চয়নিকা চৌধুরী আটক (ভিডিও)

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (২ মাস আগে) আগস্ট ৬, ২০২১, শুক্রবার, ৬:৫৫ অপরাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

চলচ্চিত্র পরিচালক চয়নিকা চৌধুরীকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর পান্থপথ সিগন্যাল থেকে তাকে আটক করা হয়। পরে তাকে মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়। পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, সম্প্রতি গ্রেপ্তার হওয়া মডেল পিয়াসা, মৌ এবং নায়িকা পরীমণিসহ বেশ কয়েকজনকে ডিজে পার্টি এবং মাদকের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। চয়নিকা চৌধুরীর বিরুদ্ধে এসব নায়িকা ও মডেলের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে প্রেম করিয়ে দেওয়া, বিচ্ছেদে সহযোগিতা, মাদক সরবরাহসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া আলোচিত নায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলায় চয়নিকা চৌধুরীর সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। অনেক আগে থেকেই তাকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে একটি বেসরকারী টেলিভিশনের কার্যালয় থেকে ফেরার পথে তার গাড়িতে উঠে ডিবি সদস্যরা জিজ্ঞাসাবাদ করে।
সেখান থেকে আটক করে তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়। প্রসঙ্গত, চয়নিকা চৌধুরী বাংলাদেশের একজন আলোচিত পরিচালক। ২০০১ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর ‘শেষ বেলায়’ নাটকের মধ্য দিয়ে পরিচালনা শুরু করেন তিনি। ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে অভিষেক ঘটে তার। ওই সিনেমার নায়িকা পরীমনি। এই সিনেমার কাজের পর থেকে নায়িকা পরীমনির সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। চয়নিকা চৌধুরীকে নিজের ‘মা’ বলে সম্বোধন করে থাকেন পরীমনি। উত্তরা বোট ক্লাব কা-ের পর পরীমনির পাশে ছায়ার মতো দেখা গেছে তাকে। কিন্তু গত ৪ আগস্ট পরীমণি আটক হওয়ার পর তাকে আর পাশে দেখা যায়নি। এ বিষয়ে অবশ্য চয়নিকা গণমাধ্যমে বলেছেন, পরীমনির সঙ্গে তার যোগাযোগ নিতান্ত পেশাগত কারণে।



পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

কুদ্দুস

২০২১-০৮-০৭ ০৬:০৩:৫৮

দেখুন উনি ঢাকার একটা দূতাবাসের আজ্ঞাবাহক, ওনাকে ২৪ ঘণ্টার বেশি আটকায়ে রাখা যাবে বলে আমার মনে হয় না।

জাকারিয়া মাহমুদ

২০২১-০৮-০৬ ০৯:১১:১২

করোনাকালে সবার দৃষ্টি অন্য দিকে সরানোর কুৎসিত অপচেষ্টা মাত্র। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে এসব অজানা কোন বিষয় নয়। আর এরাতো সমাজের নোংরা দিকের খন্ডিত অংশ মাত্র। ক্যাসিনো কান্ডের মতো মূল হোতারা বাইরেই থাকবে।

Mahmud

২০২১-০৮-০৬ ০৮:৩৯:৪৯

ভোট কান্ডের পর পরীমনি নাসির সাহেবের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছিলেন তা অধিকাংশ মানুষের কাছেই বিশ্বাসযোগ্য মনে হয় নি। পুলিশই জানিয়েছিলো ভোট কান্ডের রাতে পরীমনি মদ্যপ অবস্থায় থানায় গিয়েছিল অভিযোগ জানাতে কিন্তু পুলিশ ‌‌তাকে পরে সুস্থ্য অবস্থায় এসে অভিযোগ জানাতে বলে । কিন্তু পরে সে আর পুলিশের কাছে যায়নি । নাটকীয়ভাবে FB এসে যে অভিযোগ সে জানায় তা চয়নিকা চৌধুরী ছাড়া আর কারো কাছে বিশ্বাসযোগ্য মনে হয় নি ।

Rana

২০২১-০৮-০৬ ২১:২৭:৩৪

প্রতিটি সেক্টরে হিন্দু আধিপত্য সৃষ্টি করে এজাতিকে নীতি নৈতিকতা এবং রাষ্ট্রিয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার সুদূর প্রসারি চক্রান্ত তৈরি করে এগিয়ে যাচ্ছে কথিত প্রতিবেশি বন্ধু রাষ্ট্র ।চয়নিকা চৌধুরি এই চক্রের মিডিয়া বেশ্যা গডমাদার।

Neutral and sufferer

২০২১-০৮-০৬ ২১:১৭:০৭

I do not know Paromoni or Chayanika Chwodhury. I never saw any of their movie. Looking/reading what I can see Parimoni made a mistake that she complained against a powerful person Mr. Nasir who is the president of boat club. The Nasir has huge power who can harass many peoples, he has a strong group. Nothing can happen against him. In this serial now we are seeing Chayanika Chowdhury. We have to wait and see how far the power can spread, what other people will got arrested..This is reality. Do not touch a powerful person then anyone can be in a same situation.

Mohammad Mohsin

২০২১-০৮-০৬ ২০:৫২:৪৬

Drama is going on.. In India, govt. (Indian Govt.) successfully divert the mind of Indian people by arresting "Shilpa's" husband. Now we are also successfully divert our mind with bd govt. drama. People are dyeing, lot of other state crime is going on... but we are busy with Porimoni and night club... joy bangla.....

