আলাপন

‘যাদের নায়িকা হয়েছি তাদের মায়ের চরিত্রেও কাজ করছি’

মুজাহিদ সামিউল্লাহ

বিনোদন ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:১২ অপরাহ্ন

বাংলা সিনেমায় অতীতে যেসব গুণী অভিনেত্রীরা মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মণিকোঠায় আজও অমর হয়ে রয়েছেন তাদের মধ্যে আয়েশা আকতার, রোজী আফসারী, রওশন জামিল, সুমিতা দেবী, আনোয়ারা প্রমুখ। তাদেরই পদঙ্ক অনুসরণ করে বর্তমানে যে ক’জন অভিনেত্রী মায়ের চরিত্রে রূপদান করে চলচ্চিত্রকে সমৃদ্ধ করছেন তাদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী রেবেকা। তিনি চিত্রনায়িকা হয়ে রূপালী পর্দায় অভিসিক্ত হন ‘অর্জন‘ ছবিতে ১৯৯০ সালে। তারপর বেশকিছু ছবিতে সহশিল্পী হিসেবে কাজ করতে গিয়েই সেই সময় বড় বড় প্রযোজনা সংস্থা ও পরিচালকদের নজর কাড়েন। সহশিল্পী থেকেই নায়িকা হওয়ার সুযোগ পেলেন। তাকে নিয়ে একে একে নির্মিত হলো চাঁদের আলো, মা-মাটি, দেশ, চোর-ডাকাত-পুলিশ, অন্তর জ্বালা, আন্দোলন, একটি সংসারের গল্প, রূপসী রাজকন্যাসহ অনেক হিট সিনেমা। বর্তমানে ব্যস্ততা নিয়ে তার সঙ্গে আলাপ হলো। রেবেকা জানালেন, শামিম আহমেদ রনির ‘বুবুজান’ সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত তিনি।
নারায়ণগঞ্জের মনোরম লোকেশনে শুটিং চলছে। এছাড়াও কাজী হায়াতের অনুদানের ছবি ‘জয় বাংলা’ তেও কাজ করবেন। কাজ করছেন জাহিদ হোসেনের ‘সোনার চর’ ছবিতেও। এরইমধ্যে ৯০ ভাগ কাজ শেষ করেছেন ডিএ তায়েবের ‘ঈশা খাঁ’ ছবির। এই অভিনেত্রী বলেন, অতীতে যাদের নায়িকা হয়েছি সময়ের ব্যবধানে তাদের মায়ের চরিত্রেও কাজ করছি। তাদের মধ্যে রয়েছেন প্রয়াত মান্না, রুবেল, কাঞ্চনসহ অনেকে। বর্তমানের শাকিব খানের মায়ের চরিত্রেও অভিনয় করে চলেছি।

২০০১ সালে প্রথম রুবেলের মায়ের চরিত্রে রূপদান করেছি ‘বরখেলাপ’ সিনেমায়। আপনি যখন সিনেমায় অভিনেত্রী হিসেবে কাজ করতেন তখন তো চম্পা, দিতি, অরুণা, শাবনাজ, শাহনাজ এদের দাপট সিনেমায়। এদের মাঝখান থেকে জায়গা পাওয়া কতটা কঠিন ছিল আপনার জন্য? রেবেকা বলেন, শুধু যে তাদের দাপট ছিল তা নয়; ওই সময় সিনেমার সোনালী যুগও ছিল। অসংখ্য হিট-সুপারহিট সিনেমা তৈরি হতো। আমাদের মতো নতুনদের কাজের ক্ষেত্রও বড় ছিল। কিং খান-এর মা হয়ে বেশকিছু ব্যবসা সফল সিনেমায় অভিনয় করেছেন। দর্শকরা শাকিব ও আপনার অভিনয় রূপালী পর্দায় গ্রহণ করেছেন। কেমন অনুভূতি আপনার? এ অভিনেত্রী বলেন, সত্যি বলতে শাকিবের সঙ্গে মা ও সন্তানের অভিনয় রূপালী পর্দায় সব শ্রেণির দর্শকই গ্রহণ করেছে। একজন সুদর্শন হিরোর আমার মতো ইয়ং মা চেহারা-সুরতে মডার্ন সবাই পছন্দ করেছে। চুল পাকানো, পুরু কাঁচের ব্যবধানে যে গল্পের প্রয়োজন যাই বলি না কেন এখন দর্শক খুবই চুজি। নায়িকার সময় কালটা আপনার খুবই অল্প সময়ের ছিল। মায়ের চরিত্রে অভিষেকটা খুব তাড়াতাড়ি হয়েছে বলে মনে হয় না?

রেবেকা বলেন, ভাগ্য বলে একটা কথা রয়েছে। নায়িকা হিসেবে যতটা দর্শক আমাকে চিনতেন তার চেয়ে মা হিসেবে আমাকে অনেক বেশি দর্শক চেনেন, ভালোবাসেন। এটাই বা কম কিসে। শুধু যে আমাকে রূপালী পর্দার দর্শকরাই গ্রহণ করেছেন তা না ছোট পর্দার অর্থাৎ ড্রয়িং রুমের দর্শকরাও আমাকে গ্রহণ করেছেন। বিভিন্ন চ্যানেলের অসংখ্য খ- ও ধারাবাহিক নাটকে কাজ করছি।

আপনার মতামত দিন

বিনোদন অন্যান্য খবর

আশাবাদী ঐশী

১৮ অক্টোবর ২০২১

গানেই নিয়মিত মনির খান

১৮ অক্টোবর ২০২১

ওজন কমাচ্ছেন পরীমনি

১৭ অক্টোবর ২০২১

ফের আইনি জটিলতায়

১৭ অক্টোবর ২০২১



বিনোদন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status