ হাসিলের জন্য অতর্কিত হামলা এবং নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচি বেগমকে নির্বাচনী বুথ থেকে টেনে বের করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুল কেটে ফেলার অভিযোগে কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেনকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। গেলো ৩রা মে ভূঞাপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আব্দুল বাছিদ মন্ডল ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ খাইরুল ইসলাম তালুকদার বাবলুর স্বাক্ষরিত চিঠিতে তাকে বহিষ্কার করা হয়। সেই সাথে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক পরিচয় সহ দলীয় সকল পরিচয় থেকে তাকে বিরত থাকতে বলা হয়।
উল্লেখ্য, ৩০ জানুয়ারি সকাল থেকেই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছিলো টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার কুতুবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। ভোটারদের দীর্ঘ লাইনও ছিলো সেখানে।
উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছিলেন নারী ও পুরুষ ভোটাররা। বেলা পৌনে ১২টায় হঠাৎ করেই পাল্টে যায় দৃশ্যপট। নিজের অবস্থা শোচনীয় দেখে জাল ভোট দিতে যান কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের লোকজন। বাধা দেয় অপর কাউন্সিলর প্রার্থী জাহিদুল ইসলামের সমর্থকরা। আর তাতেই বাধে বিপত্তি। শুরু হয় সংঘর্ষ। লাঠি হাতে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দেন সদ্য বিজয়ী কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। কেটে ফেলা হয় নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচি বেগমের আঙ্গুল। গুরতর আহত হয় ৭ জন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবির সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। নিজের (আনোয়ারের) সমর্থক আহত খায়রুল মারা গেছে এমন গুজব রটিয়ে বাকিটা সময় কেন্দ্র নিজেদের দখলে রাখেন তিনি।

শুধু তাই নেয়, ফলাফল ঘোষণা শেষে বিজয়ী হওয়ার পর আরেক খেলায় মেতে উঠেন আনোয়ার হোসেন। তিনিসহ হিংস্র হয়ে উঠেন তার সমর্থকরা। শুরু হয় প্রতিপক্ষ কাউন্সিলর প্রার্থী জাহিদুল ইসলামের সমর্থকদের বাড়িতে হামলা। দফায় দফায় চালানো হয় হামলা। ভাঙচুর ও কোপানো হয় কমপক্ষে ১৫টি বাড়ি।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

হাড়িভাসা ইউপি নির্বাচন

আবারো নৌকার মাঝি হতে চান যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন

২৩ অক্টোবর ২০২১

ফেনীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

২৩ অক্টোবর ২০২১

ফেনীতে পিকআপ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা লেগে চালক-হেলপারসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। গতকাল ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম ...

শ্রীপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় শিশু নিহত, যান চলাচল বন্ধ

২৩ অক্টোবর ২০২১

গাজীপুরের শ্রীপুর-মাওনা চৌরাস্তা সড়কের ব্যাপারী বাড়ি এলাকায় একটি কাভার্ডভ্যানের চাপায় চার বছরের শিশু নিহত হয়েছে। ...

আবারো উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পুরোদমে শুরু হবে রেলপথ মন্ত্রী

২৩ অক্টোবর ২০২১

রেলপথ মন্ত্রী এডভোকেট মো. নূরুল ইসলাম সুজন এমপি বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি সুষ্ঠুভাবে মোকাবিলা করে দুর্ভোগ ...

কোম্পানীগঞ্জে থানার সামনেও চুরি আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা

২৩ অক্টোবর ২০২১

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট বাজারে চুরি থেকে রেহাই পাচ্ছে না থানার সামনে ও আশপাশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও। ...

চট্টগ্রামে মাদ্রাসার নামকরণ নিয়ে সংঘর্ষ, স্ট্রোকে জমিদাতার মৃত্যু

২৩ অক্টোবর ২০২১

 চট্টগ্রামের পটিয়ায় মাদ্রাসার নামকরণ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে স্ট্রোক করে রুহুল আমিন (৭০) নামে এক ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা নাকি দুর্ঘটনা?

শ্রীনগরে অগ্নিদগ্ধ ভাইয়ের পর মারা গেল বোনও

জীবনের শেষ বেলায় সৈনিক খলিলুর রহমান

আর কবে মিলবে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি!

DMCA.com Protection Status