আইইডিসিআর-এর গবেষণা

টিকা না নেয়াদের মৃত্যুহার ৩ শতাংশ, টিকা নেয়াদের ০.৩ শতাংশ

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন (১ মাস আগে) আগস্ট ২, ২০২১, সোমবার, ১১:০০ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২১ পূর্বাহ্ন

করোনার টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত জটিলতার হার অন্তত ১০ শতাংশ বেশি বলে জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। চলতি বছরের মে ও জুন মাসে কোভিড আক্রান্তদের মধ্যে পরিচালিত একটি গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। গতকাল এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওই গবেষণার ফলাফল জানিয়েছে আইইডিসিআর।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে এন্টিবডির উপস্থিতির পাশাপশি, টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে আক্রান্তদের রোগের গতিবিধি পর্যালোচনা করছে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০২১ সালের মে ও জুন মাসে কোভিড-১৯ আক্রান্তদের মধ্যে একটি গবেষণা পরিচালনা করা হয়।

এ গবেষণায় বিগত মে ও জুন মাসে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জাতীয় তালিকা হতে দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে নির্বাচিত ত্রিশোর্ধ্ব ১৩৩৪ জনের মধ্যে, ৫৯২ জন আক্রান্ত রোগী যারা একটি ডোজও কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ করেননি এবং ৩০৬ জন পূর্ণ ডোজ (২ ডোজ) গ্রহণ করায় অন্তত ১৪ দিন পর নতুন করে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে তারা অংশগ্রহণ করেন। আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত হওয়ার কমপক্ষে ১৪ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হয়।

গবেষণায় দেখা যায়, টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত জটিলতার হার ছিল ১১ শতাংশ। এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ছিল ৪ শতাংশ। অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেয়া কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত জটিলতার হার এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশি পাওয়ায় যায়।

হাসপাতালে ভর্তির হার টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ২৩ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ছিল ৭ শতাংশ। অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেয়া কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তির হার ছিল ৩২ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের মধ্যে যা ছিল ১০ শতাংশ।
একের অধিক অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেয়া কোভিড-১৯ রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার, পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণকারীদের তুলনাং ১৬ শতাংশ বেশি ছিল।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারী টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১৯ জনের (৩ শতাংশ) আইসিইউতে ভর্তির প্রয়োজন হয়েছিল এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৩ জনের (১ শতাংশের কম) আইসিইউতে ভর্তির প্রয়োজন হয়েছিল। টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১৭ জন (৩ শতাংশ) রোগী মৃত্যুবরণ করেন এবং টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের মধ্যে ১ জন (০.৩ শতাংশ) রোগী মৃত্যুবরণ করেন।
উপরোক্ত গবেষণায় দেখা যায়, কোভিড-১৯ রোগে পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণকারীদের তুলনায় টিকা না নেয়া আক্রান্তদের মধ্যে অধিকহারে শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত জটিলতা, অধিক হাসপাতালে ভর্তি ও অধিক মৃত্যু ঝুঁকির আশঙ্কা রয়েছে। আইইডিসিআর কোভিড-১৯ রোগ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি পূর্ণ ডোজ কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণের জন্য সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছে যা পরবর্তী কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের জটিলতা কমাতে সহায়তা করবে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২১-০৮-০১ ২২:২৬:৩৫

খুশির সংবাদ বাংলাদেশ তথ্য সংগ্রহ করে গবেষণা করছে । গবেষণা কোন জাতির উন্নতি ও সমৃদ্ধির সোপান । তাহলে তথ্য মতে টিকার উপকারিতা আছে যদিও সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে হবে মাঝে মাঝে অক্ষম হয়ে যায় । এই উপকার টুকু কম কি ? শ্বাস কষ্ট খুব মারাত্মক । রোগীর মৃত্যুর কারণ শ্বাস কষ্ট ।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

দেশে ফিরলেন আ স ম রব

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

শনাক্তের হার ৪.৫৪

করোনায় আরও ৩১ জনের মৃত্যু

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status