প্রথম পাতা

টিকা দেয়া শুরুর পর শ্রমিকদের অসুস্থতা

কী ঘটেছে গাজীপুরের পোশাক কারখানায়

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে

২৭ আগস্ট ২০২১, শুক্রবার, ৯:০৮ অপরাহ্ন

গাজীপুরের মৌচাক এলাকায় সাদমা গ্রুপের মৌচাক নিট কম্পোজিট নামের পোশাক কারখানা। গতকাল সকালে এখানে শ্রমিকদের করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেয়া শুরু হয়। কিছুক্ষণ পরেই দেখা দেয় বিপত্তি দেখা যায় একে একে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বেশ কয়েকজন শ্রমিক। তাদের কাউকে কাউকে নেয়া হয় হাসপাতালে। এ ঘটনায় টিকা কার্যক্রম তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ রাখা হয়। গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডাক্তার মো. খায়রুজ্জামান জানান, ওই কারখানায় গতকাল সকালে দ্বিতীয় ডোজ টিকা কার্যক্রম শুরু হয়। ঘণ্টাখানেক টিকা কার্যক্রম চলার পর শ্রমিকরা অসুস্থ হতে থাকে। এতে তাৎক্ষণিকভাবে টিকা কার্যক্রম বন্ধ করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে মনস্তাত্ত্বিক কোনো কারণে তারা অসুস্থ হতে পারে এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠবে বলে আশা করা হচ্ছে। তিনি জানান ৫৪ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে কেউ ভর্তি হননি।  তাদের কেউ কেউ ভয় পেয়ে অজ্ঞান হয়ে গেছেন। তারা চিকিৎসা নিচ্ছেন। আমরা আবারো টিকা কার্যক্রম শুরু করবো। তার দাবি টিকা থেকে কোনো ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঘটনা ঘটেনি। টিকা মানসম্মত আছে। মেয়াদও আছে। এদিকে শ্রমিকরা জানিয়েছেন, টিকা নেয়ার পর পরই তারা অসুস্থ হতে থাকে। তাদের দাবি, অর্ধশতাধিক শ্রমিক অসুস্থ হয়ে পড়েছে। শ্রমিক অসুস্থ হলে মৌচাক পপুলার হসপিটালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে প্রায় ৩০ জন শ্রমিকের জ্ঞান হারানোর মতো ঘটনাও ঘটে। শ্রমিকরা আরও জানান, টিকা নেয়ার ঘণ্টা খানেক পর তারা অসুস্থবোধ করেন। এরপর তারা অচেতন হয়ে পড়েন কেউ কেউ। জ্ঞান ফেরার পর বুঝতে পারেন তারা হাসপাতালের বেডে রয়েছেন। সাদমা গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, টিকা দেয়ার কিছুক্ষণ পর থেকে শ্রমিকরা অসুস্থ হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের বাসায় পাঠানো হয়েছে। অধিকাংশই এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে। বাকিরাও স্বল্প সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়ে যাবে। উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে একদিনের জন্য কারখানা ছুটি দেয়া হয়েছে।
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com