Adv. N. I. Bhuiyan

২০২১-০৮-০৬ ০৭:৪৬:০০

আমরা সবাই জানি সিনেমা নাটক যাত্রার নায়ক নায়িকারা কেমন চরিত্রের, তাদের কাজ অভিনয় ও নগ্নতার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা, মদ খাওয়া, নেশা করা তাদের একটি অনুষঙ্গ। সিনেমার নায়িকাদের কাছ থেকে আমরা কেউ সততা, ভালো গৃহিণী, পর্দানশীল, সচ্চরিত্র, আশা করি না। কারণ সিনেমা নাটক পুরোটাই সমাজের অন্ধকার জগত ।এই পেশায় যখন এরা ঢুকে এটা অনুক্ত এক ঘোষণা যে তারা উক্ত রূপে চলবে কিন্তু প্রকৃতপক্ষে আমরা যেটা চাই তা হল সমাজের যে সকল মুখোশধারী কিছু ধনী ও চরিত্রহীন রাজনীতিবিদ আমলা ও ক্ষমতাধর ব্যক্তিরা দিনের বেলা জনগণ থেকে ভক্তি নিচ্ছে আর তাদের অবৈধ টাকা দিয়ে ওদেরকে রাতে ডিজে পার্টি সহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে ব্যবহার ও ভোগ করছে পার্টি দিচ্ছে পুলিশ ও র্যাবের কাছে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকার পরেও সেই পার্টিগুলো চলা অবস্থায় কুকর্ম করা অবস্থায় কেন ধরা হলো না কেন তাদেরকে এমন সময় ধরা হলো যখন তারা কিছুই করছিল না তাই জনগণের কাছে এখন সন্দেহ যে এটি কি চলচ্চিত্র শিল্পকে ধ্বংস করার জন্য একটি পাঁয়তারার অংশ কিনা

সাইফুল ইসলাম ফিরোজ

২০২১-০৮-০৬ ০৭:৪২:৩২

কতো নাটক দেখতে হবে জানিনা। কে পরিমণীকে এত দামী গাড়ী কিনে দিয়েছে সেটা জনগণের অধিকার আছে। পরিমনীসহ অন্য নায়িকাদের যারা শেল্টার দিয়েছে এবং যেসব রথী মহারথীরা তাদের সেবা নিতে যেতো তাদের মুখোশ উন্মোচন করুন। পরীমনিদেরকে লাইভে এনে তাদের মুখ থেকে জনগণ জানতে চায় কে বা কারা তাদের আড্ডায় হাজিরা দিতো। তাহলেই বুঝবো প্রশাসন নিরপেক্ষভাবে, সৎ উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করছে। তা নাহলে মনে হবে এর অন্তরালে গভীর কোনো ষড়যন্ত্র অপেক্ষা করছে। তারই পূর্ব প্রস্ততি চলছে। বোট ক্লাবের সদস্যদের তালিকায় কারা আছে তাদের পরিচয় জনগণ জানতে চায়। ক্লাব গঠন করা হয় মূলতঃ এই সমস্ত অপকর্ম করার জন্য। সেখানে জুয়া,মদ আর নারীদের নিয়ে অবৈধ কাজ ও অপকর্ম ছাড়া জনগণের কোনো কল্যাণ করা হয় না। সুতরাং এই ক্লাবগুলো আগে বন্ধ করতে হবে।

Aftab Chowdhury

২০২১-০৮-০৬ ০৭:১৪:২৯

প্রতিটি সেক্টরে হিন্দু আধিপত্য সৃষ্টি করে এজাতিকে নীতি নৈতিকতা এবং রাষ্ট্রিয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার সুদূর প্রসারি চক্রান্ত তৈরি করে এগিয়ে যাচ্ছে কথিত প্রতিবেশি বন্ধু রাষ্ট্র ।চয়নিকা চৌধুরি এই চক্রের মিডিয়া বেশ্যা গডমাদার।

জাহাঙ্গীর আলম

২০২১-০৮-০৬ ০৬:৫৮:০৮

তাহলে এই মহিলাই গড মাদার?সময় এসেছে সমাজ থেকে নরকের কীটদের উপড়ে ফেলার।

Golok

২০২১-০৮-০৬ ১৯:৫৪:৩৯

Unexpected.

Anisur rahman

২০২১-০৮-০৬ ০৬:৪২:২৩

Attention to Sdd Please don't create the barrier . People are fully aware what's going on.

Md.Abdullah

২০২১-০৮-০৬ ১৯:৩৮:৩১

হে আল্লাহ, কেয়ামত কোথায়?

wow

২০২১-০৮-০৬ ১৯:৩৬:২৫

সম্মানিত ক্রেতাদের নাম প্রকাশ হোক।

sdd

২০২১-০৮-০৬ ১৯:০০:২৪

ঘটনাটি ঘটেছে পুলিশের দুই কর্মকর্তার ব্যক্তিস্বার্থের দ্বন্দ্বের জের ধরে। কিছুদিন আগে এক কর্মকর্তা অন্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বোট ক্লাব কাণ্ডে পরীকে ব্যবহার করেছিলেন, অন্য কর্মকর্তাটি পরীকে গ্রেফতার করে তার প্রতিশোধ নিলেন। চয়নিকা পরীকে নিয়ে কাজ করেছিলেন, তার দুঃসময়ে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, এজন্য তাকে গ্রেফতার করা হল। এই দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া অথবা থামানো দরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

শনাক্তের হার ১.৮৮

করোনায় আরও ৬ জনের মৃত্যু

১৬ অক্টোবর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



তদন্ত কমিটি গঠন

চাঁদপুরে সংঘর্ষ, নিহত ৩

DMCA.com Protection Status