দাঁড়াতে পারছেন না সুচি, আদালতে উপস্থিতিতে অক্ষম

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (৫ দিন আগে) সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১, সোমবার, ৩:২৮ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন

স্বাস্থ্যগত কারণে আজ আদালতের শুনানিতে উপস্থিত হতে সক্ষম নন মিয়ানমারে ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সুচি (৭৬)। তার আইনজীবী টিমের এক সদস্য বলেছেন, চলাফেরা করলেই তার মাথা ঘোরে। এ কারণে তিনি আজ সোমবার আদালতের শুনানিতে উপস্থিত হতে পারবেন না। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। এ বছর ১লা ফেব্রুয়ারি রক্তপাতহীন সামরিক অভ্যুত্থানে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশটির সামরিক জান্তা। তারপর তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে আটকে রেখেছ জান্তা। আইনজীবী মিন মিন সোয়ে বলেছেন, সুচির করোনা ভাইরাস ধরা পড়েনি। তবে দীর্ঘ সময় তিনি গাড়িতে সফর করলেই অসুস্থ হয়ে পড়েন।
শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অং সান সুচি গত তিনটি দশকের প্রায় অর্ধেক সময় কাটিয়েছেন আটক অবস্থায়। সামরিক জান্তাদের বিরুদ্ধে অহিংস আন্দোলন করার কারণে তিনি এই কারাভোগ করেন। আইনজীবী মিন মিন সোয়ে বলেছেন, সুচি মারাত্মক অসুস্থ নন। তিনি গাড়িতে সফর করলে অসুস্থ হয়ে পড়েন। দাঁড়াতে পারেন না। আমাদেরকে বলেছেন, বিশ্রাম নিতে চান। শুধু আইনজীবী টিমের মাধ্যমে তিনি বাইরের দুনিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে পারেন। তবে এক্ষেত্রেও তার সুযোগ সীমিত এবং তাতে জান্তা সরকারের মনিটরিং আছে। ওয়াকিটকি রাখা, করোনা ভাইরাস প্রোটোকল ভঙ্গ করা সহ বহুবিধ অভিযোগে রাজধানী ন্যাপিডতে বিচার হচ্ছে তার। বড় অংকের ঘুষ নেয়ার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। একটি আলাদা এবং অধিক গুরুত্বপূর্ণ একটি মামলায় বলা হয়েছে, তিনি অফিসিয়াল সিক্রেট অ্যাক্ট ভঙ্গ করেছেন। এ অভিযোগে তার শাস্তি হতে পারে ১৪ বছরের জেল। এসব অভিযোগের প্রতিটিই প্রত্যাখ্যান করেছেন তার আইনজীবীরা। আইনজীবী টিমের প্রধান খিন মুয়াং জাওয়া বলেছেন, সোমবার দাঁড়াতে পারছিলেন না সুচি। এ জন্য তার অনুপস্থিতিকে অনুমোদনের অনুরোধ করেন বিচারকের কাছে। তিনি আরো বলেন, সুচির ঘন ঘন হাঁচি হচ্ছিল। তন্দ্রাচ্ছন্ন অনুভূত হচ্ছে তার। সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য তার সঙ্গে কথা বলতে পেরেছেন আইনজীবীরা।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Shahid Ullah

২০২১-০৯-১৪ ১৫:৪২:১৫

সে একজন অভিশাপ্ত

Kazi

২০২১-০৯-১৩ ১৬:১৪:২৮

আন্তর্জাতিক আদালতে সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে সত্য সাক্ষ্য দিয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় নিলে ঐ খান থেকেই সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত গঠন করে ক্ষমতাসীন হতে পারতেন। আজকের জুলুম ভোগ করতে হত না ।

হাবিব

২০২১-০৯-১৩ ২১:৪৯:৫৩

যেমন কর্ম তেমন ফল। সুচি নিজের ঘরেই সাপ পুষেছিলেন আর এটা জানাই ছিল জান্তা নামের এই সাপ রুচিকে একদিন দংশন করবেই। হলোও তাই।

মুস্তফা সুলতান

২০২১-০৯-১৩ ০৬:৫৮:৩৫

রোহিঙ্গা গণহত্যার সময় তো খুবই সুস্থ-সবল ছিল ।এখন না হয় একটু অসুস্থ মারা তো যায় নাই।

Shah Alam-ITP

২০২১-০৯-১৩ ১৬:০১:৫০

ক্ষমতার লোভে উনি রোহিঙ্গ মুসলিমদের সহায়তা করেনি।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

ট্যাক্সিতে এখন ছাদবাগান

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status