কলকাতা কথকতা

এতদিন পরে সরকারি নথিতে নুসরাতের ছেলের বাবার নাম প্রকাশিত

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

কলকাতা কথকতা (১ মাস আগে) সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:০০ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৯ অপরাহ্ন

বুধবার রাত সাড়ে নটার পর কলকাতা পুরসভার বার্থ রেজিস্ট্রেশন ওয়েবসাইটে নুসরাত জাহান রুহির পুত্রসন্তানের বাবার নাম আপলোড করা হল। প্রসংসাপত্রে দেখা যাচ্ছে পুত্রের নাম দেয়া হয়েছে ঈশান জে দাসগুপ্ত। মায়ের নাম নুসরাত জাহান। বাবার নাম দেবাশীষ দাসগুপ্ত ওরফে যশ। আর কোনও বিবাদ থাকলো না। পুরসভার এক হাজার ৬২৩ নম্বর নথি জানিয়ে দিল যশ দাসগুপ্তই হলেন নুসরাতের পুত্রের বাবা। এটা অবশ্য প্রত্যাশিতই ছিল। নিখিল জৈন এর সঙ্গে সম্পর্ক থাকার সময়ই যশের সঙ্গে প্রকাশ্যে মেলামেশা শুরু করেন নুসরাত।
দুজনে একসঙ্গে রাজস্থানে বেড়াতেও যান। পরে নুসরাত সন্তান সম্ভবা হলে নিখিল জৈন জানিয়ে দেন এই সন্তানের পিতা তিনি নন। কারণ, তিনি ও নুসরাত দীর্ঘদিন আলাদা থাকেন। নুসরাতও নিখিল জৈন এর সঙ্গে বিবাহ সম্পর্ক অস্বীকার করেন। দুজনের বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা এখন আলিপুর কোর্টে বিচারাধীন। যশ দাসগুপ্তই যে নুসরাতের সন্তানের বাবা তা নানা আচরণে দীর্ঘদিনই বোঝা যাচ্ছিলো। এবার সেই সম্ভবনায় সিলমোহর পড়ল।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Lutfullah Ansary

২০২১-০৯-২০ ১১:০৭:২৯

ভাই আপনাদের কাছে ক্ষমা চাই এই ধরনের নিউজ করা থেকে বিরত থাকুন। পৃথিবীতে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে যে গুল সবার সম্মুখে আসছেনা সেইগুলা খুজে বাহির করুন।

জামশেদ পাটোয়ারী

২০২১-০৯-১৬ ১৯:০৮:৩১

সুসরাতের প্রতিটি নিউজে তার না দেখেই হতাশ হয়ে পড়ি। ঐ নামটি মুসলমানের তাই। একটি মুসলিম মেয়ের এই কান্ড আসলেই হতাশাজনক। মাথা নীচু করা ছাড়া কিছু করার নাই।

Mohammed Hasan

২০২১-০৯-১৬ ১৬:১২:০২

পিতৃ পরিচয় পাওয়া গেলেও বৈধতাতো কেউ দিতে পারবে না। শিশুটির কি অপরাধ??? সারা জীবন আবৈধ সন্তানের তকমা নিয়েই বাচতে হবে। পিতা মাতার ক্ষনিকের ভুলসুখের জন্য সন্তানের সারা জীবনের কষ্ট। এতটা দায়ীত্বহীনদের পিতা-মাতা না হওয়াই কি ভাল ছিল না?

Nobody

২০২১-০৯-১৬ ১৪:৩৩:১৮

অবৈধ সন্তানের মা

Emon

২০২১-০৯-১৫ ২২:১৮:৪৬

অবৈধ সম্পর্ক আবার তাও অন্য এক husband থাকা অবস্তায় । নিকিল এর সাথে প্রতারনা করছে নুসরাত। ভিবিচারে লিপ্ত হওয়ার জন্য উভয়ের শান্তি হওয়া উচিত।

আশরাফ আহমেদ

২০২১-০৯-১৬ ১১:০৯:২৩

এক জীবন, এক বিয়ে, এক মৃত্যু। বিয়ে করার সিদ্ধান্ত প্রত্যেক মানুষের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। বিয়ের সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর আগে মানুষের আরও বেশি করে চিন্তা করা উচিত। অন্যথায় এই বিয়ে পারিবারিক কলহ, পারিবারিক সহিংসতা বা বিবাহ বিচ্ছেদে শেষ হতে পারে।

Md. Kamruzzaman

২০২১-০৯-১৬ ১০:৩৭:৩৬

পিতৃ পরিচয় দেয়া হলেও বৈধতার প্রমান দেয়া হয়নি । অবশ্যই বৈধ পিতা হওয়া উচিৎ ।

আপনার মতামত দিন

কলকাতা কথকতা অন্যান্য খবর



কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status