কলকাতা কথকতা

বাংলাদেশি ক্রেতা না থাকায় বিমর্ষ ভারতীয় ব্যবসায়ীরা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা

কলকাতা কথকতা (১ মাস আগে) সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১, বুধবার, ৯:৪২ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৭:২৩ অপরাহ্ন

ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে সড়ক পথে পণ্য আসা যাওয়ার ব্যবস্থা শুরু হওয়াতে খুশি ভারতীয় শাড়ি ব্যবসায়ীরা। কিন্তু, তাঁরা বিমর্ষ বাংলাদেশি ক্রেতা না থাকায়। বেনারসি কুঠি, আদি মোহিনীমোহন কাঞ্জিলাল, ঢাকেশ্বরী বস্ত্রালয়, সাহা টেক্সটাইলস কিংবা পার্ক স্ট্রিটের অপ্সরা - কিন্নরীরা বলছে, অবিলম্বে টুরিস্ট ভিসা চালু করা হোক পুজোর আগেই এবং ভারতীয় শাড়ির বাজার ভরে উঠুক বাংলাদেশি ক্রেতায়। যদিও বাংলাদেশের বিখ্যাত জামদানি শাড়ির সরবরাহ এখন কম। করোনা জামদানি শিল্পীদের কোমর ভেঙে দিয়েছে। কিন্তু, ভারতীয় বাজারে বিশেষ করে বাংলায় নিয়মিত আসছে পাবনার শাহাদাতপুর, বল্লা, টাঙ্গাইল, পাকরাইল থেকে তাঁতের শাড়ির পসরা। ভারতের বিষ্ণুপুরের বালুচরি, ফুলিয়ার তাঁতের শাড়ি নিয়মিত যাচ্ছে বাংলাদেশে। সাহা টেক্সটাইলস এর কর্ণধার কান্তি সাহা বললেন, বাংলাদেশ থেকে আমদানি কিংবা রপ্তানি শুরু হলেও সেখানকার ক্রেতা না থাকায় শাড়ির ব্যবসা মার খাচ্ছে।
কলেজ স্ট্রিট এর বেনারসি ব্যবসায়ীরা সারা বছর বাংলাদেশি ক্রেতা পেতেন ৪৫ শতাংশ। করোনা কালে বন্ধ থাকায় ব্যবসাতে টান পড়েছে তা মানছেন শাড়ি ব্যবসায়ীরা। নিউ মার্কেট, পার্ক স্ট্রিটে আবার বেশিরভাগই হতেন বাংলাদেশের ক্রেতারা। নিউ মার্কেটের শাড়ি ব্যবসায়ী পবন আগারওয়াল এর বক্তব্য, পুজো এবং ঈদ- এই দুটো মৌসুমেই শাড়ির ভালো ব্যবসা হত বাংলাদেশের ক্রেতাদের জন্য। শাড়ি ব্যাবসায়ীরা আশায় বুক বাঁধছেন যে, পুজোর আগেই হয়তো টুরিস্ট ভিসা চালু হবে। কলকাতার শাড়ির বাজার আবার ভরে উঠবে বাংলাদেশের ক্রেতাদের কলতানে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sabina Yesmin

২০২১-০৯-১৬ ০০:০২:২০

Bangladesh people don't want to see Indians in Bangladesh. Poor Indians are coming to Bangladesh and begging everywhere. You can see Indians in our Hotels, Hospitals, shopping malls, on the street. They should go out from Bangladesh.

মিতালী ব্যানার্জী

২০২১-০৯-১৫ ০৭:৪০:০০

আবদুল কাসেম এটা বাংলাদেশের কাপড় ব্যাবসাইদের জিজ্ঞাসা করুন ওরাও একই কথা বলবে আর আপনারা ৪৫% আসেন বাকি 55% ভারতীয় একজন ব্যাবসাই সব সময় বেশী মুনাফা চায় , কে না চাইবে 100% পার্সেন্ট এটা ভুলে যাবেন না ভারতের লোকসংখ্যা টা আর পশ্চিমবঙ্গের লোক সংখ্যা প্রায় বাংলাদেশের সমান তাই আপনারা ত্যাগ করেলেও যায় আসে না , ডাক্তারটাও ত্যাগ করতে বলবেন বাংলাদেশীদের,

Desher Bhai

২০২১-০৯-১৫ ১৮:৫৯:৪৪

Bangladeshi people should boycott Indian goods.

শহীদ

২০২১-০৯-১৫ ১৭:৫৩:০৩

ভারতীয়রা ও তাদের দোসররা গলা ফাটিয়ে বলে ভারত ছাড়া আমাদের চলে না।

Citizen

২০২১-০৯-১৫ ১৭:১৫:১১

Bangladesh now produces enough sacrificial animals for Qurbani, exports Fishes and Vegetables, is 4th in the world in producing Goats. Hopefully soon will be able to produce enough Onions. Bangladesh is 2nd in the world after China in producing Garments. But only left is Sharee. When Bangladesh can produce enough Sharee for our women ?

Abulkashem

২০২১-০৯-১৫ ১৪:৫৭:৩২

we should love our country .. we will avoid indian products

আপনার মতামত দিন

কলকাতা কথকতা অন্যান্য খবর



কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status