ইউটিউব চ্যানেল আর পোর্টালে ছড়ানো হচ্ছে ফেক নিউজ: ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

ভারত (১ মাস আগে) সেপ্টেম্বর ৩, ২০২১, শুক্রবার, ৯:৩৯ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

ভারতে ইউটিউব চ্যানেল এবং হঠাৎ গজিয়ে ওঠা পোর্টালের মাধ্যমে ফেক নিউজ, সাম্প্রদায়িকতা এবং ব্যক্তিগত কুৎসা চালানো হচ্ছে বলে মনে করছে সুপ্রিম কোর্ট। জমিয়েত এ উলেমা ই হিন্দ ওর তাবলিগি নিয়ে একবছরের বেশি সময় ধরে চলা একটি মামলার শুনানির সময় এই মন্তব্য করেছেন দেশের প্রধান বিচারপতি এন জে রামান্নার নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি বেঞ্চ। শুধু মন্তব্য করাই নয় ভারতের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতার কাছে আদালত জানতে চেয়েছেন ফেক নিউজ ও ব্যক্তি কুৎসা ঠেকাতে কেন্দ্রীয় সরকার কি ব্যবস্থা নিচ্ছে। আদালত মনে করে দেশে সংবাদপত্র ও টিভিকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্যে রেগুলেটরি সংস্থা আছে। কিন্তু, ইউটিউব চ্যানেল বা পোর্টাল এর ক্ষেত্রে নেই। কারও ইচ্ছা হলেই সে একটি ইউটিউব চ্যানেল কিংবা পোর্টাল খুলতে পারে। এটা বন্ধ হওয়া দরকার। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা আদালতেকে জানান, অনেকেই মত প্রকাশের স্বাধীনতার সুযোগ নিচ্ছে।
ইউটিউব অথবা পোর্টালে আপত্তিকর কিছু প্রকাশিত হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা সংস্থা ওই পোর্টাল বা চ্যানেলে প্রতিবাদ জানাতে পারেন। ১৫ দিনের মধ্যে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা না নেয়া হলে ওই ইউটিউব চ্যানেল অথবা পোর্টাল এর বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেন। সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ এই ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট না হয়ে সলিসিটর জেনারেলকে ১৪ দিনের মধ্যে একটি এফিডেভিট জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর



ভারত সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status