তালেবানদের পোশাক ফতোয়ার বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদ আফগান নারীদের

মানবজমিন ডিজিটাল

অনলাইন (১ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১, সোমবার, ৭:০০ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

আফগানিস্তানের নতুন তালেবান সরকার ঘোষণা করেছে , শরিয়তি আইন মেনে বোরখা পরেই মেয়েরা কাজে যোগ দিতে পারবেন। কিন্তু আফগান মেয়েরা অভিনব প্রতিবাদের মাধ্যমে জানিয়ে দিলেন, শরীর ঢাকতে বোরখা লাগে না, সাধারণ ঐতিহ্যবাহী পোশাকই যথেষ্ট। তালেবানদের বোরখা পরার ফতোয়ার বিরুদ্ধে তারা শুরু করেছে অনলাইন প্রচার।  যেখানে আফগান মহিলাদের নানা রঙের ঐতিহ্যবাহী আফগান পোশাকে দেখা যাচ্ছে। রবিবার রাত থেকেই আফগানিস্তান-সহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা আফগান মহিলাদের ঐতিহ্যবাহী পোশাকের ছবি ছড়িয়ে পড়ে নেটমাধ্যমে। সেই সব ছবিতে দেখা যাচ্ছে- গোড়ালি ঢাকা পোশাক পরেছেন আফগান মহিলারা। জামার হাতা লম্বা । পোশাক রঙিন, কাউকেই ধূসর বা কালো রঙ ব্যবহার করতে দেখা যায়নি।  সঙ্গে থাকা রঙিন ওড়না কেউ আলগা ভাবে মাথায় দিয়েছেন। কেউ আবার পোশাকের উপরই ফেলে রেখেছেন এক পাশে।
কিন্তু  প্রত্যেকেরই মুখ অনাবৃত।  নিজেদের সেই সব ছবি তুলে নেটমাধ্যমে পোস্টও করেছেন সাহসিনীরা  । সেই ছবির বিবরণে হ্যাশট্যাগে লিখে দিয়েছেন তালিবানের উদ্দেশে একটি সতর্কবার্তা—#DoNotTouchMyClothes অর্থাৎ ‘আমার পোশাকে হাত দিও না’। এর আগে পূর্ববর্তী শাসনকালে তালেবানরা আফগান নারীদের বোরখা পরিয়ে পর্দানসীন করে রেখেছিলো।  ১৫ অগাস্ট ফের কাবুলের মসনদে বসার পর নতুন তালেবান নেতারা সেই নিয়ম ফিরিয়ে এনেছেন। এর প্রতিবাদেই এবার  মুখ বন্ধ করে না থেকে নিজেদের মতো করে সোচ্চার হয়েছেন আফগান নারীরা, তাও  আবার সোশ্যাল মিডিয়ায়  গোটা বিশ্বের সামনে।  তালেবানরা আফগানিস্তান দখল করার পর থেকে, কট্টরপন্থীরা আফগানিস্তানে নারীর স্বাধীনতাকে খর্ব করে বেশ কয়েকটি বিধি নিষেধ আরোপ করেছিল । তালেবান প্রশাসন ঘোষণা করেছে যে, আফগান মহিলাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পড়াশোনা করার অনুমতি দেয়া হবে যেহেতু দেশটি নিজেকে পুনর্গঠন করতে চায়, কিন্তু লিঙ্গ-বিচ্ছিন্নতা এবং ইসলামিক ড্রেস কোড বাধ্যতামূলক হবে। তালেবান শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, শরিয়া আইনের ব্যাখ্যা অনুসারে যেখানে সম্ভব মেয়েরা  ছাত্রীদের পড়াবে এবং তাদের শ্রেণীকক্ষও  আলাদা থাকবে।

 

সূত্র: indiatoday.in

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Abdullah

২০২১-০৯-১৫ ১৫:০১:৪১

আফগানের দিকে নজর না দিয়ে বাংগু তালেবানদের দমনের প্রতি নজর দেওয়া উচিৎ। তালেবানরা ইসলামের শত্রু, সন্ত্রাসি জঙ্গি

মাহমুদ

২০২১-০৯-১৩ ২২:৪৬:৪৭

পর্দা করার জন্য বোরখা/মানানসই পোশাক অবশ্যই প্রয়েজন- নাম যা-ই হোক। এটা কি তালেবান বা কোনো দলের কথা? পর্দা করা মহান আল্লাহর নির্দেশনা। যারা এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তারা মহান আল্লাহর সাথে যুদ্ধে লিপ্ত। এরা মানুষ/মুসলিম নামের কলঙ্ক। ইসলামী আইনের অবাধ্য পাপাচারী সম্প্রদায়ের দুনিয়ায় কীসের প্রয়োজন? ইসলাম ছেড়ে অন্য ধর্ম গ্রহন করলেই তো হয়, যেখানে তাদের খায়েশ পুরণ হবে! তওবা না করলে এদের ধ্বংস অনিবার্য।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

দেশে ফিরলেন আ স ম রব

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

শনাক্তের হার ৪.৫৪

করোনায় আরও ৩১ জনের মৃত্যু

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status